কয়লা পাচার কাণ্ডে তাইল্যান্ডের ব্যাঙ্কে নোটিস দেবে সিবিআই, প্রয়োজনে ফের জিজ্ঞাসাবাদ

সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Abhishek Banerjee) স্ত্রী রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Rujira Banerjee) এ দিন এক ঘণ্টার কিছু বেশি সময় ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করেন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা। তার পরই কয়লা পাচার (Coal Scam) তদন্তের শিকড়ে পৌঁছতে তাইল্যান্ডের ব্যাঙ্কেও নোটিস পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিবিআই (CBI)।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 22:04 PM, 23 Feb 2021
কয়লা পাচার কাণ্ডে তাইল্যান্ডের ব্যাঙ্কে নোটিস দেবে সিবিআই, প্রয়োজনে ফের জিজ্ঞাসাবাদ
ছবি- টুইটার

কলকাতা: কয়লা পাচার (Coal Scam) তদন্তের শিকড়ে পৌঁছতে এ বার তাইল্যান্ডের ব্যাঙ্কেও নোটিস পাঠাবে সিবিআই (CBI)।

সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Abhishek Banerjee) স্ত্রী রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Rujira Banerjee) এ দিন এক ঘণ্টার কিছু বেশি সময় ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করেন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা। সূত্রের খবর, মঙ্গলবার প্রায় ২৫-৩০টি প্রশ্ন সাজিয়ে নিয়ে গিয়েছিলেন গোয়েন্দারা। বিদেশের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সম্পর্কে এ দিন তাঁর কাছে জানতে চাওয়া হয়। যদিও রুজিরা ওই ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে দাবি করেন। পাল্টা সেই অ্যাকাউন্টের বিস্তারিত তথ্য পেশ করা হলেও সেগুলি নিয়ে মুখ খুলতে রাজি হননি রুজিরা। এমনটাই খবর সূত্রের। এই অ্যাকাউন্ট সম্পর্কে আরও নিশ্চিত হতে ও বিস্তারিত তথ্য পেতেই সিবিআই ওই ব্যাঙ্ককে নোটিস দিতে চলেছে বলে জানা যাচ্ছে সূত্র মারফত।

আপাতত একটি প্রশ্ন ভাবাচ্ছে সিবিআই-কে। তার হল- কার নথিপত্র ব্যবহার করে খোলা হয়েছিল ওই ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট? সূত্রের খবর, সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্ক থেকে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া গেলে তা সঙ্গে নিয়ে ফের এক বার রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখোমুখি হতে পারেন তদন্তকারীরা।

জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হয়ে রুজিরা এ দিন বেশিরভাগ প্রশ্নের উত্তরই এড়িয়ে গিয়েছেন বলে খবর সূত্রের। সিবিআই-র প্রশ্ন মালার মধ্যে ছিল পাসপোর্ট এবং নাগরিকত্ব সংক্রান্ত বিষয়ও। তাঁর নানা ব্যাঙ্ক বিদেশি অ্যাকাউন্টের ব্যাপারেও প্রশ্ন করা হয়। তবে বেশিরভাগ প্রশ্নের উত্তর সন্তোষজনক ছিল না বলেই খবর সিবিআই সূত্রে। প্রায় দেড় ঘণ্টা জেরার পর দুপুর ১টা ১০ মিনিট নাগাদ ‘শান্তিনিকেতন’ থেকে বেরিয়ে আসেন গোয়েন্দারা।

আরও পড়ুন: পামেলা কাণ্ডে গ্রেফতার বিজেপি নেতা রাকেশ সিং

রুজিরার বাড়ি থেকে বেরিয়ে দুপুর ২টো নাগাদ নিজাম প্যালেসে কর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন সিবিআই টিমের সদস্যরা। রুজিরার বয়ান নিয়ে আলোচনা হয়। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সূত্রে খবর, তাইল্যান্ডের ব্যাঙ্কের সংশ্লিষ্ট অ্যাকাউন্ট তাঁর নামে নয় বলে দাবি করেন রুজিরা। কাগজ দেখালে তা চিনতেও অস্বীকার করেন। ফলে এবার তাইল্যান্ডের সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্কে নোটিস দিতে চলেছে সিবিআই। এ দিন রুজিরার বয়ান রেকর্ড করার সময় ভিডিওগ্রাফি করা হয়। তাঁর বোন মেনকা গম্ভীর জিজ্ঞাসাবাদের সময় যে কথা বলেছেন তার সঙ্গে রুজিরার বয়ান মিলিয়ে দেখা হচ্ছে। সিবিআই সূত্রে খবর, দরকার হলে আবার তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে।

আরও পড়ুন: নন্দীগ্রামের আসন আব্বাসকে ছেড়ে দিল বামেরা, ‘আত্মত্যাগ’ জোটের স্বার্থে