‘কৃষকদের দেশদ্রোহী বললে মেনে নেব না’, বিধানসভায় সরব মমতা

মমতা বলেন, "নানা রকম জাল জোচ্চুরি করে কৃষকদের দেশদ্রোহী প্রমাণ করার চেষ্টা করা হচ্ছিল। সেই সময় বাংলার বিধানসভা রুখে দাঁড়িয়েছে, কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়েছে।"

'কৃষকদের দেশদ্রোহী বললে মেনে নেব না', বিধানসভায় সরব মমতা
ফাইল চিত্র।
সায়নী জোয়ারদার

|

Jan 28, 2021 | 4:31 PM

কলকাতা: কৃষক আন্দোলনকে সম্পূর্ণ সমর্থন জানিয়ে বৃহস্পতিবার বিধানসভায় সরব হলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একাধিক অভিযোগ তুলে বিজেপির বিরুদ্ধে কড়া সুর চড়ালেন মুখ্যমন্ত্রী। মমতার কথায়, কৃষকদের ‘দেশদ্রোহী’ তকমা দেওয়া হচ্ছে। যা তৃণমূল কোনওভাবেই মেনে নেবে না। একইসঙ্গে দেশের সার্বিক পরিস্থিতির কথা তুলে প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবিও তোলেন মমতা।

কৃষি আইন বিরোধী বিলের প্রস্তাব উত্থাপিত হয় এদিনের বিধানসভা অধিবেশনে। উঠে আসে প্রজাতন্ত্র দিবসে দিল্লিতে কৃষকদের ট্রাক্টর মার্চকে সামনে রেখে গোলমালের প্রসঙ্গও। বিধানসভা কক্ষে দাঁড়িয়ে মমতা বলেন, “আন্দোলনকারীদের আপনি দেশদ্রোহী আখ্যা দেবেন। আর সেটা আমরা মেনে নেব, এটা হতে পারে না। বুধবার সকাল থেকে বিজেপির আইটি সেল কৃষকদের দেশদ্রোহী আখ্যা দিয়েছে। সেটা আমি দেখেছি। কৃষকরা অনশন করেছেন, মারা গিয়েছেন। আইন হাতে তুলে নেননি।”

এ কথার রেশ টেনেই মমতার বক্তব্য, “দেশ সমস্যার মধ্যে। সবকিছু আয়ত্তের বাইরে। কৃষক থেকে শুরু করে সবাই সমস্যায়। তাই প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ করা উচিত।” কেন্দ্র কৃষি আইন প্রত্যাহার না করলে সরকারকে ‘গদি ছাড়তে হবে’ বলেও হুঙ্কার দেন মমতা। একইসঙ্গে ‘কৃষকদের দাবি মানতে হবে’ বলেও এদিন সরব হন তিনি। মমতার বক্তব্য, “গায়ের জোরে বিল পাশ করিয়েছে কেন্দ্র। আমরা প্রথম থেকেই কৃষকদের পাশে।”

এদিন পার্থ চট্টোপাধ্যায় অধিবেশনে কৃষি বিল বাতিলের দাবিতে সর্বদলীয় প্রস্তাব পেশ করতেই ওয়েলে নেমে বিরোধিতা শুরু করেন বিজেপির মনোজ টিজ্ঞা, সুদীপ মুখোপাধ্যায়, দুলাল বর। এ প্রসঙ্গে মমতা বলেন, “বিজেপি সাধারণ মানুষের সব আন্দোলনকে নষ্ট করার চেষ্টা করে। লঙ্কা কাণ্ডের মত দেশ জ্বালিয়ে খাচ্ছে এরা। আপনাদের লজ্জা থাকা উচিত।”

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla