Rain in West Bengal: গরমের দাপট থেকে রক্ষা পেতে বসল ব্যাঙের বিয়ের আসর, কব্জি ডুবিয়ে খেল এলাকাবাসী

Rain in West Bengal: দাবদাহ থেকে বাঁচতে টোপর মাথায় দিয়ে ব্যাঙের বিয়ে। চলল খাওয়া-দাওয়া। বাজলো সানাই। কব্জি ঢুবিয়ে খেল আরামবাগের পাড়েরঘাট হরি মন্দির সংলগ্ন এলাকার মানুষ।

Rain in West Bengal: গরমের দাপট থেকে রক্ষা পেতে বসল ব্যাঙের বিয়ের আসর, কব্জি ডুবিয়ে খেল এলাকাবাসী
ছবি- বৃষ্টির আশায় ব্যাঙের বিয়ে
TV9 Bangla Digital

| Edited By: জয়দীপ দাস

Apr 27, 2022 | 2:19 PM

আরামবাগ: প্রবল দাবদহে পুড়ছে বাংলা। দেখা নেই বৃষ্টির। এমনকী আগামী বেশ কয়েকদিন তাপপ্রবাহের সতর্কতা জারি হয়েছে দক্ষিণবঙ্গের (South Bengal) বেশ কয়েকটি জেলায়। এই পরিস্থিতিতে গরমের রোষানল থেকে বাঁচতে বৃষ্টির আশায় টোপর মাথায় দিয়ে বিয়ের আসরে বসল ব্যাঙ-ব্যাঙ্গমি। বাজলো সানাই। কব্জি ঢুবিয়ে খেল এলাকার মানুষ। আরামবাগের পাড়েরঘাট হরি মন্দিরে ব্যাঙের বিয়ের (Frog Wedding) অনুষ্ঠান ঘিরে সাড়া পড়ল পার্শ্ববর্তী এলাকায়। বিয়েতে মানা হল যাবতীয় আচার-অনুষ্ঠান। গায়ে হলুদ, মালাবদল, সিঁদুর দান সবই হল। মন্ত্রচ্চারণও করলেন ব্রাহ্মণ। অসংখ্য মহিলার উলুধ্বনি ও শঙ্খ ধ্বনিতে মেতে উঠল গোটা এলাকা।

চমকপ্রদ এই বিয়েতে নিমন্ত্রিত ছিলেন আরামবাগ পুরসভার (Arambagh Municipality) প্রাক্তন চেয়ারম্যান স্বপন নন্দী। ছিলেন আরামবাগ শহর তৃণমূল কংগ্রেসের (Trinamool congress) সভাপতি তথা পৌরসভার কাউন্সিলর প্রদীপ সিংহ রায়। তবে এই প্রথম নয়, বৃষ্টির আশায় প্রতিবছরই ব্যাঙের বিয়ে দেখতে পাওয়া যায় বাংলার বিভিন্ন জেলায়। এদিকে বৃষ্টি ডাকতে বাংলা সহ গোটা দেশে একসময়ে এই রীতি ছিল বহুল প্রচলিত। কিন্তু, আধুনিক সময়ের অগ্রগতির সঙ্গে সঙ্গে সেই রীতিতে ছেদ পড়ে। এমনকী ‘সংস্কার-কুসংস্কারের’ বেড়াজালে অনেকটাই কমে আসে এই রেওয়াজ। কিন্তু এখনও প্রচীন বিশ্বাসে ভর করেই গ্রীষ্মের দাবদহের হাত থেক মুক্তি পেতে চাইছেন আরামবাগবাসী। মনে করা হয়, ব্যাঙ আর ব্যাঙ্গমির বিয়েতে তুষ্ট হয়ে জল দেবতা রোদের দাপট থেকে ধরণীকে বাঁচাতে জল দান করে আবহাওয়াকে ঠাণ্ডা করেন। সেই বিশ্বাসের ওপর নির্ভর করেই তাঁদের এই বিয়ের আয়োজন।

ব্যাঙের বিয়ে নিয়ে নানা পৌরাণিক গল্পকথাও শোনা যায়। মূলত হিন্দুদের ধর্মগ্রন্থ রামায়ণে(Ramayana) বৃষ্টির দেবতাকে তুষ্ট করতেই ব্যাঙের বিয়ের আয়োজন করা হয়েছিল। অনেকে বলেন, এটা কোনও ধর্মীয় ব্যাপার নয়, একটি লোকাচার। সনাতন ধর্মাবলম্বী ও আদিবাসী সমাজের মধ্যে এইরকম আয়োজন প্রায়শই দেখতে পাওয়া যায়। কিন্তু বিয়ে তো হল, এবার এটা দেখার বৃষ্টির দেখা মেলে কিনা। তবে আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস বলছে চলতি সপ্তাহের শেষ থেকে ধীরে ধীরে বদলাবে পরিস্থিতি। এমনকী আগামী সপ্তাহের শুরুতে বেশ কিছু জেলায় বিক্ষিপ্ত ভাবে বৃষ্টির দেখা মিলতে পারে।

আরও পড়ুন- জঙ্গলমহলে কী ফিরছে আদি মাওবাদীরা? পোস্টারের হরফ-বনধের স্টাইলে ভয় বাড়ছে পশ্চিম মেদিনীপুরে

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla