স্যানিটাইজার কারখানায় বিধ্বংসী আগুন, মৃত কমপক্ষে ১৮, ক্ষতিপূরণ ঘোষণা মোদীর

মারাত্মক গতিবেগে আগুন (Pune Fire Accident) ছড়িয়ে পড়ছে। ভেতরে কমপক্ষে ১২ জন কর্মচারী আটকে রয়েছেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

স্যানিটাইজার কারখানায় বিধ্বংসী আগুন, মৃত কমপক্ষে ১৮, ক্ষতিপূরণ ঘোষণা মোদীর
ছবি- টুইটার

মুম্বই: রাসায়নিক কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে মৃত্যু হয়েছে অন্তত ১৪ জনের। মহারাষ্ট্রের পুনের স্যানিটাইজার কারখানায় এই ভয়াবহ আগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। ১৪ জনই ওই কারখানার কর্মী বলে জানা গিয়েছে।

সূত্রের খবর, সোমবার বিকেলে মহারাষ্ট্রের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহরের একটি স্যানিটাইজার কারখানায় এই আগুন লাগে। মারাত্মক গতিবেগে আগুন ছড়িয়ে পড়ছে। ভেতরে বেশ কয়েক জন কর্মী এখনও আটকে রয়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। যেহেতু স্যানিটাইজার তৈরি করতে অ্যালকোহল ব্যবহৃত হয় এবং এটি আগুনে সংস্পর্শে এলেই জ্বলে ওঠে, সেই কারণে বড় বিপত্তির আশঙ্কা এড়িয়ে যাওয়া যাচ্ছে না। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে দমকলের একাধিক ইঞ্জিন।

আরও পড়ুন: ‘বিনামূল্যে রেশন’, ৮০ কোটি ভারতীয়র জন্য বড় ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর

সূত্রের খবর, এসভিএস অ্যাকোয়া টেকনোলজিস নামে ওই সংস্থায় এ দিন অন্তত ৩৭ জন কাজ করছিলেন, যখন আগুন লাগে। দমকলের চেষ্টায় ২০ জনকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। ১৪ জন কর্মীর মৃতদেহ বের করে আনা হয়েছে কারখানা থেকে। ভিতরে এখনও কারা আটকে আছে, তার খোঁজ চালাচ্ছে দমকলবাহিনী। আগুন বেশ কিছুক্ষণের চেষ্টায় আপাতত নিয়ন্ত্রণে এসেছে।

স্যানিটাইজার দাহ্য পদার্থ, তাই প্রাথমিকভাবে অনুমান করা হচ্ছে সেই স্যানিটাইজার তৈরি করতে গিয়েই কোনও রাসায়নিক বিক্রিয়া থেকে আগুন লেগে যায়। পরে সেই আগুনই ছড়িয়ে পড়ে ক্রমশ। কারখানা থেকে কালো ধোঁয়ার কুণ্ডলী বেরতে দেখা যাচ্ছে। সেই ধোঁয়া দেখে স্বাভাবিকভাবেই আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে এলাকায়। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার চেষ্টা করছে। দমকল এখনও আগুন লাগার কারণ নিয়ে স্পষ্টভাবে কিছু জানায়নি।

এই ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ক্ষতিপূরণ হিসেবে মৃতদের পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা ও আহতদের ৫০ হাজার টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন তিনি।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla