বিবাহবিচ্ছেদে খোরপোশ চাইতে পারবেন মুসলিম মহিলারাও, ঐতিহাসিক রায় সুপ্রিম কোর্টের

Supreme Court: বিবাহবিচ্ছেদ হলে মুসলিম মহিলারাও স্বামীর কাছ থেকে দাবি করতে পারবেন খোরপোশ, বুধবার এমনটাই রায় দিল সুপ্রিম কোর্ট। এ দিন বিচারপতি বিভি নাগারত্ন ও বিচারপতি অগাস্টাইন জর্জ মাসিহ বেঞ্চের তরফে এই রায় দেওয়া হয়।

বিবাহবিচ্ছেদে খোরপোশ চাইতে পারবেন মুসলিম মহিলারাও, ঐতিহাসিক রায় সুপ্রিম কোর্টের
সুপ্রিম কোর্টImage Credit source: Twitter
Follow Us:
| Updated on: Jul 10, 2024 | 11:55 AM

নয়া দিল্লি:  বিবাহবিচ্ছেদ হলে মুসলিম মহিলারাও স্বামীর কাছ থেকে দাবি করতে পারবেন খোরপোশ, বুধবার এমনটাই রায় দিল সুপ্রিম কোর্ট। এ দিন বিচারপতি বিভি নাগারত্ন ও বিচারপতি অগাস্টাইন জর্জ মাসিহ বেঞ্চের তরফে এই রায় দেওয়া হয়।

এক মুসলিম ব্যক্তির বিবাহবিচ্ছেদের পর স্ত্রীকে খোরপোশ দিতে অস্বীকার করেছিলেন। আদালতের খোরপোশের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে পিটিশন দায়ের করেন সুপ্রিম কোর্টে। এ দিন শীর্ষ আদালতের তরফে সেই পিটিশন খারিজ করে দেওয়া হয়। বলা হয়, ফৌজদারি আইনের ১২৫ ধারার অধীনে ডিভোর্সী মুসলিম মহিলাও তাঁর প্রাক্তন স্বামীর কাছ থেকে খোরপোশের দাবি করতে পারেন।

শীর্ষ আদালতের তরফে এ দিন বলা হয়, মুসলিম মহিলা (বিবাহবিচ্ছেদে অধিকার সংরক্ষণ) আইন, ১৯৮৬ সেকুলার আইনের উর্ধ্বে হতে পারে না। সুপ্রিম কোর্টের বেঞ্চের তরফে সাফ জানানো হয়, সকল বিবাহিত মহিলাই খোরপোশের দাবি করতে পারেন, তা তিনি যে কোনও ধর্মেরই হন না কেন। বিচারপতি নাগারত্ন ও বিচারপতি মাসিহ আলাদাভাবে এই রায় দিলেও, দুইজনেই  একই রায় দেন।

বিচারপতি নাগারত্ন বলেন, “কিছু স্বামী এটা বুঝতেই পারেন না যে তাঁর স্ত্রী, যিনি গৃহবধূ, তিনি মানসিক ও অন্যান্য দিক থেকে তাঁর উপরে নির্ভরশীল। সময় এসেছে ভারতীয় পুরুষদের গৃহবধূদের ভূমিকা ও আত্মত্যাগকে স্বীকার করা।”