‘চার-পাঁচটা বাইকে চেপে গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা’, রাতেও উত্তপ্ত দত্তাবাদ

'ওরা তৃণমূলেরই লোক', বলছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। অন্য দিকে, তৃণমূলের (TMC) দাবি, দুষ্কৃতীরা আসলে সব্যসাচীর (Sabyasachi Dutta) লোক।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 8:27 AM, 19 Apr 2021
'চার-পাঁচটা বাইকে চেপে গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা', রাতেও উত্তপ্ত দত্তাবাদ

সল্টলেক: ভোট পরবর্তী হিংসা অব্যাহত বিধান নগরে। সকালের পর রাতেও ফের উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকা। তৃণমূল (TMC) আশ্রিত দুষ্কৃতীরা বাইকে চেপে এসে গুলি চালিয়েছে বলে অভিযোগে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। তাদের দাবি, তৃণমূলের লোকজনই আক্রান্ত হয়েছে। রাত পেরোলেই এখনও অব্যহত রাজনৈতিক চাপান-উতোর।

রবিবার সকাল থেকে দফায় দফায় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে বিধান নগর দক্ষিণ থানা এলাকার দত্তাবাদ। বিজেপি কর্মীদের অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। অপরদিকে তৃণমূল কর্মীদেরকেও মারধরে অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, রবিবার রাত আটটা নাগাদ দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিজেপি কর্মীদের লক্ষ্য করে গুলি চালায় এক দল দুষ্কৃতী। দুষ্কৃতীদের ফেলে যাওয়া বাইক রাতে আটক করে পুলিশ। যদিও গুলি চালানোর অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিধান নগর দক্ষিণ থানার পুলিশ।

এলাকায় উত্তেজনা থাকায় জায়গায় জায়গায় বসানো হয়েছে পুলিশ পিকেট। এলাকায় টহলদারী চালাচ্ছে পুলিশ।

সুনীতা মণ্ডল নামে স্থানীয় এক মহিলা জানান, রাত ৮ টা নাগাদ এলাকার মহিলারা যখন বসেছিলেন, তখন চার পাঁচটি বাইক নিয়ে এসে ফায়ারিং করে দুষ্কৃতীরা। যারা এসেছিল তারা তৃণমূলের লোক বলেও অভিযোগ জানান তিনি। এই ঘটনায় এলাকার মহিলারা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

আরও পড়ুন: West Bengal Assembly Election 2021 Live: আজ ফের রাজ্যে শাহ, থাকবেন পরপর তিন সভায়

এ দিকে এই ঘটনায় পাল্টা অভিযোগ জানিয়েছেন তৃণমূল নেতা তথা তৃণমূলের নিধানসভা নির্বাচনের প্রার্থী সুজিত বসু। দুষ্কৃতীরা তাঁর একসময়ের সহকর্মী তথা বিজেপি প্রার্থী সব্যসাচীর অনুগামী বলে জানিয়েছেন তিনি। সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে সুজিত বসু বলেন, ‘যাদের বাড়িতে ভাঙচুর হয়েছে তারা অভিযোগ জানিয়েছে। সব্যসাচীর অনুগামীদের বিরুদ্ধে অপরাধের মামলা আছে। তারাই এই ভাবে ভাঙচুর চালিয়েছে।’ প্রশাসনের কাছে তাঁর দাবি, তৃণমূল সমর্থকদের মারধর করা হয়েছে। পুলিশ প্রশাসনের সঙ্গে নিজে কথা বলেছেন তিনি। তাঁর দাবি দত্তাবাদের সব মানুষ যেন শান্তিতে বসবাস করতে পারে।