Goa MLA supports TMC: তৃণমূলকে সমর্থন করলেন আরও এক বিধায়কের! স্বাগত জানালেন মমতা

Prasad Gaonkar: ধীরে ধীরে গোয়াতেও সংগঠন মজবুত হচ্ছে তৃণমূলের। ইতিমধ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে লড়াইয়ে সহমত হয়েছেন সে রাজ্যের প্রাক্তন কংগ্রেস মুখ্যমন্ত্রী।

Goa MLA supports TMC: তৃণমূলকে সমর্থন করলেন আরও এক বিধায়কের! স্বাগত জানালেন মমতা
গোয়ায় সমর্থন বাড়ছে তৃণমূলের

কলকাতা : বাংলার বাইরেও নজর তৃণমূলের (TMC)। ইতিমধ্যে বিজেপি শাসিত সমস্ত রাজ্যে লড়াই করার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন এই মুহূর্তে শাসকদলের সেকেন্ড ইন কমান্ড অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। একেবারে সমূলে উৎখাত করার ডাক দিয়েছেন তিনি। আর এরপরেই একের পর এক বিজেপি শাসিত রাজ্যে ঘর গোছাতে শুরু করেছে তৃণমূল। ইতিমধ্যে ত্রিপুরাতে (Tripura) নিজেদের সংগঠনকে মজবুত করার চেষ্টা করছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) দল। তবে ত্রিপুরাতে বিধানসভা নির্বাচনের আগে ভোট রয়েছে গোয়াতে। আর সেই লক্ষ্যেই সে রাজ্যে এই মুহূর্তে বিশেষ নজর অভিষেক এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। মমতাকে সমর্থন করলেন গোয়ার (Goa) এক বিধায়ক।

সে রাজ্যে একেবারে মাটি কামড়ে পড়ে রয়েছেন ডেরেক ও ব্রায়েন। তবে ধীরে ধীরে গোয়াতেও সংগঠন মজবুত হচ্ছে তৃণমূলের। ইতিমধ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে লড়াইয়ে সহমত হয়েছেন সে রাজ্যের প্রাক্তন কংগ্রেস মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর সঙ্গে যোগ দিয়েছেন একাধিক অনুগামী। একেবারে তৃণমূল স্তর থেকে সংগঠনকে মজবুত করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। এবার মমতাকে সমর্থন করলেন গোয়ার এক বিধায়ক। গোয়ার একমাত্র নির্দল বিধায়ক প্রসাদ গাঁওকর আজ বুধবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সমর্থন করার কথা জানিয়েছেন।

ইতিমধ্যে তাঁর ভাই সহ কয়েকজন গোয়াতে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। এবার বাংলার শাসকদল সে রাজ্যে সাপোর্ট করার সিদ্ধান্ত প্রসাদ গাঁওকরের। উল্লেখ্য, গোয়ার একমাত্র নির্দল বিধায়ক প্রসাদ গাঁওকর জুলাই মাসে কংগ্রেসকে সমর্থন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। আজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে কার্যত কংগ্রেসকে তুলোধনা করেন তিনি। প্রসাদ গাঁওকর বলেন, বিজেপির বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলতে ব্যর্থ কংগ্রেস। শুধু তাই নয়, সংগঠনের অবস্থাও তথৈবচ। এই অবস্থায় তাই তৃণমূল কংগ্রেসকে সাপোর্ট করার সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছেন প্রসাদ গাঁওকর। তাঁর মতে, গোয়া সহ দেশে এই মুহুতে একাধিক ইস্যুতে কংগ্রেসের উচিৎ আওয়াজ তোলা, আন্দোলনে নামা। কিন্তু তা হচ্ছে না। আর সেই কারণেই তাঁর তৃণমূল যোগ বলে জানিয়েছেন প্রসাদ। তবে আগামী ২০২২ সালে গোয়াতে বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের হয়ে লড়বেন কিনা সেই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নেবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। উল্লেখ্য, ইতিমধ্যে নির্দল বিধায়ক প্রসাদ গাওকর তৃণমূলকে সমথন করার জন্যে স্বাগত জানিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। টুইটে স্বাগত জানিয়েছেন তিনি।

উল্লেখ্য, এর আগে বিজেপিকে সমর্থন জানিয়েছিলেন নির্দল বিধায়ক প্রসাদ গাঁওকর। তৎকালীন সে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মনোহার পারিক্করকে সমর্থন জানিয়েছিলেন তিনি। তবে বদল ঘটে সে রাজ্যের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটের। আর এরপরেই বিজেপির উপর থেকে সমর্থন তুলে নেন প্রসাদ। তবে তৃণমূলকে সমর্থন করে বিজেপির ওপর চাপ বাড়াতে চান গোয়ার একমাত্র এই বিধায়ক।

কয়েকদিন আগেই গোয়ার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা কংগ্রেসের দীর্ঘদিনের নেতা লুইজ়িনহো ফেলেইরো তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। রীতিমতো সদলবলে মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের দলে এসেছেন তিনি। নবান্নে এসে তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের সঙ্গে একটি বৈঠকও করেন। এরপরই তৃণমূল ভবনে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে তৃণমূলে যোগ দেন তিনি। লুইজিনহো তৃণমূলে শামিল হওয়ার পরই পরপর তিনটি টুইট করে তাঁকে দলে স্বাগত জানান তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সাত বারের বিধায়ক তথা প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর তৃণমূলে যোগদান গর্বের বিষয় বলে উল্লেখ করেন তৃণমূল নেত্রী। লুইজিনহো-সহ মোট ১০ জন এ দিন তৃণমূলে যোগদান করেন। লুইজিনহোর সঙ্গে এক বিধায়ক ও কংগ্রেস প্রদেশ কমিটির একাধিক সম্পাদক ও সহ-সম্পাদকও যোগ দেন তৃণমূলে।

এরপরই ভারতের জাতীয় ফুটবল দলের প্রাক্তন ডিফেন্ডার ডেনজ়িল ফ্রাঙ্কো এবং গোয়া বক্সিং অ্যাসোসিয়েশনের সহ সভাপতি লেনি ডি গামাও যোগ দেন তৃণমূলে। বাংলার মতো গোয়াতেও ফুটবলের প্রতি বিশেষ টান রয়েছে। বিভিন্ন ঘরোয়া লিগের খেলাগুলিতে তার একটি স্পষ্ট প্রতিফলনও দেখা যায়। আর এই বিষয়টিকেই কাজে লাগাতে চাইছে তৃণমূল। বিশেষ করে গোয়ার ক্রিড়াপ্রেমী ভোটারদের তৃণমূলের দিকে ঘোরাতে এই দু’জন বিশেষ ভূমিকা নিতে পারেন বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। এরই মধ্যে আরও এক বিধায়কের যোগদানের সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।

আরও পড়ুন: President in Kashmir: নবমীতেই জম্মু-কাশ্মীরে রাষ্ট্রপতি কোবিন্দ, দশেরা কাটাবেন সেনা-জওয়ানদের সঙ্গেই

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla