করোনা আক্রান্তের পরিবারকে ‘সামাজিক বয়কট’, পড়শিদের পাল্টা দাবি, ‘ওরা কোভিড বিধি মানছে না’

বুধবারই করোনা (COVID-19) রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। বৃহস্পতিবার সকালে দেখা যায় এই ঘটনা।

করোনা আক্রান্তের পরিবারকে 'সামাজিক বয়কট', পড়শিদের পাল্টা দাবি, 'ওরা কোভিড বিধি মানছে না'
নিজস্ব চিত্র।
সায়নী জোয়ারদার

|

Jun 03, 2021 | 6:43 PM

আলিপুরদুয়ার: করোনা (COVID-19) আক্রান্ত বাড়ির এক সদস্য। তাই গোটা পরিবারকে সামাজিক বয়কটের অভিযোগ উঠল। এমনকী ওই বাড়ির সামনে জলের কলও খুলে নেওয়া হয় বলে অভিযোগ। আলিপুরদুয়ার পুরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডে এমন ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

আলিপুরদুয়ার নিউটাউন বাজার সংলগ্ন এলাকার এক বৃদ্ধা করোনা আক্রান্ত হন। বুধবারই তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অভিযোগ, বাড়ির সদস্য করোনা আক্রান্ত খবর পেয়েই এলাকার লোকজন ওই পরিবারকে সামাজিক বয়কটের কথা বলেন। অভিযোগ, করোনা আক্রান্তের বাড়ির সামনে একটি জলের কল ছিল, তাও খুলে নেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: ইয়াসে ক্ষতি হয়েছে বললেই ক্ষতিপূরণ নয়, ত্রিস্তরীয় পরীক্ষার পরই ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা

ওই বাড়ির এক সদস্যের কথায়, “সকালে উঠে দেখছি বাড়ির সামনে নলকূপে বস্তা জড়ানো। জল নেওয়ার কোনও ব্যবস্থা নেই। কলের মাথা খুলে নিয়ে চলে গিয়েছে। এটা তো অন্যায়। অমানবিকতা।” যদিও এলাকার এক বাসিন্দার দাবি, “ওদের বাড়ির লোকজন কথা শুনছে না। সকাল থেকে বারবার এই কল ব্যবহার করছে। বাধ্য হয়ে প্রাণের ভয়ে এই কলটা খুলে নিতে হয়েছে। ওরা যদি কথা শুনে ঘরের ভিতর থাকে, তা হলে আমরাও নিশ্চয়ই ওদের সাহায্য করব। ওরা তো বাইরেও বের হচ্ছে, বাজারহাট করছে। করোনার কোনও নিয়মই মানছে না। এদিকে গোটা পাড়ায় একটাই কল। আমাদেরও তো জল পেতে সমস্যা হচ্ছে। কিন্তু কিছু করারও নেই।”

এ ব্যাপারে আলিপুরদুয়ার পুরসভার প্রশাসক মিহির দত্ত বলেন, “ঘটনাটি আমি জানি না। এটা অমানবিক ঘটনা। আমরা পুরসভার পক্ষ থেকে কোভিড পজিটিভ রোগীদের পাশে দাঁড়াচ্ছি। আশা কর্মীরা কাজ করছেন। জলের কল খুলে নেওয়া হয়েছে এটা মেনে নেওয়া যায় না। আমরা ব্যবস্থা নেব।”

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla