CWG 2022-Steve Reilly: হঠাৎ ৬২ বছরের কোচ হয়ে গেলেন টেবল টেনিস প্লেয়ার! কেন জানলে অবাক হয়ে যাবেন

Commonwealth Games 2022: ফিজির টেবল টেনিসের কোচ হলেন কী করে! সেই গল্পই শোনালেন স্টিভ।

CWG 2022-Steve Reilly: হঠাৎ ৬২ বছরের কোচ হয়ে গেলেন টেবল টেনিস প্লেয়ার! কেন জানলে অবাক হয়ে যাবেন
Image Credit source: TWITTER
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Dipankar Ghoshal

Aug 03, 2022 | 6:12 PM

বার্মিংহ্যাম : অনবদ্য কাহিনি। পরিবারের ধারা বজায় রাখতে চান স্টিভ রাইলি (Steve Reilly)। কী ভাবে! তাঁর বাবা জিম রাইলি। বক্সার ছিলেন। ১৯৩৮ ব্রিটিশ এমপায়ার গেমসে অংশ নিয়েছিলেন। এই গেমসই এখন কমনওয়েলথ গেমস (Commonwealth Games 2022) নামে পরিচিত। ১৯৩৬-৪৩ স্কটল্যান্ডের হয়ে বক্সিংয়ে অংশ নিয়েছেন জিম। স্টিভ রাইলির জন্ম ইংল্যান্ডে। ফিজি টেবল টেনিস (Table Tennis) দলের কোচ তিনি। বয়স ৬২ বছর। বাবার স্বপ্ন পূরণে কোচ থেকে হয়ে গেলেন টিটি প্লেয়ার! স্টিভের এখনও মনে পড়ে বাবার সেই বক্সিং ইউনিফর্মের কথা। সেটা সযত্নে রেখে দিয়েছেন। বাবার সম্মানেই বার্মিংহ্যাম গেমসে টেবল টেনিস ইভেন্টে খেলবেন ৬২ বছরের স্টিভ রাইলি। ১৯৩৬ সালে ফিজির হয়ে স্কটিশ বক্সিং চ্যাম্পিয়নশিপে মেডেল জিতেছিলেন জিম। সেই পোশাকেই নামবেন স্টিভ।

স্টিভ রাইলি বলছিলেন, ‘ছোটবেলার স্মৃতি এখনও চোখের সামনে অমলীন। তার মধ্যে সবচেয়ে প্রিয় বাবার সেই ব্লেজার। ব্রিটিশ এমপায়ার গেমসের প্রতীক রয়েছে তাতে। প্রতীকটা দারুণ ভাবে এমব্রয়ডারি করা। স্কুল ব্যাজের মতো নয়।’ স্টিভ ফিজির কোচ। সেই দেশের হয়েই টিটতে পুরুষদের সিঙ্গলস, মিক্সড ডাবলস এবং দলগত বিভাগে নামবেন স্টিভ রাইলি। তরুণ বয়সে বক্সিং এবং ডাইভিংয়েও আগ্রহ ছিল স্টিভের। জানালেন, ‘আমার বয়স তখন ১০ বছর। বক্সিংয়ের পাশাপাশি অন্যান্য় খেলার সঙ্গেও পরিচয় করান বাবা। ১৭ বছর বয়সে রয়্যাল নেভিতে যোগ দিই। তারপরই টেবল টেনিসে ফোকাস করি। নেভিতে ২২ বছর ইলেকট্রনিক্স টেকনিশিয়ান এবং ডাইভারের দায়িত্ব পালন করি। চাকরি ছাড়ার পর ডাইভিংয়েই কেরিয়ার গড়তে চেয়েছিলাম।’

তাহলে ফিজির টেবল টেনিসের কোচ হলেন কী করে! সেই গল্পই শোনালেন স্টিভ। ‘ফ্লোরিডায় কাজ করছিলাম। ফিজিকে প্রস্তাব দিই ডাইভিংয়ের কোচ হতে চাই। দু-মাসের চুক্তি ছিল। তারপর তিন মাস, ছয় মাস করে পার্মানেন্ট হয়ে যায়। ২০০৯ সালে ফিজির নাগরিকত্ব পাই।’ ফিজিই তাঁর কাছে এখন ‘স্কটল্যান্ড’। স্টিভ আরও বলছেন, ‘ফিজির খেলাধুলোর সিস্টেম খুব ভালো। সেটা দেখেই ভালো লেগে যায়। টেবল টেনিসেও পরবর্তী প্রজন্মকে তুলে আনার দিকে নজর দিই। কোচিংয়ের মাধ্যমেই সেই কাজ সম্ভব ছিল।’ ফিজির হয়ে খেলোয়াড় হিসেবেও প্রতিনিধিত্ব করবেন বলেই, অন্যান্য দেশে কোচিংয়ের প্রস্তাব থাকলেও ফিরিয়ে দেন স্টিভ।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla