২২-এও অভিষেকের পদযাত্রায় অনুমতি না মিললে কোর্টে যাওয়ার হুঁশিয়ারি তৃণমূলের

Abhishek Banerjee Rally: ত্রিপুরায় অভিষেকের পদযাত্রার পরপর দুটি তারিখ বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। ২২ তারিখের জন্য চাওয়া হল অনুমতি।

২২-এও অভিষেকের পদযাত্রায় অনুমতি না মিললে কোর্টে যাওয়ার হুঁশিয়ারি তৃণমূলের
ছবি- টুইটার

আগরতলা: অভিষেকের পদযাত্রার পরপর দুটি দিন বাতিল করে হয়ে গিয়েছে ত্রিপুরায় (TMC)। বিপ্লব দেব সরকারের বিরুদদ্ধে ক্ষোভে ফুঁসছে তৃণমূল (TMC)। ফের নতিন একটি ধার্য করা হয়েছে  অভিষেকের বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Abhishek Banerjee) রাজনৈতিক কর্মসূচির জন্য। আর সেই দিনও যদি অনুমতি না দেওয়া হয়, তাহলে আদালত পর্যন্ত যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছে ঘাসফুল শিবির। এর আগে ১৫ সেপ্টেম্বর ও ১৬ সেপ্টেম্বর অভিষেকের পদযাত্রা কর্মসূচি বাতিল করে দেওয়া হয়। এ বার ২২ সেপ্টেম্বর পদযাত্রার অনুমতি চেয়ে চিঠি দিল ত্রিপুরা তৃণমূল। অন্যান্য রাজনৈতিক দলকে সভা-মিছিল করার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে, তাই চিঠিতে তৃণমূলের দাবি তাদেরকেও সেই সুযোগ দিতে হবে। তৃণমূলের নেতৃত্বের দাবি, ২২ তারিখেও যদি অনুমতি না মেলে তাহলে আদালতে যেতে পিছপা হবে না তারা।

ত্রিপুরা তৃণমূলের তরফে দাবি করা হয়েছে, ২২ তারিখে অন্য কোনও রাজনৈতিক দলের কর্মসুচি নেইই দেখেই এই দিনটাকে বেছে নেওয়া হয়েছে। যাতে কোনও অসুবিধা না হয়, সেই সব দিক মাথায় রেখেই নতুন দিন বেছে নেওয়া হয়েছে বলে দাবি করেছে তৃণমূল। তারা চিঠিতে উল্লেখ করেছে, ‘অন্যান্য রাজনৈতিক দলকে যখন সুযোগ দেওয়া হচ্ছে, তখন আমাদেরও সেই সুবিধা দিতে হবে।’ দুপুর ২টো থেকে সেই পদযাত্রা হবে বলে জানানো হয়েছে চিঠিতে।

গতকালই এই ইস্যুতে ক্ষোভ প্রকাশ করে টুইট করেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। কার্যত হুঁশিয়ারির সুরে অভিষেক লেখেন, শত চেষ্টা করেও তাঁকে রোখা যাবে না। এ দিকে তৃণমূলের অন্দরে চলছে অন্য পরিকল্পনা। বার বার দলের শীর্ষ নেতৃত্বের কর্মসূচিতে ত্রিপুরা প্রশাসনের বাধা প্রদানের পর নতুন করে ঘুঁটি সাজাচ্ছে তারাও। তৃণমূলের অভিযোগ, যে ভাবে তাদের একের পর এক কর্মসূচি বাতিল করা হচ্ছে, তা গণতন্ত্রের পক্ষে লজ্জাজনক। সূত্রের খবর, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কর্মসূচি যে ভাবে নিয়মিত বাতিল করতে হচ্ছে, তাতে নতুন রণকৌশল সাজাচ্ছে তৃণমূল। এবার থেকে আর আগে ভাগে ঘোষণা করে অভিষেক ত্রিপুরা সফর করবেন না বলেই সূত্রের দাবি। বরং তৃণমূলের প্রতিনিধিরা আগে ত্রিপুরা পৌঁছে যাবেন। তার পর সেখানে গিয়ে কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

১৬ তারিখের কর্মসূচি বাতিলের খবর আসতেই দলীয় নেতারা বৈঠকে বসেন সোমবার। সূত্রের খবর, অভিষেকও সেখানে ত্রিপুরা প্রশাসনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন। তৃণমূল সূত্রে খবর, সেই বৈঠক থেকেই মূলত উঠে এসেছে, আগাম কোনও কিছু না জানিয়ে ‘সারপ্রাইজ’ কর্মসূচিতে নামবে দল।

গত ১৫ সেপ্টেম্বর আগরতলার রবীন্দ্রভবন থেকে চৌমহনি পর্যন্ত পদযাত্রা করার কথা ছিল অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের। কিন্তু ত্রিপুরা পুলিশের তরফ থেকে থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়, এই পথে বুধবার অন্য একটি রাজনৈতিক দলের কর্মসূচি রয়েছে। ফলে দু’টি দলকে এক পথে একই সঙ্গে কর্মসূচির অনুমতি দেওয়া সম্ভব নয়। এরপর ১৬ সেপ্টেম্বরের জন্য অনুমতি দেওয়া হয়। কিন্তু সূত্রের খবর, সেই কর্মসূচিরও অনুমতি মেলেনি। কারণ হিসাবে সে রাজ্যের পুলিশ জানিয়েছে, বিশ্বকর্মা পুজোয় যানজটের আশঙ্কার জন্য এই সিদ্ধান্ত। এ বার ২২ তারিখ অনুমতি মিলবে কি না, সেই উত্তর আসেনি এখনও।

আরও পড়ুন: অকারণে বারবার স্বামী-স্ত্রীর মামলায় ডিভোর্স হওয়া সম্ভব, জানাল সুপ্রিম কোর্ট

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla