Ad Controversy: ‘মহিলাদের জন্য অবমাননাকর’, ‘গণধর্ষণ’-এ ইন্ধন জোগাচ্ছে, বিতর্কের আগেই সুগন্ধীর বিজ্ঞাপনে ‘না’ বলেছিলেন অভিনেতা

Ad Controversy: 'মহিলাদের জন্য অবমাননাকর', 'গণধর্ষণ'-এ ইন্ধন জোগাচ্ছে, বিতর্কের আগেই সুগন্ধীর বিজ্ঞাপনে 'না' বলেছিলেন অভিনেতা
সেই বিতর্কিত সুগন্ধী বিজ্ঞাপন, যাতে অভিনয় করতে রাজি হননি সৌরভ

Ad Controversy: ধর্ষণের রসিকতা ব্যবহার করার জন্য বিজ্ঞাপন নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া হয়েছে। অনেক সেলিব্রিটি কোম্পানির নিন্দা করেছেন এবং পদক্ষেপের দাবি জানিয়েছিলেন।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: Mahuya Dutta

Jun 22, 2022 | 7:43 PM

আবার একটি খবর প্রকাশিত সেই বিতর্কিত সুগন্ধী বিজ্ঞাপনকে নিয়ে। ‘গণধর্ষণ’-এ ইন্ধন জোগাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছিল যে বিজ্ঞাপনের বিরুদ্ধে। সব ধরনের মহল থেকে দেওয়া হয়েছিল ধিক্কার। এবার জানা গেল, এই বিজ্ঞাপন করার জন্য অভিনেতা সৌরভ ভার্মার কাছে প্রথম গিয়েছিল প্রস্তাব। কিন্তু বিজ্ঞাপনের স্ক্রিপ্ট পড়েই তাঁর মনে হয়েছিল, ‘মহিলাদের জন্য অবমাননাকর’ এটি। তিনি না করে দেন। পরে আবারও তাঁর সঙ্গে বিজ্ঞাপন প্রস্তুতকারক সংস্থা যোগাযোগ করে। তিনি জিজ্ঞাসা করেন স্ক্রিপ্টে কোনও পরিবর্তন হয়েছি কি না। হয়নি জেনে তিনি আবারও না করেন। তাঁর এই কথোপকথন হয় একটি বিজ্ঞাপন কোম্পানির মার্কেটিংয়ের একজন ক্রিয়েটিভ পরিচালক আব্বাস মির্জা নামে বন্ধুর সঙ্গে। তিনিই লিঙ্কডইনে তাঁদের চ্যাটটি পোস্ট করেন। অর্থাৎ একজন অভিনেতা বিষয়টি চোখে আঙুল দিয়ে দেখানোর পরও কোনও পরিবর্তন করেনি ওই বিজ্ঞাপন যাঁরা করেছেন তাঁরা।

সৌরভের এই নতুন পোস্ট থেকে কী উঠে আসছে? একজন স্ক্রিপ্টের নেতিবাচক দিকটি তুলে ধরলেও ইচ্ছে করেই ওই সুগন্ধী প্রস্তুতকারক সংস্থা এই বিজ্ঞাপনটি তৈরি করেছেন, এটাই কি ধরে নেওয়া যায়? সোশ্যাল মিডিয়া এই পোস্টের প্রশংসা করছে। কিন্তু পাশাপাশি প্রশ্নটি আবারও উঠে আসছে। বারবার মহিলারাই সুগন্ধীর টার্গেট কেন হন। আর এই করতে করতে এবার এত বড় অবমাননাকর বিজ্ঞাপন করতেও কোনও অসুবিধে হল না?

আব্বাস মির্জা তাঁর লিঙ্কডইন পৃষ্ঠায় হোয়াটসঅ্যাপ কথোপকথনের একটি স্ক্রিনশট শেয়ার করেছেন এবং লিখেছেন, “আমার এক অভিনেতা বন্ধু ‘লেয়ার শট’ বিজ্ঞাপনের জন্য ‘না’ বলেছিল যখন তাঁকে এটির জন্য যোগাযোগ করা হয়েছিল। আমার মনে হয় তাঁর গল্প বলা দরকার! আমি কিছু কাজে লোখান্ডওয়ালায় গিয়েছিলাম। তখন ঘনিষ্ঠ অভিনেতা বন্ধু সৌরভ ভার্মার সঙ্গে আচমকা কথা হয়। আমরা একটি কফি শপে বসলাম এবং কিছু ভালো বিজ্ঞাপনের পাশাপাশি খারাপ বিজ্ঞাপন নিয়েও আলোচনা শুরু করলাম। আর তখনই তিনি জানালেন, তাঁকে মিসোজিনিস্টিক ডিওডোরেন্ট বিজ্ঞাপনের অডিশনের জন্য যোগাযোগ করা হয়েছিল। স্ক্রিপ্টটি পড়েই তিনি সেটি পরিবর্তন করার প্রস্তাব করেছিলেন।”

আব্বাসের মতে, যাঁরা বিজ্ঞাপনে কাজ করেন এবং প্রযোজনা-হাউস/অভিনেতার ক্ষমতা সম্পর্কে সচেতন তাঁরা জানেন, এখানে কাজ করা কতটা কঠিন। তাই সৌরভ বিনয়ের সঙ্গে এটির জন্য অডিশন দিতে অস্বীকার করেছিলেন। তবে একটি হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটে কাস্টিং এজেন্টের কাছে সমস্যাটি আগে তুলে ধরেছিলেন। এই ঘটনা জেনে তাঁর মনে হয়েছে, বিষয়টা জনসমক্ষে আনার। তাই তিনি সৌরভের থেকে অনুমতি নিয়ে একটি স্ক্রিনশট নিজেই তুলে দেন লিঙ্কডইনে। তিনি মনে করেন, “এই  প্রকল্পের সঙ্গে জড়িত অন্যদেরও একই কাজ করার মেরুদণ্ড থাকত, তবে ৩টি বিজ্ঞাপন দিনের আলো দেখতে পেত না বা রাতের আঁধার! আমি তোমাকে নিয়ে গর্বিত, সৌরভ ভার্মা। আশা করি তোমার অনেক উন্নতি হবে। এই পোস্টে তোমাকে ট্যাগ করতে পারলে ভাল লাগত, কিন্তু তুমি লিঙ্কডইনে নেই।”

এই খবরটিও পড়ুন

অনেকেই অভিনেতার অবস্থান এবং বিজ্ঞাপনে থাকতে অস্বীকার করার বিষয়টির প্রশংসা করেছেন এবং বিজ্ঞাপনের যৌনতাবাদী বার্তা সম্পর্কে নির্মাতাদের জানানোর জন্য তাঁকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। উল্লিখিত বিজ্ঞাপনে যৌন নিপীড়নের সঙ্গে ‘শট’ শব্দটিকে সমতুল্য করে মহিলাদের নিয়ে ব্যঙ্গ করা হয়েছে। ধর্ষণের রসিকতা ব্যবহার করার জন্য বিজ্ঞাপন নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া হয়েছে ইতিমধ্যেই। অনেক সেলিব্রিটি কোম্পানির নিন্দা করেছেন এবং পদক্ষেপের দাবি জানিয়েছিলেন। সোশ্যাল মিডিয়াতে ব্যাপক ক্ষোভের পর তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক পারফিউমের বিজ্ঞাপনটি যাবতীয় প্ল্যাটফর্ম থেকে তুলে নেওয়ার  নির্দেশ দেয়। নোটিশ আসার কয়েক ঘন্টার মধ্যেই তুলে নেওয়া হয় বিজ্ঞাপনটি।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA