Mohan Bhagwat: ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপের আগে ৮০% ফান্ড চলে যেত রাজনীতিকদের পকেটে!

Article 370: ২০১৯ সালের অগস্টে জম্মু-কাশ্মীরে বিশেষ মর্যাদা বিলোপ করে কেন্দ্র। মোদী সরকারের এই সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করে আসছে কংগ্রেস সহ বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি। গত জুন মাসেই দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠকের পর পিডিপি প্রধান তথা জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি ঘোষণা করে দেন, উপত্যকায় ৩৭০ ধারা ফিরিয়ে দেওয়া না হলে তিনি ভোটেই লড়বেন না।

Mohan Bhagwat: ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপের আগে ৮০% ফান্ড চলে যেত রাজনীতিকদের পকেটে!
মোহন ভাগবত (ফাইল ছবি)

দেশ: জম্মু-কাশ্মীর থেকে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপের পর কয়েকদিন আগেই প্রথমবারের জন্য উপত্যকায় গিয়েছিলেন রাষ্ট্রীয় সমাজ স্বংয়সেবক সংঘ (RSS) প্রধান মোহন ভাগবত (Mohan Bhagwat)। আর শনিবার নাগপুর থেকে জম্মু-কাশ্মীর থেকে বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাহারের জন্য মোদী সরকারের ভূয়সী প্রশংসা করলেন আরএসএস প্রধান। তাঁর অভিযোগ, উপত্যকা থেকে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপের আগে ৮০ শতাংশ সরকারি অনুদান চলে যেত রাজনৈতিক নেতাদের পকেটে!

শনিবার নাগপুরে এক অনুষ্ঠানে যোগ দেন মোহন ভাগবত। সেখানে কাশ্মীর প্রসঙ্গে তাঁর মন্তব্য, “৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপের আগে কাশ্মীর উপত্যকার জন্য যা করা হত, তার ৮০ শতাংশই রাজনৈতিক নেতাদের পকেটে চলে যেত। সাধারণ মানুষের কাছে তা পৌঁছত না। এখন, কাশ্মীর উপত্যকার মানুষ ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপের পর উন্নয়নের সুবিধা গ্রহণের সরাসরি সুযোগ পাচ্ছেন”।

তাঁর কয়েকদিন আগে উপত্যকা সফরের কথা বলতে গিয়ে মোহন ভাগবত জানান, “বর্তমান পরিস্থিতি দেখতে কয়েকদিন আগে জম্ম-কাশ্মীর গিয়েছিলাম। দেখলাম, ৩৭০অনুচ্ছেদ বিলোপের পর উন্নয়নের পথ এখন সবার জন্য খুলে গিয়েছে।” জম্মু কাশ্মীরের যখন সংবিধানের বিশেষ মর্যাদা দেওয়া ছিল, তখন জম্মু ও লাদাখের বহু অংশ উপেক্ষিত এবং বঞ্চিত ছিল বলে দাবি করেন মোহন ভাগবত।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের অগস্টে জম্মু-কাশ্মীরে বিশেষ মর্যাদা বিলোপ করে কেন্দ্র। মোদী সরকারের এই সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করে আসছে কংগ্রেস সহ বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি। গত জুন মাসেই দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠকের পর পিডিপি প্রধান তথা জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি ঘোষণা করে দেন, উপত্যকায় ৩৭০ অনুচ্ছেদ ফিরিয়ে দেওয়া না হলে তিনি ভোটেই লড়বেন না। একই সুর শোনা গিয়েছে ন্যাশনাল কনফারেন্সের নেতা তথা আরেক প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লার গলাতেও। তাঁরা প্রত্যেকেই ৩৭০ ধারা ফিরিয়ে দেওয়ার দাবিই জানিয়েছেন আসছেন।

এদিকে কংগ্রেস-সহ বিজেপি বিরোধী সব দলই উপত্যকায় ৩৭০ ধারা ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি জানিয়ে আসছে। এই প্রেক্ষিতে ৩৭০ অনুচ্ছেদ নিয়ে মন্তব্য করতে শোনা গেল বিজেপির মতাদর্শগত গুরু আরএসএসের প্রধান মোহন ভাগবতকে।

কয়েকদিন আগে হিন্দুদের ধর্মান্তরিত করার প্রক্রিয়া কীভাবে আটকানো যায়, তা নিয়ে মন্তব্য করতে শোনা গিয়েছিল তাঁকে। বিশেষ করে অল্প বয়সি হিন্দু ছেলেমেয়েদের ধর্মান্তরিত (conversion of Hindus) হওয়া কখনও কাম্য নয় বলে মনে করেন রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ প্রধান মোহন ভাগবত (RSS Chief Mohan Bhagwat)। হিন্দু তরুণ, তরুণীদের নিজেদের ধর্ম ও ঐতিহ্য সম্পর্ক গর্ববোধ করা উচিত বলে মনে করছেন ভাগবত। তিনি বলেন, অনেকে ভালবেসে বিয়ে করে ধর্ম পরিবর্তন করেন। তা মোটেই কাম্য নয়।

আরও পড়ুন: Chhatisgarh: রাতে পুরুষদের এক পেগ মদ খেয়ে ঘুমোতে দিন, মহিলাদের পরামর্শ নারী ও শিশুকল্যাণ মন্ত্রীর!

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla