Carrot Juice: শীতের সকালে নিয়মিত পান করুন গাজরের রস! উপকার মিলবে হাতে-নাতে

মরসুমি সবজির তালিকায় সবার ওপরে নাম রয়েছে গাজরের। যেমন সুস্বাদু এই সবজি, তেমনই এর স্বাস্থ্য উপকারিতা। শীতে প্রতিদিন খালি পেটে গাজরের পান করুন। কিন্তু তার আগে জেনে নিন এই গাজরের রসের স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে...

Dec 05, 2021 | 8:08 AM
TV9 Bangla Digital

| Edited By: megha

Dec 05, 2021 | 8:08 AM

হার্টের স্বাস্থ্য বজায় রাখে: গাজরের মধ্যে উপস্থিত পেক্টিন নামক ফাইবার কোলেস্টেরলের মাত্রা হ্রাস করতে সহায়ক। তার সঙ্গে শরীরে জোগান দেয় অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, খালি পেটে গাজরের জ্যুস পান করলে কার্ডিওভাসকুলার স্বাস্থ্য ভাল থাকে।

হার্টের স্বাস্থ্য বজায় রাখে: গাজরের মধ্যে উপস্থিত পেক্টিন নামক ফাইবার কোলেস্টেরলের মাত্রা হ্রাস করতে সহায়ক। তার সঙ্গে শরীরে জোগান দেয় অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, খালি পেটে গাজরের জ্যুস পান করলে কার্ডিওভাসকুলার স্বাস্থ্য ভাল থাকে।

1 / 6
চোখের স্বাস্থ্য বজায় রাখে: শরীরে ভিটামিন এ এর অভাব থাকলে চোখের সমস্যা হয়। গাজরের মধ্যে থাকা ভিটামিন এ শরীরে সেই চাহিদাকে পূরণ করে এবং চোখের স্বাস্থ্যকে উন্নত করে।

চোখের স্বাস্থ্য বজায় রাখে: শরীরে ভিটামিন এ এর অভাব থাকলে চোখের সমস্যা হয়। গাজরের মধ্যে থাকা ভিটামিন এ শরীরে সেই চাহিদাকে পূরণ করে এবং চোখের স্বাস্থ্যকে উন্নত করে।

2 / 6
ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে সক্ষম: গাজরের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ফাইটোকেমিক্যালস রয়েছে, যা এক প্রকার অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এছাড়াও রয়েছে বিটা ক্যারোটিন ও বিভিন্ন ধরনের ক্যারোটিনয়েড। এই সব উপাদান গুলি শরীরে ক্যান্সারের কোষকে বৃদ্ধি হওয়া থেকে প্রতিরোধ করে এবং পেট, কোলন, প্রস্টেট, ফুসফুস ও ব্রেস্ট ক্যান্সারের ঝুঁকি প্রতিরোধ করে।

ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে সক্ষম: গাজরের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ফাইটোকেমিক্যালস রয়েছে, যা এক প্রকার অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এছাড়াও রয়েছে বিটা ক্যারোটিন ও বিভিন্ন ধরনের ক্যারোটিনয়েড। এই সব উপাদান গুলি শরীরে ক্যান্সারের কোষকে বৃদ্ধি হওয়া থেকে প্রতিরোধ করে এবং পেট, কোলন, প্রস্টেট, ফুসফুস ও ব্রেস্ট ক্যান্সারের ঝুঁকি প্রতিরোধ করে।

3 / 6
শরীরে রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বৃদ্ধি করে: কাঁচা গাজরের জ্যুস শরীরের একাধিক রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তোলে। এর মধ্যে থাকা ভিটামিন এ নানান ধরনের সংক্রমণ থেকে শরীরকে প্রতিরোধ করে। তার সঙ্গে ভিটামিন সি যা শরীরে কোলাজেনের মাত্রা বৃদ্ধি করে, যা শরীর এবং বিশেষত ত্বকের স্বাস্থ্যকে উন্নত করে। এই কোলাজেন বার্ধক্যকে প্রতিরোধ করে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে সহায়ক।

শরীরে রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বৃদ্ধি করে: কাঁচা গাজরের জ্যুস শরীরের একাধিক রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তোলে। এর মধ্যে থাকা ভিটামিন এ নানান ধরনের সংক্রমণ থেকে শরীরকে প্রতিরোধ করে। তার সঙ্গে ভিটামিন সি যা শরীরে কোলাজেনের মাত্রা বৃদ্ধি করে, যা শরীর এবং বিশেষত ত্বকের স্বাস্থ্যকে উন্নত করে। এই কোলাজেন বার্ধক্যকে প্রতিরোধ করে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে সহায়ক।

4 / 6
শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থকে দূর করে: গাজরের মধ্যে থাকা গ্লুটাথিওন নামক অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট লিভারের সমস্যাকে প্রতিরোধ করে এবং এর ফলে লিভার সঠিক ভাবে তার কার্যকলাপ সম্পাদন করতে পারে। তাছাড়াও গাজরের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ফ্ল্যাভোনয়েড ও বিটা ক্যারোটিন রয়েছে যা লিভারের কার্যকলাপে সহায়তা করে এবং শরীরকে বিষাক্ত পদার্থ থেকে মুক্ত রাখে।

শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থকে দূর করে: গাজরের মধ্যে থাকা গ্লুটাথিওন নামক অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট লিভারের সমস্যাকে প্রতিরোধ করে এবং এর ফলে লিভার সঠিক ভাবে তার কার্যকলাপ সম্পাদন করতে পারে। তাছাড়াও গাজরের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ফ্ল্যাভোনয়েড ও বিটা ক্যারোটিন রয়েছে যা লিভারের কার্যকলাপে সহায়তা করে এবং শরীরকে বিষাক্ত পদার্থ থেকে মুক্ত রাখে।

5 / 6
শরীরকে হাইড্রেট রাখতে সাহায্য করে: শরীর যদি ডিহাইড্রেট হয়ে যায় তাহলে একাধিক সমস্যা দেখা দেয়। তাজা গাজরে ৮৮% জল থাকে। তাই জলের পাশাপাশি এই ধরনের জ্যুসকেও খাদ্য তালিকায় রাখা খুব জরুরি। এমনকি লিউকোমিয়া রোগের ওপরও ইতিবাচক প্রভাব ফেলে গাজরের রস।

শরীরকে হাইড্রেট রাখতে সাহায্য করে: শরীর যদি ডিহাইড্রেট হয়ে যায় তাহলে একাধিক সমস্যা দেখা দেয়। তাজা গাজরে ৮৮% জল থাকে। তাই জলের পাশাপাশি এই ধরনের জ্যুসকেও খাদ্য তালিকায় রাখা খুব জরুরি। এমনকি লিউকোমিয়া রোগের ওপরও ইতিবাচক প্রভাব ফেলে গাজরের রস।

6 / 6

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla