আজ তৃণমূল ভবনে মহা বৈঠকে নজরে পাঁচ, বড়সড় রদ বদলের ইঙ্গিত

শনিবার দুপুর ২টোয় তপসিয়ায় তৃণমূল ভবনে (Trinamool Bhawan) প্রথম বৈঠকটি হবে। ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকের পর বেলা ৩টে থেকে ভার্চুয়াল বৈঠক হওয়ার কথা।

আজ তৃণমূল ভবনে মহা বৈঠকে নজরে পাঁচ, বড়সড় রদ বদলের ইঙ্গিত
ফাইল ছবি। (পিটিআই)
সায়নী জোয়ারদার

|

Jun 05, 2021 | 6:46 AM

কলকাতা: এবার টার্গেট লোকসভা ভোট (Loksabha Election 2024)। ঘর গোছাচ্ছে তৃণমূল। এরই মধ্যে শনিবারের বার বেলায় মেগা বৈঠক তৃণমূল ভবনে। যেখানে উপস্থিত থাকবেন স্বয়ং দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দু’ দফায় এদিন দু’টি বৈঠক করবেন তিনি। ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক হবে ভবনেই। যেখানে সশরীরে থাকবেন তৃণমূলের শীর্ষ নেতারা। এরপরই ভার্চুয়ালি জেলা সভাপতি, জেলার বিধায়ক, সাংসদদের সঙ্গে কথা বলবেন নেত্রী। সূত্রের খবর, শনিবারের বৈঠকে একাধিক রদবদল হতে পারে তৃণমূলের অন্দরে। ‘এক ব্যক্তি এক পদ’কে সামনে রেখে পদ খোয়াতে পারেন একাধিক বিধায়ক, যাঁরা আবার জেলা সভাপতিও। পাশাপাশি সংগঠনে গুরু দায়িত্ব দেওয়া হতে পারে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

শনিবার দুপুর ২টোয় তপসিয়ায় তৃণমূল ভবনে প্রথম বৈঠকটি হবে। উপস্থিত থাকার কথা সুব্রত বক্সি, পার্থ চট্টোপাধ্যায়, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়দের। ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকের পর বেলা ৩টে থেকে ভার্চুয়াল বৈঠক হওয়ার কথা। সূত্রের খবর, একুশে বিপুল জয়ের পর খোলনলচে বদলাতে বিশেষ আগ্রহী তৃণমূল। সংগঠনের পদাধিকারী হলে কাজের বাইরে আর কোনও কিছুকেই আমল দেওয়া যাবে না, সূত্রের খবর শনিবারের বৈঠকে এমনই বার্তা দিতে পারেন তৃণমূল নেত্রী। একই সঙ্গে শোনা যাচ্ছে, বিধায়ক অথচ জেলা সভাপতি পদেও আসীন, এমন নেতাদের একটি পদে রেখেই আরও ভাল করে কাজ করাতে চান সুপ্রিমো। উল্টো দিক থেকে আবার, দলের কাজে আরও বেশি করে বিভিন্ন নেতাকে যুক্তও করতে চান তিনি। সেই লক্ষ্যে এবার ‘এক ব্যক্তি এক পদ’ তত্ত্বে চলতে পারেন মমতা।

সূত্রের খবর, এবার দলের সাংগঠনিক কাজে আরও গুরুত্ব বাড়তে পারে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের। শুধু যুব সংগঠনের নেতা কিংবা সাংসদ হিসাবেই নন, একজন দক্ষ সাংগঠনিক নেতা হিসাবেও তুলে ধরা হতে পারে তাঁকে। কারণ, ২০২১ সালের ভোটে তিনি প্রমাণ দিয়েছেন, দলনেত্রীর পরিবারের সদস্য হিসাবে নয়, রাজনীতির স্বকীয়তাতেও ধারে ভারে তিনি মোটেই কম নন।

যে পাঁচটি বিষয় নিয়ে আলোচনা হতে পারে শনিবার-

* তৃণমূল সূত্রে খবর, দলে এক ব্যক্তি এক পদ নীতি নিতে চলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বহু মন্ত্রী একাধিক জেলায় দলের সভাপতি পদেও রয়েছেন। জল্পনা, অনেক হেভিওয়েট মন্ত্রী দলীয় জেলা সভাপতির পদ খোয়াতে পারেন।

একুশের ভোটে তৃণমূলের জন্য ম্যাজিক করেছেন প্রশান্ত কিশোর। ফল প্রকাশের পরই দায়িত্ব ছাড়ার কথা ঘোষণা করেছেন তৃণমূলের এই ভোট কুশলী। তবে তৃণমূলের অন্দরের খবর, প্রশান্ত কিশোরকে এখনই ছাড়তে নারাজ তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্ব। সম্ভবত কাজ চালিয়ে যাবেন তিনি। এদিনের বৈঠকেও থাকার কথা তাঁর।

* একুশের মরণ বাঁচন ভোটে বিপুল জয়। সে জয়ের প্রথম কারিগর নিঃসন্দেহে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে এরপরই যদি কারও নাম করতে হয় তিনি অবশ্যই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। দল থেকে রাজনৈতিক মহল, একুশের জয়ের একটা বড় অংশের কৃতিত্ব দিচ্ছেন তাঁকেই। তাতেই প্রশ্ন উঠছে, দলীয় সংগঠনে কি আরও দীর্ঘ হবে অভিষেকের ছায়া? তৃণমূলের অন্দরের খবর, এদিনের বৈঠকে উঠে আসতে পারে সে প্রসঙ্গ।

ভোটের ঠিক আগে ঘাসফুল ছেড়ে পদ্মে যোগ দিয়েছিলেন তৃণমূলের একাধিক নেতা-কর্মী। বিজেপিতে গিয়েছিলেন তাঁরা। গেরুয়া শিবিরের ভরাডুবির পর দলবদলুদের অনেকেই হাতে পায়ে ধরে পুরনো দলে ফিরতে চাইছেন। তালিকায় রয়েছেন সোনালী গুহ, সরলা মুর্মু, দীপেন্দু বিশ্বাস, অমল আচার্যরা। জল্পনা শুরু হয়েছে শুভ্রাংশু রায়কে নিয়েও। দলবদলুদের নিয়ে শনিবারের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হবে কি? সেদিকও নজর থাকছে।

* দিন কয়েকের মধ্যে ছয় বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচন। সেই সব আসনে কারা লড়বেন, শনিবারের বৈঠকে তার ইঙ্গিত মিলতে পারে। একইসঙ্গে দলের যুব ও মহিলা-সহ বাকি শাখা সংগঠনগুলি নিয়েও রিভিউ করতে পারেন দলনেত্রী।

আরও পড়ুন: ইয়াসের ধ্বংসলীলা স্বচক্ষে দেখতে রাজ্যে আসছে কেন্দ্রীয় দল, ‘গেস্ট’-এর মর্যাদা দেবে নবান্ন

তবে দলের ফোকাস কিন্তু ২০২৪। খুব স্বাভাবিক ভাবেই আগামী লোকসভা ভোটকে সামনে রেখে দলকে ঢেলে সাজাতে চাইছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তারই একটা রূপরেখা মিলতে পারে শনিবারের সাংগঠনিক বৈঠকে।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla