খুশির খবর! এখন রেশন দোকানেই পাওয়া যাবে রান্নার গ্যাস

অয়েল মার্কেটিং কোম্পানিগুলির (OMC) প্রতিনিধিরা সরকারি রেশন দোকানের মাধ্যমে ছোট এলপিজি সিলিন্ডারের খুচরো বিক্রির প্রস্তাবের প্রশংসা করেছেন। তারা জানিয়েছেন, এই প্রস্তাবে ইচ্ছুক রাজ্য এবং কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলিকে তাদের তরফ থেকে প্রয়োজনীয় সাহায্য প্রদান করা হবে।

খুশির খবর! এখন রেশন দোকানেই পাওয়া যাবে রান্নার গ্যাস
ফাইল চিত্র
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Shubhendu Debnath

Oct 28, 2021 | 8:10 PM

কলকাতা: যদি আপনি ছোট এলপিজি সিলিন্ডার ব্যবহাকারী হয়ে থাকেন, তাহলে আপনার জন্য রয়েছে খুশির খবর। আপনাকে এখন আর সিলিন্ডারের জন্য সমস্যায় পড়তে হবে না। এখন দ্রুতই আপনি রেশন দোকান থেকে গ্যাসের সিলিন্ডার কিনতে পারবেন। কেন্দ্রীয় সরকার মুদিখানা দোকানের মাধ্যমে ছোট এলপিজি সিলিন্ডার বেচার আর এমনকী আর্থিক পরিষেবা দেওয়ারও ভাবনা চিন্তা করছে।

একটি মিডিয়া রিপোর্টের মোতাবেক, সরকারি রেশন দোকানগুলিকে আর্থিকভাবে আরও বেশি ব্যবহারযোগ্য করে তোলার জন্য ফুড সেক্রেটারি শুধাংশু পাণ্ডে সম্প্রতিই বিভিন্ন রাজ্য সরকারের আধিকারীকদের সঙ্গে একটি ভার্চুয়াল বৈঠক করেছিলেন। সেই সময় এই প্রস্তাবগুলি রাখা হয়েছিল।

পেট্রোলিয়াম কোম্পানিগুলির সঙ্গে হয়েছে বৈঠক

সূত্রের মোতাবেক ইলেকট্রনিক্স অ্যান্ড আইটি, ফাইন্যান্স এবং পেট্রোলিয়াম অ্যান্ড ন্যাচারাল গ্যাস মন্ত্রালয়ের আধিকারীকরাও এই বৈঠকে শামিল হয়েছিলেন। ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশন লিমিটেড, হিন্দুস্তান পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন লিমিটেডের পাশাপাশি সিএসসি ই গভর্নেন্স সার্ভিসেজ ইন্ডিয়া লিমিটেডের আধিকারীকরাও এই বৈঠকে উপস্থিত হয়েছিলেন। অয়েল মার্কেটিং কোম্পানিগুলির (OMC) প্রতিনিধিরা সরকারি রেশন দোকানের মাধ্যমে ছোট এলপিজি সিলিন্ডারের খুচরো বিক্রির প্রস্তাবের প্রশংসা করেছেন। তারা জানিয়েছেন, এই প্রস্তাবে ইচ্ছুক রাজ্য এবং কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলিকে তাদের তরফ থেকে প্রয়োজনীয় সাহায্য প্রদান করা হবে।

পাওয়া যাবে আর্থিক লোনের সুবিধাও

সরকারি রেশন দোকানের মাধ্যমে আর্থিক পরিষেবাগুলির বিক্রির প্রস্তাবে ডিপার্টমেন্ট অব ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেজ (DFS)-এর প্রতিনিধিরা জানিয়েছেন, ইচ্ছুক রাজ্যগুলির সঙ্গে কোঅর্ডিনেট করে এর জন্য প্রয়োজনীয় সহায়তা দেওয়া হবে। বয়ানে জানানো হয়েছে, সরকার এই রেশন দোকানগুলির মাধ্যমে আর্থিক লোনও প্রদান করার কথা ভাবনা চিন্তা করছে। এই বৈঠকে কেন্দ্রীয় ফুড সেক্রেটারি শুধাংশু পাণ্ডে রেশন দোকানগুলিকে আর্থিকভাবে বেশি ব্যবহারযোগ্য করে তোলার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার আবশ্যকতার উপর জোর দিয়েছেন। রাজ্য সরকারগুলি পরামর্শ দিয়েছে, কমন সার্ভিস সেন্টারের (CSC) সহযোগীতায় এই রেশন দোকানগুলির আর্থিক উপযোগীতা বাড়তে পারে।

তবে দীপাবলীর আগে এলপি সিলিন্ডারের দাম বাড়ার ঘোষণা হতে পারে। এমনিতেই পেট্রোল ডিজেলের দাম থেকে সব্জি বাজারের দাম বাড়ায় নাজেহাল সাধারণ মানুষ, তার উপর সিলিন্ডারের দাম বাড়লে সমস্যা আরও বাড়তে পারে। বলা হচ্ছে নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে ঘরোয়া রান্নার গ্যাসের দাম বাড়বে। প্রসঙ্গত গত ৬ অক্টোবর ১৪ কেজি ঘরোয়া এলপিজি সিলিন্ডারের দাম ১৫ টাকা বাড়ানো হয়েছিল। শুধু তাই নয় গত জুলাই মাস থেকে এখনও পর্যন্ত এলপিজি সিলিন্ডারের দাম ৯০ টাকা বেড়েছে।

বলা হচ্ছে বিনিয়োগ করা টাকার চেয়ে কম টাকায় এলপিজি সিলিন্ডার বিক্রি করায় লোকসান প্রতি সিলিন্ডার ১০০ টাকায় পৌঁছেছে। এই কারণে দাম বাড়ার ঘোষণা হতে পারে। রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডারের মূল্যবৃদ্ধি সরকারের অনুমতিতে ঠিক করা হবে।

আরও পড়ুন: Gold Price Today: ৪০০০ টাকা সস্তা সোনা, রুপোর দামও অনেকটাই কমল

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla