Solar Eclipse 2021: অন্ধত্ব থেকে হজমের সমস্যা, স্বাস্থ্যের উপর বছরের প্রথম সূর্যগ্রহণ কতটা ক্ষতিকর, জেনে নিন

নাসা জানিয়েছে, সূর্য ও পৃথিবীর মধ্যিখানে চাঁদ এমনভাবে চলে আসবে যে ৯৫ শতাংশ সূর্যের উপর চাঁদের ছায়া পড়বে । সূর্যের উপর পুরোপুরি চাঁদের ছায়া পড়বে না। ফলে এই গ্রহণে রিং অফ ফায়ার দেখা যাবে।

Solar Eclipse 2021: অন্ধত্ব থেকে হজমের সমস্যা, স্বাস্থ্যের উপর বছরের প্রথম সূর্যগ্রহণ কতটা ক্ষতিকর, জেনে নিন
স্বাস্থ্যের উপর বছরের প্রথম সূর্যগ্রহণ কেমন প্রভাব ফেলবে জেনে নিন

বছরের প্রথম সূর্যগ্রহণের সাক্ষী থাকবে ভারত-সহ সারা বিশ্ব। তবে ভারতের সব জায়গা থেকে দেখা যাবে না। অরুণাচল প্রদেশ ও লাদাখ থেকে আংশিক বলয় গ্রাস সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে। প্রসঙ্গতএকইদিনে শনিজয়ন্তী ও সূর্যগ্রহণের ঘটনা ঘটতে চলেছে। সূর্যগ্রহণ নিয়ে মানুষের কৌতূহলের শেষ নেই। বহু প্রাচীন কাল থেকেই মানুষের বিশ্বাস, সূর্যগ্রহণ বা চন্দ্রগ্রহণের মতো ঘটনাগুলি আমাদের স্বাস্খ্যের উপর বিশেষ প্রভাব বিস্তার করে। বিশেষত সূর্যগ্রহণের সময় গর্ভবতী নারী ও নবজাতকের স্বাস্থ্যের বিশেষ যত্ন নেওয়া দরকার। এই বিশ্বাসগুলির বৈজ্ঞানিক কোনও ভিত্তি নেই ।

চোখের সমস্যা- খালি চোখে সরাসরি সূর্যগ্রহণ দেখা একেবারেই উচিত নয়। জ্যোতির্বিজ্ঞানীদের মতে, খালি চোখে গ্রহণ দেখা বিপজ্জনক। এই সময় বিশেষ সাবধানতা অবলন্বন করা প্রয়োজন। গ্রহণ দেখার জন্য অ্যালুমিনিয়াম মিলার ফিল্ম এবং দৃশ্যমানতাযুক্ত কালো পলিমার পাওয়া যায়, তার মাধ্যমে না দেখলে চোখের রেটিনার বড়সড় ক্ষতি হতে পারে। এছাড়া সানগ্লাস বা ফোটোগ্রাফিক নেগেটিভ দিয়েও দেখা যেতে পারে। তবে সেটি বিশেষ কার্যকরী নয় বলেই বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন। গ্রহণের সময় সূর্যকে চাঁদ ঢেকে ফেললেও বাকি যেটুকু রশ্মি থাকে, তাতেই চোখের ক্ষতি করার পক্ষে যথেষ্ট। এমনকি অন্ধত্বের শিকারও হতে পারেন আপনি।

গর্ভবতীদের স্বাস্থ্যের উপর প্রভাব

অনেকেরই বিশ্বাস, গর্ভবতী মহিলাদের স্বাস্থ্যের উপর সূর্যগ্রহণের প্রভাব পড়ে। বৈজ্ঞানিক ভিত্তি না থাকলেও অনেকেই বিশ্বাস করেন, গ্রহণের সময়কালে গর্ভবতী মহিলাদের বাড়ির বাইরে বের না হওয়াই উচিত। গ্রহণের কোনও রশ্মিই যেন তাঁদের স্পর্শ না করতে পারে গর্ভাবস্তায় গ্রহণের আলো পড়লে ভ্রুণের ক্ষতি হতে পারে । পরবর্তীক্ষেত্রে মা ও শিশুর স্বাস্থ্যের অবনতি হতে পারে, এমন আশঙ্কায় গর্ভবতীদের ঘরে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: Solar Eclipse 2021: আর মাত্র সাতদিন, বছরের প্রথম সূর্যগ্রহণের দিনক্ষণ জেনে নিন

হজমের সমস্যা- সূর্যগ্রহণের সময় বহু মানুষ খাওয়া-দাওয়া বন্ধ করে দেন। এমনকি জল পর্যন্ত স্পর্শ করেন না। সমস্ত খাবার ঢাকা দিয়ে রেখে দেওয়া হয় । কারণ গ্রহণের সময় রাহুর প্রভাব বিস্তার করে। আর ওই সময় ভুলেও যদি খাবার খাওয়া হয়, তাহলে হজমের সমস্যা হতে পারে । এই সমস্যার পিছনেও কোনও বৈজ্ঞানিক যুক্তি নেই।

মেজাজ পরিবর্তন- ভারতে সূর্যগ্রহণ দেখা না দেওয়ায় গ্রহণের সুতক মান্য হবে না।তবুও এই সময় স্বাস্থ্যের কথা ভেবে নানান সমস্যা থেকে বিরত থাকা উচিত। সূর্যগ্রহণের প্রভানে মনের উপর চাপ পড়তে পারে বলে অনেকের বিশ্বাস। কোনও কারণ ছাড়াই আপনি রেগে যেতে পারেন কিংবা বিরক্তিবোধ হতে পারেন। তবে এই সমস্যার পিছনে কোনও বৈজ্ঞানিক দৃষ্টিভঙ্গি খুঁজে পাওয়া যায়নি।

ক্লান্তিবোধ- অনেকেরই বিশ্বাস, সূর্যগ্রহণের সময় ক্লান্তি ও অলস বোধ অনুভব হতে পারে । যদি রাতে গভীর ঘুম হয়ে থাকে, তারপরেও শুধুমাত্র গ্রহণের কারণে আপনি ফের ক্লান্ত বোধ অনুভব করবেন।