৫০ শতাংশ পড়ুয়া নিয়ে স্কুল খুলল ত্রিপুরায়

মন্ত্রী বলেন, "আমি প্রস্তুতি খতিয়ে দেখার জন্য কয়েকটি স্কুলে গিয়েছিলাম। এখানকার মহিলা কলেজেও গিয়েছিলাম। প্রস্তুতি দেখে আমি খুশি। অনেক শিক্ষক-শিক্ষিকারাও স্কুলে এসেছেন।"

৫০ শতাংশ পড়ুয়া নিয়ে স্কুল খুলল ত্রিপুরায়
ফাইল চিত্র

আগরতলা: সোমবার স্কুল খুলল ত্রিপুরায় (Tripura)। দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের নিয়ে পঠন পাঠন শুরু হল বিপ্লব দেবের রাজ্যে। করোনা (COVID-19) অতিমারির কারণে দীর্ঘ দিন ধরে বন্ধ ছিল স্কুল। সোমবারই পড়ুয়াদের জন্য খুলে গেল স্কুলের তালা। অতিমারির লম্বা ‘লকডাউন’ কাটিয়ে স্কুল খোলার প্রথম দিনই সেখানে পৌছে গিয়ে ছিলেন সে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী রতন লাল নাথ।

আগরতলায় স্কুল পরিদর্শনের পর মন্ত্রী জানান, বোর্ড পরীক্ষার জন্য দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির পঠন পাঠন চালু করা হয়েছে। মন্ত্রী বলেন, “আমি প্রস্তুতি খতিয়ে দেখার জন্য কয়েকটি স্কুলে গিয়েছিলাম। এখানকার মহিলা কলেজেও গিয়েছিলাম। প্রস্তুতি দেখে আমি খুশি। অনেক শিক্ষক-শিক্ষিকারাও স্কুলে এসেছেন।”

এতদিন স্কুল খোলার আগে পর্যন্ত অনলাইনে পঠন পাঠন চলছিল ত্রিপুরায়। ডিসেম্বরের ১ তারিখ থেকেই স্কুলে পড়াশোনা শুরু করতে চেয়েছিল ত্রিপুরা সরকার। কিন্তু স্বাস্থ্য বিভাগের ছাড়পত্র তখন মেলেনি। তারপর ছাড়পত্র মেলায় ৭ তারিখ খুলল স্কুল। প্রথমে ৫০ শতাংশ ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে পড়াশোনা শুরু হয়েছে ত্রিপুরার স্কুলগুলিতে। প্রত্যেকটি স্কুলকেই একটি নির্দেশিকা দেওয়া হয়েছে সরকারের তরফে।

আরও পড়ুন: ডিরেক্টর পদে দিনমজুর! ব্যাঙ্কে ১৭০ কোটির কালো টাকা, নাস্তানাবুদ আয়কর বিভাগ

প্রত্যেক স্কুল কর্তৃপক্ষই নিজেদের মতো সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার ব্যবস্থা নিয়েছে। কোনও স্কুলে ক্রমিক সংখ্যা অনুযায়ী জোড়-বিজোড়দের জন্য ভিন্ন দিন কিংবা ছেলে মেয়েদের জন্য আলাদা দিনে পঠন পাঠনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। তবে প্রত্যেক পড়ুয়াকেই বাবা-মায়ের সম্মতি পত্র নিয়ে স্কুলে আসতে হবে এবং মাস্ক ও সামাজিক দূরত্ব আবশ্যক।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla