ঘর থেকে বেরচ্ছিল পচা গন্ধ, দরজা ভাঙতেই আবিষ্কার যুবকের ঝুলন্ত দেহ!

প্রত্যক্ষদর্শী এক সাফাইকর্মী জানিয়েছেন, গত ১৫ এপ্রিল যাত্রীনিবাসের ২০ নম্বর ঘরটি ভাড়া নেন শান্তনু পাল নামের ওই যুবক। নিজের মতোই ঘরে ছিলেন তিনি। রবিবার, তাঁর ঘরের সামনে থেকে পচা গন্ধ পেয়েই ম্যানেজারকে খবর দেন সাফাইকর্মী। দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকতে ঘরের মধ্যে পাখার সঙ্গে ফাঁস দেওয়া শান্তনুর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। 

ঘর থেকে বেরচ্ছিল পচা গন্ধ, দরজা ভাঙতেই আবিষ্কার যুবকের ঝুলন্ত দেহ!
প্রতীকী চিত্র।

উত্তর দিনাজপুর: দিন তিনেক আগে ইসলামপুরের পৌরসভার যাত্রীনিবাসে ঘর ভাড়া নিয়েছিলেন শান্তনু। রবিবার সকালে ঘর পরিষ্কার করতে গিয়ে ঘর থেকে উদ্ধার হয় তাঁর ঝুলন্ত দেহ (Hanging Body)। ঘটনার আকস্মিকতায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

যাত্রীনিবাসের কার্যাধিক্ষ জানান, ভোটের জন্য বিগত দুদিন ঘর পরিষ্কার করা হয়নি। তাই রবিবার সকালে ঘর পরিষ্কারের জন্য সাফাইকর্মীরা ওপরে যেতেই ২০ নম্বর ঘরের সামনে থেকে পচা গন্ধ পান। সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয়। ঘটনাস্থলে আসে পুলিশও।  দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকতেই ঝুলন্ত দেহ (Hanging Body) উদ্ধার হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী এক সাফাইকর্মী জানিয়েছেন, গত ১৫ এপ্রিল যাত্রীনিবাসের ২০ নম্বর ঘরটি ভাড়া নেন শান্তনু পাল নামের ওই যুবক। নিজের মতোই ঘরে ছিলেন তিনি। রবিবার, তাঁর ঘরের সামনে থেকে পচা গন্ধ পেয়েই ম্যানেজারকে খবর দেন সাফাইকর্মী। দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকতে ঘরের মধ্যে পাখার সঙ্গে ফাঁস দেওয়া শান্তনুর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়।

পুলিশ সূ্ত্রে খবর, মৃত শান্তনু সেলসে কর্মরত ছিলেন। দেবীনগরের বাসিন্দা বছরের ত্রিশের এই যুবকের মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ঘর থেকে শান্তনুর ড্রাইভিং লাইসেন্স আবিষ্কার হয়েছে। তবে, কেন তিনি তিনদিন ধরে হোটেলে ছিলেন বা তাঁর সঙ্গে কেউ দেখা করতে এসেছিল কি না সে সব খতিয়ে দেখছে পুলিশ। প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশের অনুমান শান্তনু আত্মহত্যাই করেছেন। তবে ঘর থেকে কোনও সুইসাইড নোট (Suicide Note) পাওয়া যায়নি। ভোট আবহে এই ধরনের রহস্য মৃত্যুতে খুনের সম্ভাবনাও উড়িয়ে দিচ্ছেন না তদন্তকারীরা।

আরও পড়ুন: গাছ ঝুলছে বৃদ্ধ দম্পতির দেহ, প্রাতঃভ্রমণে বেরিয়ে শিউরে উঠলেন এলাকাবাসী!

 

 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla