Dhupguri: ‘বিজেপির লোক এরা, ভ্যাকসিন পাবে না’, টিকাকরণ নিয়ে তুলকালাম ধূপগুড়িতে

Dhupguri: অভিযোগ, তালিকায় নাম থাকা সত্ত্বেও বিজেপি ঘনিষ্ঠ একজনকে ভ্যাকসিন নিতে বাধা দেন সেখানকার শাসক দলের নেতারা।

Dhupguri: 'বিজেপির লোক এরা, ভ্যাকসিন পাবে না', টিকাকরণ নিয়ে তুলকালাম ধূপগুড়িতে
ফের ভ্যাকসিন দেওয়াকে ঘিরে স্বজনপোষণের অভিযোগ উঠল ধূপগুড়িতে। নিজস্ব চিত্র।

ধূপগুড়ি: ফের ভ্যাকসিন দেওয়াকে ঘিরে স্বজনপোষণের অভিযোগ উঠল ধূপগুড়িতে। এর জেরে তুমুল উত্তেজনা ছড়ায় ধূপগুড়ি ব্লকের সাঁকোয়াঝোরা-২ গ্রাম পঞ্চায়েতের পূর্ব মল্লিকপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে। রীতিমত হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ার অভিযোগ ওঠে স্থানীয় বিজেপি ও তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্যদের মধ্যে। একজনকে গ্রেফতারও করা হয়। সোমবারের ঘটনা।

এদিন সাঁকোয়াঝোরা-২ গ্রামপঞ্চায়েতের পূর্ব মল্লিকপাড়া হাইস্কুলে করোনার টিকাকরণ শিবির চলছিল। সকাল থেকে ওই গ্রামপঞ্চায়েতের বিভিন্ন এলাকা থেকে মানুষ করোনার টিকা নিতে ভিড় জমান। সেখানেই স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব অভিযোগ তোলে, টিকাকরণ ঘিরে স্বজনপোষণ করছে তৃণমূল। এর পরই তুমুল উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়।

অভিযোগ, তালিকায় নাম থাকা সত্ত্বেও বিজেপি ঘনিষ্ঠ একজনকে ভ্যাকসিন নিতে বাধা দেন সেখানকার শাসক দলের নেতারা। সকাল থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকলেও বিকেল পর্যন্ত তাঁকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ তোলে বিজেপি। আর সেই গন্ডগোলের ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়াতেই শুরু হয় রাজনৈতিক তরজা।

অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান বিজেপির দুই পঞ্চায়েত সদস্যের স্বামী হরিশঙ্কর রায় ও বিকাশ রায়। বিস্তারিত জানতে চাইলেই পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। তৃণমূলের দুই পঞ্চায়েত সদস্য রঞ্জুনাথ রায় ও বাপ্পা রায়ের সঙ্গে বচসা হাতাহাতিতে গড়ায় বলেও অভিযোগ।

এদিকে ভ্যাকসিন না পেয়ে স্থানীয় এক মহিলার সঙ্গেও পুলিশের ব্যাপক গোলমালের অভিযোগ ওঠে। ধূপগুড়ি থানার পুলিশ আসে। এদিকে ওই মহিলার সঙ্গে অভব্য আচরণ করা হয় বলেও অভিযোগ ওঠে। দুরামারির পর নতুন করে ফের সাঁকোয়াঝোরা-২ গ্রাম পঞ্চায়েতে টিকাকরণ ঘিরে রাজনৈতিক চাপানউতর শুরু হয়েছে।

ঘটনা প্রসঙ্গে তৃণমূলের জেলা সম্পাদক রাজেশ কুমার সিং বলেন, “সাঁকোয়াঝোরা-২ গ্রামপঞ্চায়েতে একটা গন্ডগোল হয়েছে শুনেছি। সেখানে যারাই গন্ডগোল করুক সেটা ঠিক নয়। মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন রাজ্যের প্রতিটা মানুষ ভ্যাকসিন পাবেন। ভ্যাকসিন পাবে না এমন কথা ভাবার কোনও কারণই নেই। যারা এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত পুলিশ ঘটনার তদন্ত করছে। ইতিমধ্যেই একজনকে আটক করা হয়েছে। আইন আইনের পথেই চলবে।”

অন্যদিকে বিজেপি নেতা চন্দন দত্ত বলেন, সাঁকোয়াঝোরা-২ গ্রাম পঞ্চায়েতে সকাল থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে থেকেও বিজেপির সমর্থক ভোটাররা কেউ ভ্যাকসিন পাচ্ছেন না। একজন মহিলা বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত লাইনে দাঁড়িয়ে থেকেও ভ্যাকসিন পাননি। এরপরই তিনি জানতে চান কেন তাঁকে দেওয়া হচ্ছে না। তখন তাঁকে বলা হয়, ভ্যাকসিন পাবেন না। বিজেপি পঞ্চায়েত সদস্যের উপর চড়াও হন তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্যরা। তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্যরা নিজেদের পকেট থেকে ভ্যাকসিনের জন্য টোকন দেন। আমরা থানায়এফআইআর করতে গেলে এফআইআর নেয়নি পুলিশ। অথচ যারা মারপিট করল তাদের অভিযোগ নিয়ে আমাদের এক মহিলা সদস্যকে আটক করল। স্বজনপোষণ সর্বত্র।”

আরও পড়ুন: Weather Update: যা দেখলেন ট্রেলার! ১০ দিনের মধ্যেই আসছে জোড়া ‘চিনা বিপদ’, বাংলায় ফের দুর্যোগ?

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla