ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে দ্বিতীয় মৃত্যু বাংলায়, মারা গেলেন বীরভূমের করোনা আক্রান্ত বৃদ্ধা

রামপুরহাট মেডিক্য়াল কলেজ হাসপাতালের কোভিড ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন ছিলেন জামনাথুরা বিবি নামে ৮৬ বছরের ওই বৃদ্ধা। কিছুদিন আগে করোনা (Corona) আক্রান্ত হন। তারপর সুস্থও হন তিনি। কিন্তু, কয়েকদিন আগে ওই বৃদ্ধার মুখে, চোখের তলায় কালো দাগ পড়তে শুরু করে।

ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে দ্বিতীয় মৃত্যু বাংলায়, মারা গেলেন বীরভূমের করোনা আক্রান্ত বৃদ্ধা
প্রতীকী ছবি

বীরভূম: রাজ্যে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস (Black Fungus) বা মিউকরমাইক্রোসিসের বলি আরও এক। শনিবার সন্ধেয় বীরভূমে (Birbhum) করোনা আক্রান্ত বৃদ্ধার মৃত্যু হল রামপুরহাট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। এর আগে কলকাতার শম্ভুনাথ পণ্ডিত হাসপাতালে মিউকরমাইকোসিসে মৃত্যু হয় এক মহিলার। একই ছত্রাক হানায় মারা গেলেন আরও এক মহিলা। করোনা আবহে এই মহামারি বাড়তে থাকায় চিন্তায় চিকিৎসক মহল।

জানা গিয়েছে, রামপুরহাট মেডিক্য়াল কলেজ হাসপাতালের কোভিড ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন ছিলেন জামনাথুরা বিবি নামে ৮৬ বছরের ওই বৃদ্ধা। কিছুদিন আগে করোনা (Corona) আক্রান্ত হন। তারপর সুস্থও হন তিনি। কিন্তু, কয়েকদিন আগে ওই বৃদ্ধার মুখে, চোখের তলায় কালো দাগ পড়তে শুরু করে। অবস্থা দেখে সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে আনা হয় হাসপাতালে। হাসপাতালের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগে পরীক্ষা করে ওই মহিলার দেহে মিউকরমাইকোসিসের (Mucormycosis) জীবাণু ধরা পড়ে। বৃদ্ধার চিকিৎসার জন্য জেলা স্বাস্থ্য ভবনে দ্রুত যোগাযোগ করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

এদিকে বৃদ্ধার সুগার অনেক বেশি। রয়েছে মূত্রাশয়ে সংক্রমণও। ফলে চিকিৎসায় খুব একটা সুফল মেলেনি। শনিবার সন্ধের সময় মৃত্যু হয় তাঁর। এদিন বীরভূমের নলহাটিতে আরও এক মহিলার শরীরে এই সংক্রমণ ধরা পড়েছে। সব মিলিয়ে এ পর্যন্ত রাজ্যে ২৩ জনের কাছাকাছি মিউকরমাইকোসিসে আক্রান্ত। একদিকে করোনা, তার ওপর এই জীবাণু, চিন্তায় চিকিৎসক মহল।

প্রসঙ্গত, মূলত চোখ, ফুসফুসের সমস্যার মূলে রয়েছে এই মিউকরমাইকোসিস সংক্রমণ। ডায়বেটিস রোগীরা বেশি এই জীবাণুর আক্রমণের শিকার হচ্ছেন বলে স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর। তাই করোনা সংক্রমিত হলে এখন অবিলম্বে সুগার পরীক্ষা করিয়ে নেওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিৎসকরা।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla