Mucormycosis: বঙ্গে ঊর্ধ্বমুখী মৃত্যুগ্রাফ! ব্ল্যাক ফাঙ্গাস সংক্রমণে ফের মৃত ২

Mucormycosis: উত্তরবঙ্গে এই মুহূর্তে  মিউকরমাইকোসিসে আক্রান্তের সংখ্য়া প্রায় ত্রিশ ছাড়িয়েছে। সন্দেহভাজনের তালিকায় রয়েছেন প্রায় পঁচিশজন।

Mucormycosis: বঙ্গে ঊর্ধ্বমুখী মৃত্যুগ্রাফ! ব্ল্যাক ফাঙ্গাস সংক্রমণে ফের মৃত ২
ফাইল চিত্র।

শিলিগুড়ি: মহামারীর দ্বিতীয় থেকে ভুয়ো টিকাকরণ; নাভিশ্বাস অবস্থা বঙ্গবাসীর। করোনার দৈনিক সংক্রমণ কিছুটা কমলেও ভয় ধরাচ্ছে মিউকরমাইকোসিসের সংক্রমণ। রোজই লাফিয়ে বাড়ছে কৃষ্ণ ছত্রাকে আক্রান্তের সংখ্যা। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যু। শুক্রবার উত্তরবঙ্গে মিউকরমাইকোসিসে (Mucormycosis) আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল দুজনের। উভয়েই উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে চিকিৎসারত ছিলেন।

মেডিক্যাল কলেজ সূত্রে খবর, গত ২৪ ঘণ্টায় মিউকরমাইকোসিস সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে দুই ব্যক্তির। মৃত আশিস কুণ্ডু এবং মোহনলাল দেব দুজনেই কোমর্বিড ছিলেন। করোনামুক্তির পরেই তাঁরা মিউকরমাইকোসিসে আক্রান্ত হন। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, দুজনেই উচ্চ রক্তচাপ ও সুগারে আক্রান্ত ছিলেন। দুজনের মধ্যে আশিস বানারহাটের এবং মোহনলাল চম্পাসারির বাসিন্দা। দুজনের বয়সই পঞ্চাশের কম। অন্যদিকে, শুক্রবারই মিউকরমাইকোসিসে আক্রান্ত এক রোগীর সফল অস্ত্রোপচার হয়েছে বলে জানিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

উত্তরবঙ্গে এই মুহূর্তে  মিউকরমাইকোসিসে আক্রান্তের সংখ্য়া প্রায় ত্রিশ ছাড়িয়েছে। সন্দেহভাজনের তালিকায় রয়েছেন প্রায় পঁচিশজন। সম্প্রতি, উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজেই মৃত্যু হয়েছে চারজনের। ক্রমেই বাড়ছে সংক্রমিতের সংখ্যা। মিউকরমাইকোসিসে আক্রান্ত হওয়ার পর হাসপাতাল থেকে পালিয়ে গিয়েছিলেন এক রোগী। বহরমপুরের বাসিন্দা সেই রোগীর খোঁজ মেলেনি আর।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দাবি, মিউকরমাইকোসিস বা ব্ল্যাক ফাঙ্গাস (Black Fungus) মূলত দূর্বল অনাক্রম্য ব্যক্তির দেহে বাসা বাঁধে। অর্থাৎ, যে ব্যক্তির রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম তাঁর দেহেই বাসা বাঁধতে পারে এই মারণ ছত্রাক। মূলত কোভিডজয়ী রোগীদের দেহে প্রতিরোধক ক্ষমতা কম থাকে। সিডিসি বলছে, মূলত, মিউকর ও রাইজোপাস জাতীয় ছত্রাক প্রজাতি এই সংক্রমণের জন্য দায়ী। মৃত প্রাণীর দেহ, পচে যাওয়া উদ্ভিজ্জ থেকে মূলত এই ছত্রাক জন্ম নেয়। আপাতভাবে এই ছত্রাক ক্ষতিকারক না হলেও শরীরের অনাক্রম্যতা কমে এলেই ভয়াবহ ক্ষতি করতে পারে।  সংক্রমণের গ্রাফ দেখে সব রাজ্য সরকারকে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক নির্দেশে, মিউকরমাইকোসিসকে (Mucormycosis) মহামারী আইনের আওতায় এনে ‘নোটিফায়েবল ডিজ়িজ়’ বলে ঘোষণা করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: ‘মমতাদি, ভ্যাকসিনের কাটমানি আপনার বাড়িতেও যায়, ক্ষমতা থাকলে তদন্ত করুন’, তোপ দিলীপের

 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla