ঘুষ দিয়ে চলছে হাসপাতালের শয্যা কেনা-বেচা, বেঙ্গালুরু পৌরসভার গোপন চক্র ফাঁস তেজস্বী সূর্যের

বিজেপি নেতা অভিযোগ করেন যে, কোভিড মহামারীর সুযোগে বৃহৎ বেঙ্গালুরু মহানগর পালিকা ও স্বাস্থ্যকর্মীরা হাসপাতালে বেড কেনা-বেচার চক্র চালাচ্ছে। এরফলে সাধারণ মানুষ, যাদের চিকিৎসার প্রয়োজন, তাঁরা মারা যাচ্ছেন।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 8:12 AM, 5 May 2021
ঘুষ দিয়ে চলছে হাসপাতালের শয্যা কেনা-বেচা, বেঙ্গালুরু পৌরসভার গোপন চক্র ফাঁস তেজস্বী সূর্যের
প্রতীকী চিত্র।

বেঙ্গালুরু: কোভিডকালে যেখানে দেশজুড়ে হাসপাতালে শয্যার আকাল দেখা দিয়েছে, সেখানেই “বেড কেনা-বেচা” চলছে বেঙ্গালুরুতে। এমনই অভিযোগ এনেছিলেন বিজেপির দক্ষিণ বেঙ্গালুরুর সাংসদ তেজস্বী সূর্য। অভিযোগের আঙুল তুলেছিলেন পুরসভা ও স্বাস্থ্যকর্মীদের বিরুদ্ধেই। ইতিমধ্যেই তাঁর দাবির ভিত্তিতে দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার ও এক ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, রোহিত ও নেত্রা নামক দুই ব্যক্তি ২৫ থেকে ৫০ হাজার টাকায় করোনা রোগীদের কাছে বেড বিক্রি করছিলেন। তাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে ১,০৫ লাখ টাকা উদ্ধারও করা হয়েছে।

সম্প্রতিই বিজেপি নেতা অভিযোগ করেন যে, কোভিড মহামারীর সুযোগে বৃহৎ বেঙ্গালুরু মহানগর পালিকা ও স্বাস্থ্যকর্মীরা হাসপাতালে বেড কেনা-বেচার চক্র চালাচ্ছে। এরফলে সাধারণ মানুষ, যাদের চিকিৎসার প্রয়োজন, তাঁরা মারা যাচ্ছেন। তিনি বলেন, “বিবিএমপি বুকিং সাইটে দেখা যাচ্ছে যে সমস্ত বেড ভর্তি, এদিকে প্রতিদিনই বহু মানুষ সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাচ্ছেন। আরোগ্য মিত্র ও বিবিএমপি আধিকারিকরা মিলেই কোনও একটি চক্র চালাচ্ছেন। হাসপাতালের বাইরে দালালও দাঁড় করানো থাকছে।”

তেজস্বীর দাবি, হোম-আইসোলেশনে থাকা রোগীদের নামে হাসপাতালের বেড বুক করা হচ্ছে। যেহেতু তাঁরা জানেনই না, সেই কারণে হাসপাতালেও আসছেন না। সেই সময়েই বেড ফাঁকা থাকার সুযোগে সেগুলি অন্যান্য রোগীদের কাছে চড়া দামে বিক্রি করা হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা এই বিষয়ে পদক্ষোপ করবেন বলেও জানা গিয়েছে।

বেঙ্গালুরুর পুলিশ কমিশনার কমল পান্থ জানান, গোটা ঘটনার তদন্তের দায়িত্ব কেব্দ্রীয় অপরাধদমন শাখার হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে এবং জয়নগর পুলিশ স্টেশনে একটি মামলাও দায়ের করা হয়েছে। যদিও বৃহৎ বেঙ্গালুরু নগরপালিকার তরফে এই বিষয়ে কোনও জবাব দেওয়া হয়নি।

তবে কংগ্রেসের তরফে তেজস্বী সূর্যের এই কাজকে সাধুবাদ জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন: বিনা চিকিৎসায় মৃত্যু করোনা রোগীর, অ্যাম্বুলেন্সের চড়া দর দিতে না পারায় রিক্সাতেই নিয়ে যেতে হল দেহ!