মমতার ছবিতে পানের পিক! সাফ করলেন বিজেপি নেতা, এড়িয়ে গেলেন তৃণমূল সমর্থকেরা

তখন হেঁটে সভায় যোগ দিতে যাচ্ছিলেন তৃণমূলের কর্মী-সমর্থকেরা। এলাকায় পুলিশের উপস্থিতিও কম ছিল না। পিক পরিষ্কার করার জন্য তাঁদেরও এগিয়ে আসার ডাক দেন তিনি। কিন্তু, কর্ণপাত কেউই করেননি।

মমতার ছবিতে পানের পিক! সাফ করলেন বিজেপি নেতা, এড়িয়ে গেলেন তৃণমূল সমর্থকেরা
নিজস্ব চিত্র

শিলিগুড়ি: রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) ছবিতেই কিনা পানের পিক! দেখেও চুপ করে তৃণমূল কর্মীরা। তবে হাত গুটিয়ে থাকেননি বিজেপির জেলা সহ-সভাপতি। প্রথমে অনেককে ডাকাডাকি করেছিলেন। কিন্তু কেউ এগিয়ে আসেননি। শেষ পর্যন্ত নিজেই রুমাল নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর ছবির পানের পিক মুখে দিলেন পেশায় আইনজীবী অখিল বিশ্বাস।

শহরের বাঘাযতীন পার্কে সোমবার সভা ছিল তৃণমূল নেত্রীর। ফলে স্বাভাবিকভাবেই সভাস্থলের আশেপাশে মমতার পোস্টারে ছেয়ে ছিল এলাকা। একাধিক পোস্টারের মধ্যেই একটি পোস্টারে দেখা যায়, মমতার মুখে কেউ বা কারা পানের পিক ফেলেছে। সেই সময় আদালত থেকে ফিরছিলেন বিজেপি নেতা তথা আইনজীবী। সেই সময় এই অস্বস্তিকর দৃশ্য চোখে পড়তেই এগিয়ে আসেন তিনি। রাজনৈতিক মতাদর্শে হাজার মাইলের ফারাক থাকলেও রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধানের এহেন অপমান মেনে নিতে পারেননি অখিলবাবু। এগিয়ে এসে নিজেই উদ্যোগ নেন সেই পিক পরিষ্কার করার।

রাস্তা দিয়ে তখন হেঁটে সভায় যোগ দিতে যাচ্ছিলেন তৃণমূলের কর্মী-সমর্থকেরা। এলাকায় পুলিশের উপস্থিতিও কম ছিল না। পিক পরিষ্কার করার জন্য তাঁদেরও এগিয়ে আসার ডাক দেন তিনি। কিন্তু, কর্ণপাত কেউই করেননি। শেষ পর্যন্ত এক টোটো ড্রাইভারকে ডেকে ও এক পুলিশকর্মীর কাছে থেকে জল চেয়ে তিনি নিজেই ওই পিক পরিষ্কার করেন। জেলা বিজেপির প্রথম সারির নেতার এই কাজ দেখে ধন্য ধন্য করছে তৃণমূল শিবিরও।

আরও পড়ুন: নিজের হার স্বীকার করে নিলেন মমতা!

অখিলবাবু বলেন, “আমার মনে হয় মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী আমাদের সবার মুখ্যমন্ত্রী। এবং তাঁর ছবির মুখে এই ধরনের একটা কাজ হওয়ায় আমি আন্তরিকভাবে দুঃখ পেয়েছি। তাই আমি নিজেই এটা পরিষ্কার করলাম।”

আরও পড়ুন: ‘হুক্কা হুয়া বাজেট’! বাংলায় আপনারা কী করবেন, সব করে দিয়েছি: মমতা