CWG 2022 day 7 Round-Up: সুধীরের সোনা, শ্রীশঙ্করের রুপো; কমনওয়েলথের সপ্তমদিনের হালহকিকত

Commonwealth Games 2022: বার্মিংহ্যাম কমনওয়েলথ গেমসে এখনও পর্যন্ত পদকহীন একটিও দিন কাটেনি ভারতের। সপ্তমদিনেও এল দুটি পদক।

CWG 2022 day 7 Round-Up: সুধীরের সোনা, শ্রীশঙ্করের রুপো; কমনওয়েলথের সপ্তমদিনের হালহকিকত
Image Credit source: Twitter and PTI
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Tithimala Maji

Aug 05, 2022 | 10:00 AM

চলতি বার্মিংহ্যাম কমনওয়েলথ গেমসে দারুণ পারফরম্যান্স ভারতীয় অ্যাথলিটদের। নাম না জানা খেলা, অচেনা অ্যাথলিটরা চমকে দিচ্ছেন। এখনও পর্যন্ত পদকহীন একটিও দিন কাটেনি। সপ্তমদিনেও এল দুটি পদক। প্যারা পাওয়ারলিফটিংয়ে ইতিহাস গড়ে সোনা জিতেছেন সুধীর। লং জাম্পে রুপো জিতে ইতিহাসে ঢুকে পড়েছেন মুরালি শ্রীশঙ্কর। এছাড়া বক্সিং, ব্যাডমিন্টন, টেবল টেনিস মিলিয়ে দিনটা ফলপ্রসূ। এক নজরে দেখে নিন বার্মিংহ্যাম ভারতের সপ্তমদিনের হালহকিকত।

অ্যাথলেটিক্স

মহিলাদের ২০০ মিটার – মহিলাদের ২০০ মিটারের হিট- ২ থেকে ২৩.৪২ সেকেন্ডে দৌড় শেষ করে সেমিফাইনালে পৌঁছে গিয়েছেন অসমের মেয়ে হিমা দাস। হিট-২ এর শীর্ষে থেকে সেমির যোগ্যতা অর্জন করেছেন ধিং এক্সপ্রেস।

মহিলাদের হ্যামার থ্রো – গ্রুপ এ-তে নেমেছিলেন ভারতের সরিতা সিং ও মঞ্জু বালা। মহিলাদের হ্যামার থ্রোয়ের কোয়ালিফাইং রাউন্ডে মঞ্জু বালা প্রথম বারের প্রয়াসে ৫৯.৬৮ মিটার থ্রো করেন। তাঁর বাকি ২টি থ্রো বাতিল হয়ে যায়। কিন্তু প্রথম থ্রোয়ের পারফরম্যান্সের সুবাদে ফাইনালের যোগ্যতা অর্জন করে নিয়েছেন মঞ্জু বালা। তবে মঞ্জু পারলেও ভারতের অপর অ্যাথলিট সরিতা সিং ফাইনালের যোগ্যতা অর্জন করতে পারেননি।

ব্যাডমিন্টন

প্রি কোয়ার্টারে পৌঁছে গেলেন পিভি সিন্ধু ও কিদাম্বি শ্রীকান্ত। মলদ্বীপের শাটলার ফাতিমাত নাবাহর বিরুদ্ধে রাউন্ড অব ৩২-র ম্যাচে স্ট্রেট গেমে জিতলেন সিন্ধু। প্রথম গেমে দাপটের সঙ্গে ২১-৪ ব্যবধানে জেতার পর, দ্বিতীয় গেমটাও যায় সিন্ধু পক্ষে। দ্বিতীয় গেমেও ২১-১১ ব্যবধানে জেতেন সিন্ধু। পাশাপাশি পুরুষদের সিঙ্গলসের রাউন্ড অব-৩২ এর ম্যাচে দাপট দেখিয়ে স্ট্রেট গেমে জেতেন কিদাম্বি শ্রীকান্ত। ম্যাচের ফল ২১-৯, ২১-৯ শ্রীকান্তের পক্ষে।

রাউন্ড অব ৩২-এর ম্যাচে ইংল্যান্ডের মিক্সড ডাবলস জুটি হেমিং ক্যালাম ও পাগ জেসিকার কাছ ভারতের মিক্সড ডাবলস জুটি বি সুমিত রেড্ডি ও অশ্বিনী পোনাপ্পা হারল স্ট্রেট গেমে। ম্যাচের ফল ২১-১৮, ২১-১৬ ইংল্যান্ডের শাটলারদের পক্ষে।

ব্যাডমিন্টন সিঙ্গলসে শেষ ষোলোয় ভারতের তরুণ শাটলার লক্ষ্য সেন। সেইন্ট হেলেনার ভার্নান স্মিদের বিরুদ্ধে স্ট্রেট গেমে জিতলেন লক্ষ্য। তাঁর পক্ষে ম্যাচের ফল ২১-৪, ২১-৫।

প্রি কোয়ার্টারে আকর্ষি কাশ্যপ। পাকিস্তানের প্রতিপক্ষ শাহজাদ মাহুরকে দ্বিতীয় গেমে চোট পেয়ে ম্যাচ ছাড়েন। ফলে বিনা লড়াইয়ে পরের রাউন্ডে চলে গেলেন আকর্ষি।

বক্সিং

বক্সিং থেকে তিনটি পদক নিশ্চিত হয়েছে ভারতের। পুরুষদের ৪৮-৫১ কেজি ফ্লাইওয়েটের কোয়ার্টার ফাইনালে স্কটল্যান্ডের লেনন মুলিগানকে ৫-০ ব্যবধানে হারান অমিত পাঙ্ঘাল। তাঁর পাশাপাশি কমনওয়েলথের সেমিফাইনালে পৌঁছে গিয়েছেন জেসমিন ল্যাম্বোরিয়া ও সাগর অহলত। মহিলাদের ৬০ কেজির কোয়ার্টার ফাইনালে স্প্লিট ডিসিশনে ৪-১ জিতলেন জেসমিন। ৯২+ সুপার হেভিওয়েটের রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে সেচিলিসের কেডি অ্যাগনেসকে ৫-০ হারিয়ে সেমিফাইনালে সাগর অহলত।

স্কোয়াশ

স্কোয়াশে মহিলাদের ডাবলসের রাউন্ড অব-৩২ এর ম্যাচে, শ্রীলঙ্কার মহিলাদের ডাবলস জুটি ইয়েহেনি কুরুপ্পু ও চান্থিমা সিনালিকে হারাল ভারতের মহিলাদের ডাবলস জুটি সুনয়না সারা কুরুভিল্লা ও অনাহত সিং। ম্যাচের ফল ১১-৯, ১১-৯ অনাহতদের পক্ষে।

স্কোয়াশে মিক্সড ডাবলসে শেষ ১৬-র ম্যাচে ভারতের মিক্সড ডাবলস জুটি দীপিকা পাল্লিকাল-সৌরভ ঘোষাল জিতল। ওয়েলসের এমিলি হোয়াইটলক-পিটার ক্রিডকে দীপিকা-সৌরভ হারাল ১১-৮, ১১-৪ ব্য়বধানে।

স্কোয়াশে মিক্সড ডাবলসের শেষ ১৬-তে হারের মুখ দেখল ভারতের মিক্সড ডাবলস জুটি, জোৎস্না চিনাপ্পা-হরজিন্দর পাল সিং। অস্ট্রেলিয়ার ডোনা লোবান- ক্যামেরন পিলের কাছে ১১-৮, ১১-৯ ব্যবধানে হারল জোৎস্নারা।

মিক্সড ডাবলসের কোয়ার্টার ফাইনালে দীপিকা পাল্লিকাল কার্তিক এবং সৌরভ ঘোষাল। 11-8, 11-4 গেমে ওয়েলস জুটি এমিলি হুইটলক এবং পাটের ক্রিডকে হারিয়ে দিল ভারতীয় জুটি। গোল্ড কোস্ট কমনওয়েলথ গেমসে দীপিকা-সৌরভ জুটি পদক জিতেছিল। স্কোয়াশে সৌরভের সিঙ্গলস পদকের পর এই খেলার ফের আরও একটি পদকের আশা।

হকি

আজকের ম্যাচটা জিতলেই সেমিফাইনালে পৌঁছে যেতেন মনপ্রীতরা। ওয়েলসের বিরুদ্ধে পুল-বি এর ম্যাচে ৪-১ গোলে জিতল ভারত। হ্যাটট্রিক হরমনপ্রীতের। ভারতের হলে অপর একটি গোল গুরজন্তের। একইসঙ্গে সেমিফাইনালে পৌঁছে গেল ভারত।

টেবল টেনিস

প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায় নিলেন ভারতের রীথ টেনিসন ও সানিল শেট্টি মিক্সড ডাবলস জুটি। রাউন্ড অব-৬৪ এর ম্যাচে মালয়েশিয়ার ওং কী শেন ও তি আই শিন জুটির কাছে হারল রীথ-সানিল। ম্যাচের ফল ১১-৬, ১২-১০, ১১-১৩, ৮-১১, ১১-৮ মালয়েশিয়ান মিক্সড ডাবলস জুটির পক্ষে।

মিক্সড ডাবলসের প্রি কোয়ার্টার ফাইনালে সাথিয়ান গণেশখরন এবং মনিকা বাত্রা জুটি। সেকেন্ড রাউন্ডের ম্যাচ সিসিলিসের মিক ক্রেয়া এবং লউরা সিনোনের বিরুদ্ধে ৩-০ ব্যবধানে জিতলেন তাঁরা। ম্যাচের ফল ১১-১, ১১-৩। প্রথম রাউন্ডে বাই পেয়েছিল এই জুটি। মিক্সড ডাবলসের আরও একটি ম্যাচর প্রি কোয়ার্টার ফাইনালে শরথ কমল এবং সৃজা আকুলা জুটি। প্রথম রাউন্ডে বাই পাওয়ার পর দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচ ৩-০তে জিতলেন শরথরা। নর্দান আয়ারল্যান্ডের আওয়েন ক্যাথকার্ট ও সোফি আর্লিকে ১১-৭, ১১-৮, ১১-৯ গেমে হারিয়ে দেন।

টেবল টেনিসে মেয়েদের সিঙ্গলসের রাউন্ড অব ৩২-এর ম্যাচে ভারতের সৃজা আকুলা। প্রতিপক্ষ মালয়েশিয়ার কারান লেইনকে হারিয়ে শেষ ষোলোয় পা রাখলেন সৃজা। ১২-১০, ১২-১০, ৪-১১, ১১-৮ গেমে হারিয়ে দেন মালয়েশিয়ান প্রতিপক্ষকে। অন্য়দিকে স্থানীয় প্রতিযোগী শার্লট ব্র্যাডসলেকে হারিয়ে মেয়েদের সিঙ্গলসের শেষ ষোলোয় পা রাখলেন রীথ টেনিসন। ম্যাচের ফল ১১-৮, ১০-১২, ১১-৬, ১২-১০, ১১-৩। মেয়েদের সিঙ্গলসের রাউন্ডস অব ৩২-এর ম্যাচ একতরফা জিতলেন ভারতের মণিকা বাত্রা। প্রতিপক্ষ ছিলেন কানাডার চিং নাম ফু। মণিকার পক্ষে ম্যাচের ফল ১১-৫, ১১-২, ১১-৭, ১১-৬।

প্যারা পাওয়ারলিফটিং

ছেলেদের লাইটওয়েট ফাইনালে ভারতের পরমজিৎ কুমার তিনটি প্রচেষ্টাতেই ১৬৫ কেজির ওজন তুলতে ব্যর্থ। ইভেন্ট চতুর্থ স্থানে শেষ করলেন তিনি। আশা জাগিয়েও এল না পদক। ভারতের সাকিনা খাতুন এবং মনপ্রীত সিং শেষ করলেন যথাক্রমে চতুর্থ এবং পঞ্চম স্থানে। বসিরহাটের মেয়ে সাকিনা গ্লাসগো কমনওয়েলথ গেমসে পদক জিতেছিলেন। যদিও কর্নাটকের হয়ে খেলেন তিনি। মেয়েদের লাইটওয়েট ফাইনালে প্রথম প্রচেষ্টায় ৯০ কেজি ওজন তোলেন বসিরহাটের মেয়ে সাকিনা খাতুন। তাঁর স্কোর দাঁড়ায় ৮৭.৫ পয়েন্ট। তৃতীয় প্রচেষ্টায় ৯৩ কেজির লক্ষ্য পূরণ হয়নি সাকিনার। ব্যক্তিগত সেরা ৮৭.৫ স্কোর নিয়ে চতুর্থ স্থানে ইভেন্ট শেষ করেন।

প্যারা পাওয়ার লিফটিংয়ে সোনা

বার্মিংহ্যাম প্যারা গেমসে পদকের খাতা খুলল ভারত। এশিয়ান প্যারা গেমসের ব্রোঞ্জ পদক পাওয়া সুধীর জিতলেন সোনার পদক। কমনওয়েলথ গেমসে প্যারা পাওয়ার লিফটিংয়ে প্রথম সোনা ভারতের। সৌজন্যে সুধীর।

লং জাম্পে ইতিহাস

লং জাম্পে ঐতিহাসিক রুপো জিতল ভারত। মুরলি শ্রীশঙ্কর রুপো জিতলেন। হাই জাম্পে ব্রোঞ্জ পেয়েছিলেন তেজস্বীন শঙ্কর। এবারের গেমসে ভারতের ১৯ তম পদক। সেরা পাঁচে শেষ করলেন আরেক ভারতীয় মহম্মদ আনিস ইয়াহিয়া। ১৯৭৮ সালের পর এই প্রথম পুরুষদের লং জাম্পে পদক এল ভারতে। ৭৮’র গেমসে ব্রোঞ্জ পেয়েছিলেন সুরেশ বাবু। পুরুষদের লং জাম্পে কমনওয়েলথ গেমসে প্রথম রুপো মুরলির।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla