Anti Conversion Bill: কর্নাটকে জারি সরকারি অর্ডিন্যান্স, বিতর্কিত ধর্মান্তকরণ বিলে অনুমোদন মন্ত্রিসভার

Anti Conversion Bill: কর্নাটকে জারি সরকারি অর্ডিন্যান্স, বিতর্কিত ধর্মান্তকরণ বিলে অনুমোদন মন্ত্রিসভার
ছবি: সংবাদ সংস্থা

Karnataka: সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, ডিসেম্বরের পরিস্থিতিতে এখন বদল এসেছে, এখন বিধান পরিষদে বিজেপির কাছে পর্যাপ্ত সংখ্যা রয়েছে।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: অরিজিৎ দে

May 12, 2022 | 10:07 PM

বেঙ্গালুরু: বেশ কিছু দিন ধরে ধর্মান্তকরণ (Religious Conversion) জাতীয় রাজনীতির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু হয়ে উঠেছে। একাধিক রাজ্যে জোর করে অথবা প্রলোভন দেখিয়ে ধর্মান্তকরণের ঘটনা সামনে এসেছিল। একাধিকবার ধর্মান্তকরণের বিরুদ্ধে কড়া বার্তা দিয়েছে কেন্দ্র। বৃহস্পতিবার, নানা বিতর্ক সত্ত্বেও কর্নাটকের বিজেপি সরকার অর্ডিন্যান্স জারি করে ‘দ্য প্রোটেকশন অব রাইট টু ফ্রিডম অব রিলিজিয়ন অর্ডিন্যান্স’ (The Protection of Right to Freedom of Religion Ordinance) ধর্মান্তকরণ বিরোধী বিলকে আইন হিসেবে বলবৎ করেছে। আজ মুখ্যমন্ত্রী বাসবরাজ বোম্মাই (Basavraj Bommai) নেতৃত্বাধীন বৈঠকে এই বিলকেই অনুমোদন দিয়েছে রাজ্য মন্ত্রিসভা। এই সময়ে বিধানসভা ও বিধান পরিষদ স্থগিত থাকার কারণে আইন বলবৎ করার জন্য এই সিদ্ধান্তের পথেই হেঁটেছে সেরাজ্যের বিজেপি সরকার। বলপূর্বক অথবা প্রলোভন দেখিয়ে ধর্মান্তকরণ রোধ করার জন্যই এই বিল পাশ করা হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী বোম্মাই আগেই জানিয়েছিলেন, ‘বিধানসভা ও বিধান পরিষদ স্থগিত থাকার কারণে, আমরা মন্ত্রিসভার বৈঠকে অর্ডিন্যান্স এনে এই বিলটি পাশ করব।’ প্রাথমিকভাবে ২০২১ সালের ২৩ ডিসেম্বর কর্নাটক বিধানসভায় বিলটি পাশ হয়েছিল। তবে বিধান পরিষদে বিজেপির কাছে পর্যাপ্ত সংখ্যা না থাকায় বিলটিকে আইনে পরিণত করতে সমস্যা হচ্ছিল।

এই খবরটিও পড়ুন

সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, ডিসেম্বরের পরিস্থিতিতে এখন বদল এসেছে, এখন বিধান পরিষদে বিজেপির কাছে পর্যাপ্ত সংখ্যা রয়েছে। সেই কারণে অর্ডিন্যান্স পাশ করার সিদ্ধান্তের পথে হেঁটেছে সরকার। তবে এই বিল পেশের সময়ই কংগ্রেস বিরোধিতা করেছিল। তাদের মতে সংবিধান মানুষকে ইচ্ছেমতো ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান পালনের অধিকার দিয়েছে। এই আইন প্রণয়নে আরএসএসের মদত দেখছে কংগ্রেস। কর্নাটক কংগ্রেসের সভাপতি ডিকে শিবকুমার জানিয়েছেন, “আমি জানি না কেন কর্নাটক সরকার এই বিল নিয়ে তাড়াহুড়ো করল। উন্নয়ন অথবা কর্মসংস্থান নিয়ে এরম কোনও অর্ডিন্যান্স পাশের বিষয়ে উদ্যোগী হয়নি সরকার।” প্রসঙ্গত উত্তর প্রদেশ, মধ্য প্রদেশ হিমাচল প্রদেশের মতো বিজেপি শাসিত রাজ্যে ইতিমধ্যেই বলপূর্বক ধর্মান্তকরণের বিরুদ্ধে আইন রয়েছে। আগেই জানা গিয়েছিল গণ ধর্মান্তকরণের সঙ্গে যুক্তদের ৩ থেকে ১০ বছর জেল এবং ১ লক্ষ টাকা অবধি জরিমানা হতে পারে।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA