Babies Care: বর্ষায় কীভাবে যত্ন নেবেন ৬ মাস থেকে ২ বছর বয়সি শিশুদের? রইল বিশেষজ্ঞের পরামর্শ

Babies Care: বর্ষায় কীভাবে যত্ন নেবেন ৬ মাস থেকে ২ বছর বয়সি শিশুদের? রইল বিশেষজ্ঞের পরামর্শ

Child Health Care: গরমে স্ব‌স্তির নিঃশ্বাস ফেললেও এই বছর যাদের প্রথম বর্ষা, তাদের জন্য মোটেও বিষয়টা সুখকর নয়। আমরা কথা বলছি ৬ মাস থেকে ২ বছর বয়সি শিশুদের।

megha

|

Jun 20, 2022 | 6:15 PM

অবশেষে বর্ষা এসেছে বঙ্গে। গরমে স্ব‌স্তির নিঃশ্বাস ফেললেও এই বছর যাদের প্রথম বর্ষা, তাদের জন্য মোটেও বিষয়টা সুখকর নয়। আমরা কথা বলছি ৬ মাস থেকে ২ বছর বয়সি শিশুদের। আসলে বর্ষার সঙ্গে একাধিক শারীরিক সমস্যা দেখা দেয় ছোট থেকে বড় সবার মধ্যে। কিন্তু সবচেয়ে বেশি কষ্ট পায় শিশুরা। এরা নিজের কষ্টটা ব্যক্ত করতে পারে না। তাই এখানে মা-বাবাকেই বিশেষ ভূমিকা পালন করতে হয়। এই মরশুমে কীভাবে যত্ন নেবেন ৬ মাস থেকে ২ বছর বয়সি শিশুদের, সে ব্যাপারে TV9 বাংলার মাধ্যমে পরামর্শ দিলেন  শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ও চিকিৎসক সুমন পোদ্দার।

বর্ষায় শিশুদের মধ্যে কোন কোন রোগের ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি? 

প্রথমত, ঋতু পরিবর্তন হচ্ছে। এই ঠান্ডা-গরম পরিস্থিতিতে জ্বর, সর্দি, কাশির হওয়ার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি। এছাড়া বর্ষার জমা জল থেকে ডেঙ্গি, ম্যালেরিয়ার মশার উপদ্রব বাড়ে। তা-ই কোনওভাবেই মশাবাহিত রোগের ঝুঁকি উপেক্ষা করা যায় না। পাশাপাশি বর্ষার সময় ডায়রিয়া হওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে।

How to Protect 6 months to 2 years child From Monsoon Illness

How to Protect 6 months to 2 years child From Monsoon Illness

How to Protect 6 months to 2 years child From Monsoon Illness

অবস্থার অবনতি হচ্ছে কিনা বুঝবেন কীভাবে?

জ্বর, সর্দি হলে প্রাথমিক ভাবে, তিন দিন খেয়াল রাখতে বলা হয়। পাশাপাশি তিনটি জিনিসের দিকে নজর রাখতে হবে। (এক) জ্বর বাড়ছে বা বেশি জ্বর আছে কি না। (দুই) জল ঠিকঠাক পরিমাণে খাচ্ছে কি না, যাতে সারা দিনে মূত্র নিষ্কাশণ ঠিকঠাক হয়। আর শ্বাসের গতি-প্রকৃতি কেমন। শিশুর শ্বাসকষ্ট হলে দ্রুত চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করুন।

ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হলে কীভাবে সন্তানের খেয়াল রাখবেন?

এই খবরটিও পড়ুন

ডায়রিয়া হলে শরীর থেকে জল বেরিয়ে যায়। এই ক্ষেত্রে জলই একমাত্র সমাধান। শিশুর বয়স যদি ৬ মাসের বেশি হয় তাহলে তাকে প্রচুর পরিমাণে জল পান করাতে হবে। পাশাপাশি ওআরএস-এর জল পান করাতে হবে। যদি ব্যাকটেরিয়াল ডায়রিয়া হয়, তাহলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে অ্যান্টিবায়োটিক গ্রহণ করতে হবে। কিন্তু ভাইরাল ডায়রিয়ার ক্ষেত্রে জলই একমাত্র ওষুধ। কিন্তু চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কোনও অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহার করবেন না। এতে হিতে বিপরীত হতে পারে।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA