Sachin Pilot on Farm Laws: ফলাফল ভোগার জন্য প্রস্তুত থাকুন, কৃষি আইন প্রত্যাহার নিয়ে বিজেপিকে হুঁশিয়ারি সচিন পাইলটের

Sachin Pilot পাইলট বলেন শুধুমাত্র আইন প্রত্যাহার নয় কেন্দ্রের উচিৎ ছিল কৃষকদের ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের দাবিটিও মেনে নেওয়া। উল্লেখ্য, কৃষি আইন প্রত্যাহারের পর বিবৃতি প্রকাশ করে কৃষক সংগঠনগুলি জানিয়েছিল, সরকারের এই সিদ্ধান্তে তাঁরা স্বাগত জানালেনও ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের দাবি নিয়ে তাঁরা অনড়

Sachin Pilot on Farm Laws: ফলাফল ভোগার জন্য প্রস্তুত থাকুন, কৃষি আইন প্রত্যাহার নিয়ে বিজেপিকে হুঁশিয়ারি সচিন পাইলটের
ছবি:PTI

নয়া দিল্লি: কৃষি আইন নিয়ে প্রত্যাহার নিয়ে বিজেপিকে আক্রমণ করলেন রাজস্থানের প্রাক্তন উপমুখ্যমন্ত্রী তথা কংগ্রেস নেতা সচিন পাইলট (Sachin Pilot)। মঙ্গলবার, তিনি জানন, বিগত উপনির্বাচন গুলিতে পরাজয় ও আগামী বছর বিধানসভা নির্বাচনে হার নিশ্চিত জেনেই পরিস্থিতি সামাল দিতে কৃষি আইন প্রত্যাহারে সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করে সরকার। সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে দেওয়া সাক্ষাতকারে পাইলট জানিয়েছেন, কৃষকদের মধ্যে বিজেপিকে নিয়ে অবিশ্বাস তৈরি হয়েছে, তাই আইন যতই প্রত্যাহার হোক কৃষকদের মতাদর্শের কোনও পরিবর্তন হবেনা। আগামী নির্বাচনে বিজেপিকে এর ফল ভুগতে হবে।

গত ১৯ নভেম্বর,শুক্রবার খানিক আকস্মিকভাবেই জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেওয়ার সময় তিনটি কৃষি আইন প্রত্যাহারের (Repealing Farm Laws) কথা ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (PM Narendra Modi)। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পরেও কৃষকদের মন গলেনি, সংসদে আইন বাতিলের প্রক্রিয়া সম্পন্ন না হওয়া অবধি তারা যে পিছু হঠতে রাজি নয় পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছিলেন কৃষকরা। সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, চলতি সপ্তাহেই সংসদের শীতকালীন অধিবেশনের আগে কৃষি আইন প্রত্যাহারের বিষয়ে মন্ত্রিসভার চূড়ান্ত অনুমোদন মিলতে পারে। জানা গিয়েছে আগামী বুধবার বসতে চলেছে মন্ত্রিসভার বৈঠক, সেই বৈঠকেই কৃষি আইন প্রত্যাহারের বিষয়ে আরও একধাপ এগোতে পারে নরেন্দ্র মোদী নেতৃত্বাধীন সরকার।

এদিন পাইলট বলেন শুধুমাত্র আইন প্রত্যাহার নয় কেন্দ্রের উচিৎ ছিল কৃষকদের ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের দাবিটিও মেনে নেওয়া। উল্লেখ্য, কৃষি আইন প্রত্যাহারের পর বিবৃতি প্রকাশ করে কৃষক সংগঠনগুলি জানিয়েছিল, সরকারের এই সিদ্ধান্তে তাঁরা স্বাগত জানালেনও ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের দাবি নিয়ে তাঁরা অনড় এবং এই বিষয়ে কেন্দ্রকে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে হবে। পাইলট আরও জানিয়েছন, নিজের দাবির স্বপক্ষে এত বড় আন্দোলন দেশে আগে কখনও হয়নি। পিটিআইকে তিনি বলেন, “তাদের যদি আইন প্রত্যাহার করার ছিল তবে এত গুলো জীবন নষ্ট করার কোনও মানে ছিল না। কৃষকেদর অনেকে নক্সাল, বিচ্ছিন্নতাবাদী এমনকি জঙ্গিও বলেছিলেন, অনেক মন্ত্রী আবার তাদের আন্দোলনকে পিষে দেওয়ারও চেষ্টা করেছেন, এই গুলির কোনও দরকার ছিল না।” সচিনের অভিযোগ, কৃষি আইন লাগু করার আগে কৃষকদের সঙ্গে কোনও আলোচনা করেনি সরকার। সরকার সম্পর্কে কৃষকদের বিশ্বাসযোগ্যতায় আঘাত লেগেছে, আগামী দিনে এর পরিনাম অপেক্ষা করছে।

উল্লেখ্য, একবছর ধরে টানা প্রচেষ্টার পর অবশেষে পূরণ হয়েছে সচিন পাইলটের দাবি। রাজস্থানের মন্ত্রিসভায় রদবদল (Rajasthan Cabinet Reshuffle) করে স্থান দেওয়া হয়েছে ১৫টি নতুন মুখকে। রাজস্থানে অশোক গেহলট (Ashok Gehlot) বনাম সচিন পাইলটেরও বিরোধের কথা প্রায় সকলেরই জানা। দীর্ঘদিন ধরেই রাজস্থানে মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট ও প্রাক্তন উপ মুখ্য়মন্ত্রী সচিন পাইলটের মধ্যে যে বিরোধ রয়েছে, বছর পার করেও সেই বিরোধ মেটাতে পারেনি কংগ্রেসের শীর্ষ নেতারা। মন্ত্রিসভার রদবদলে পাইলট ঘনিষ্টরা জায়গা পাওয়ায় সচিনে ক্ষোভ কমেছে বলেই মনে করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন Modi Mamata meeting: বিএসএফ নিয়ে সংঘাতের আবহে কাল মুখোমুখি মোদী-মমতা, উঠতে পারে ত্রিপুরা সন্ত্রাসের প্রসঙ্গও

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla