Suvendu Adhikari: ‘পুলিশি সন্ত্রাস রুখতে ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটির মতো সমিতি গঠন করতে হবে’, নন্দীগ্রামে বার্তা শুভেন্দুর

Suvendu Adhikari in Nandigram: বাম জমানায় নন্দীগ্রামে যেভাবে BUPC বা ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটি গঠন করেছিলেন সেই ভাবেই এই কমিটি তৈরি হবে। এবং নন্দীগ্রামে পুলিশি সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে এই কমিটি বলে ঘোষণা শুভেন্দুর।

Suvendu Adhikari: 'পুলিশি সন্ত্রাস রুখতে ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটির মতো সমিতি গঠন করতে হবে', নন্দীগ্রামে বার্তা শুভেন্দুর
নন্দীগ্রামে শুভেন্দু। নিজস্ব চিত্র।

পূর্ব মেদিনীপুর: একুশের ভোটের ফল প্রকাশের পর বিজেপি নেতাদের মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে হেনস্থা করা হচ্ছে। এই অভিযোগ করে ধিক্কার সভা করলেন রাজ্যের বিরোধী নেতা তথা নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। আর সেখান থেকে ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটি (BUPC)-র মতো করে নন্দীগ্রামে ‘পুলিশি সন্ত্রাস রুখতে’ প্রতিটি গ্রামে গ্রামে গণ কমিটি গঠনের পরিকল্পনা করার কথ ঘোষণা করলেন শুভেন্দুর। আগামী ১৫ ডিসেম্বর থেকে টানা ৪ দিন ধরে নন্দীগ্রামের প্রতিটি গ্রামে গ্রামে গিয়ে স্থানীয় মানুষদের নিয়ে নিজহাতে গণকমিটি তৈরির পরিকল্পনা বিরোধী দলনেতার।

বাম জমানায় নন্দীগ্রামে যেভাবে BUPC বা ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটি গঠন করেছিলেন সেই ভাবেই এই কমিটি তৈরি হবে। এবং নন্দীগ্রামে পুলিশি সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে এই কমিটি বলে ঘোষণা শুভেন্দুর।

এদিন রাজ্যের শাসক দলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অভিযোগ করে একের পর এক অভিযোগ করেন শুভেন্দু। বিধানসভা ভোটে মমতার নির্বাচনী এজেন্ট সেখ সুফিয়ানের দিকেও কটাক্ষ ছুড়ে দিতে শোনা যায় শুভেন্দুকে।

তৃণমূলকে নিশানা করে বিজেপি বিধায়কের হুঁশিয়ারি, “আপনারা অতীত জানেন না বলে নন্দীগ্রামে আগুন নিয়ে খেলছেন…” এর পর তৃণমূল নেতা সেখ সুফিয়ানকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘২ রা মে জাহাজ বাড়িতে আছে? নাকি নাই? কোথায় পালাল? সবে তো সকাল হয়েছে, এখনও দুপুর হয়নি বন্ধু… কোথায় গেলেন বাকি নেতারা সুইচ অফ কেন, ফোন বন্ধ কেন? পুলিশ ছাড়া তৃণমূল নেই। পুলিশ বাবা রক্ষা করো…’

এর পর তৃণমূলের সঙ্গে পুলিশের সম্পর্ক নিয়ে একের পর এক অভিযোগ করেন শুভেন্দু। তবে তাৎপর্যপূর্ণ হল, একদা তৃণমূল করা শুভেন্দু এদিন ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটির অনুকরণে কমিটি গঠনের কথা বললেন।

উল্লেখ্য, ২০০৭ সালে নন্দীগ্রামে জমি আন্দোলনের পটভূমিতে তৈরি হয়েছিল ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটি। তার পর তেখালি খাল দিয়ে বহু জল গড়িয়েছে। ২০১১ বিধানসভা ভোটের ১০ বছর পর আবারও উত্তপ্ত নন্দীগ্রাম। তবে এবার এবার জমি আন্দোলন নয় রাজনৈতিক প্রতিহিংসার লড়াই শুরু হয়েছে। সেই লড়াই রুখতে শুভেন্দুর নয়া কৌশল গ্রামীণ গণকমিটি। বিজেপি কর্মীদের উপর পুলিশি অত্যাচারের অভিযোগ করে তাদের বিরুদ্ধে এদিন ধিক্কার মিছিলে শুভেন্দুর নিশানায় বার বার উঠে এসেছে স্থানীয় নন্দীগ্রাম থানার আইসির প্রসঙ্গ। শুধু আইসিসিই নন, এসডিপিও, এসপি এবং শেষে নাম না করে অভিষেক ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ শানান শুভেন্দু।

তাঁর অভিযোগ, ‘থানার আইসি থেকে দিদিমণি নেটওয়ার্কিংয়ের মাধ্যমে পুলিশের সহায়তায় বিজেপি কর্মীদের একাধিক মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে’। নন্দীগ্রামে পুলিশি সন্ত্রাসের অভিযোগ করে এবং সেই সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে ধিক্কার মিছিল থেকেই নয়া কৌশলের ইঙ্গিত দিলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

আরও পড়ুন: SSC: এবার এসএসসি গ্রুপ সি-তে ৪০০ ভুয়ো নিয়োগের অভিযোগ! কড়া নির্দেশ দিল হাই কোর্ট 

Related News

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla