Anurag Thakur: কে বলবে তিনি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী! যানজট কাটাতে যাত্রীদের সঙ্গেই বাস ঠেললেন অনুরাগ ঠাকুর

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: ঈপ্সা চ্যাটার্জী

Updated on: Nov 09, 2022 | 7:58 AM

Himachal Pradesh Assembly Election 2022: কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী হয়েও অনুরাগ ঠাকুর যেভাবে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন এবং বাকি সাধারণ যাত্রীদের মতোই বাস ঠেলতে হাত লাগান, তাতে আপ্লুত বাসের চালক ও যাত্রীরা।

Anurag Thakur: কে বলবে তিনি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী! যানজট কাটাতে যাত্রীদের সঙ্গেই বাস ঠেললেন অনুরাগ ঠাকুর
বাস ঠেলছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী।

সিমলা: রাস্তা জুড়ে গাড়ির লম্বা লাইন। কনভয় থেকে উকি মেরেই জিজ্ঞাসা করলেন কী হয়েছে? শুনলেন, সামনের রাস্তায় আটকে পড়েছে একটি বাস। সেই কারণেই রাস্তায় ব্যাপক জ্যাম। বাসটিকে বের না করা অবধি গাড়ি চলাচল শুরু করা সম্ভব নয়। ব্যাস আর কি, এই কথা শুনেই গাড়ি থেকে নেমে পড়লেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর (Anurag Thakur)। এগিয়ে গেলেন সাহায্য করতে। হিমাচল প্রদেশে (Himachal Pradesh) সাধারণ যাত্রীদের সঙ্গে বাস ঠেলতে দেখা গেল কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকেও।

চলতি মাসেই ১২ তারিখ হিমাচল প্রদেশে বিধানসভা নির্বাচন। তার আগেই বিজেপির হয়ে শেষ মুহূর্তের প্রচার সারতে গিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর। মঙ্গলবার বিলাসপুরে নির্বাচনী প্রচার চালাচ্ছিলেন তিনি। ফেরার পথেই ব্যাপক যানজটের মুখে পড়েন তিনি। বেশ কিছুক্ষণ অপেক্ষা করার পর তিনি জিজ্ঞাসা করেন কী কারণে এত যানজট। জানতে পারেন, সামনেই একটি বাস আটকে পড়েছে সরু রাস্তায়। গ্রামের কাঁচা রাস্তা হওয়ায়, অন্য কোনও গাড়িও পাশ থেকে যেতে পারছে না। এরপরেই গাড়ি থেকে নেমে পড়েন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। বাসের সামনে গিয়ে চালকের কাছে সমস্যা জানতে চান। এরপর বাসের অপর যাত্রীদের সঙ্গে তিনিও বাসটিকে সামনে থেকে ঠেলতে শুরু করেন। বাসটি উদ্ধারের পর তিনি চালক ও যাত্রীদের সঙ্গে মিনিট কয়েক কথা বলে ফের গাড়িতে ফিরে যান।

কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী হয়েও অনুরাগ ঠাকুর যেভাবে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন এবং বাকি সাধারণ যাত্রীদের মতোই বাস ঠেলতে হাত লাগান, তাতে আপ্লুত বাসের চালক ও যাত্রীরা। বাস চালককে কেন্দ্রীয়মন্ত্রীর হাত ধরে ধন্যবাদ জানাতেও দেখা যায়।

মঙ্গলবার বিলাসপুরে নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর বলেন, “আগামী নির্বাচনেও বিজেপি জয়ী হবে। আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে প্রত্যেকটি গ্রাম লোহার রাস্তায় সংযুক্ত হবে। সামগ্রিক পরিকাঠামোরই উন্নয়ন হবে। পরিবহণ পরিকাঠামোর উন্নয়নের জন্য আগামী ১০ বছরের মধ্যে প্রজেক্ট শক্তিও চালু করা হবে।”

উল্লেখ্য, আগামী ১২ নভেম্বর হিমাচল প্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন। আগামী ৮ ডিসেম্বর নির্বাচনের ফল প্রকাশ হবে।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla