TOKYO OLYMPICS 2020 : অভব্য আচরণ, দীপক পুনিয়ার কোচকে ‘গেট আউট’

ভারতীয় অলিম্পিক সংস্থার পক্ষ থেকে সেক্রেটারি জেনারেল রাজীব মেহতা জানিয়েছেন, "যত তাড়াতাড়ি ভারতের বিমান পাব, তত তাড়াতাড়ি মুরাদকে দেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করছি।"

TOKYO OLYMPICS 2020 : অভব্য আচরণ, দীপক পুনিয়ার কোচকে 'গেট আউট'
বাঁদিকে সেই বিতর্কিত কোচ। ডানদিকে হতাশ পুনিয়া

টোকিওঃ একেই হারের জ্বালা। তার উপর এবার কোচের অভব্য আচরণ। জোড়া জ্বালায় অতিষ্ট ভারতীয় কুস্তিগীর দীপক পুনিয়া। গতকাল ব্রোঞ্জ পদক ম্যাচ চলাকালীন হঠাৎই রেফারির সঙ্গে অভব্য আচরণ করেন দীপকের বিদেশি কোচ। সঙ্গে সঙ্গে অলিম্পিক সংস্থার কর্তারা তাঁকে জানিয়ে দেন শাস্তিস্বরূপ তাঁকে এক্ষুণি ছেড়ে দিতে অলিম্পিক গেমস ভিলেজ।

বেলারুশের প্রাক্তন কুস্তিগীর মুরাদ গায়েদারোভ বর্তমানে দীপক পুনিয়ার দলের সহকারী কোচ। ২০১৮ সালে কুস্তিতে জুনিয়র বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর গায়েদেরোভকে দায়িত্ব দেওয়া হয় দীপককে কোচিং করানোর জন্য। আর ব্রোঞ্জ পদকের লড়াইয়ের সময় রেফারির সিদ্ধান্তেঅসন্তুষ্ট হয়ে ম্যাচের পর রেফারির দিকে তেড়ে যান গায়েদেরোভ। সূত্রের খবর, সেই সময় উপস্থিত ছিলেন বেশ কয়েকজন অলিম্পিক সংস্থার কর্তারা। সঙ্গে সঙ্গে দীপকের সহকারী কোচকে নির্দেশ দেন গেমস ভিলেজ থকে বেরিয়ে যেতে। গোটা ঘটনায় বিরক্ত ভারতীয় অলিম্পিক সংস্থা। ভারতীয় অলিম্পিক সংস্থার পক্ষ থেকে সেক্রেটারি জেনারেল রাজীব মেহতা জানিয়েছেন, “যত তাড়াতাড়ি ভারতের বিমান পাব, তত তাড়াতাড়ি মুরাদকে দেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করছি।”

শুধু কোচ হিসেবেই নয়, খেলোয়াড় জীবনে এরকম ঘটনাও ঘটিয়েছেন মুরাদ।২০০৮ অলিম্পিকে রুপোজয়ী মুরাদ ২০০৪ সালের অলিম্পিকে প্রতিপক্ষকে নিগ্রহ করার জন্য কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে তাঁকে শাস্তিস্বরূপ সাসপেন্ড করা হয়।

অলিম্পিকের আরও খবরের জন্য ক্লিক করুনঃ টোকিও অলিম্পিক ২০২০

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla