Babul Supriyo: বুধেই শপথ বাবুলের, শপথ বাক্য পাঠ করাবেন ডেপুটি স্পিকারই

Babul Supriyo: বুধেই শপথ বাবুলের, শপথ বাক্য পাঠ করাবেন ডেপুটি স্পিকারই
শপথ নিলেন বাবুল সুপ্রিয়

West Bengal Assembly: শপথ বাক্য পাঠ করাবেন বিধানসভার ডেপুটি স্পিকার আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়ই। আগামিকাল দুপুর সাড়ে ১২ টায় বিধানসভার নৌসের আলি কক্ষে হবে শপথ গ্রহণ।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: Sanjoy Paikar

May 11, 2022 | 10:42 AM

কলকাতা : বালিগঞ্জের বিধানসভা উপনির্বাচনে জয়ী প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়র বিধায়ক পদে শপথ গ্রহণ ঘিরে জলঘোলা চলছিল বিগত বেশ কয়েকদিন ধরেই। এবার শেষ পর্যন্ত তাতে ইতি পড়তে চলেছে। আগামিকাল (বুধবার) বিধায়ক পদে শপথ নেবেন বাবুল সুপ্রিয়। শপথ বাক্য পাঠ করাবেন বিধানসভার ডেপুটি স্পিকার আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়ই। আগামিকাল দুপুর সাড়ে ১২ টায় বিধানসভার নৌসের আলি কক্ষে হবে শপথ গ্রহণ। অবশেষে বাবুলের বিধায়ক পদে শপথ গ্রহণ ঘিরে যাবতীয় জটিলতা কাটল বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। উল্লেখ্য, বিধায়কদের শপথবাক্য পাঠ করানোর সাংবিধানিক অধিকার রয়েছে রাজ্যপালের কাছে। কিন্তু, এ ক্ষেত্রে রাজ্যপাল চাইলে কারও উপর সেই শপথ পাঠ করানোর দায়িত্ব দিতে পারেন। সাধারণভাবে বিধায়কদের শপথ বাক্য পাঠ করানোর জন্য বিধানসভার অধ্যক্ষকেই মনোনীত করেন রাজ্যপাল। কিন্তু, বাবুল সুপ্রিয়র শপথ বাক্য পাঠ করানোর জন্য রাজ্যপাল মনোনীত করেছিলেন ডেপুটি স্পিকার আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়কে। আর তার জেরেই তৈরি হয়েছিল জটিলতা।

উল্লেখ্য,  রাজভবন থেকে বাবুল সুপ্রিয়কে শপথ বাক্য পাঠ করানোর দায়িত্ব ডেপুটি স্পিকারকে দেওয়া হলেও, ডেপুটি স্পিকার বেশ কয়েকবার জানিয়েছিলেন তিনি শারীরিক অসুস্থতার কারণে থাকতে পারবেন না। তবে এবার সেই সব জটিলতা কাটল। কোন পথে কাটল এই জটিলতা?অতীতেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শপথ ঘিরে এমন জটিলতা দেখা গিয়েছিল। সেই সময় প্রশাসনের সর্বোচ্চ স্তরের তরফে রাজভবনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছিল এবং তারপর রাজ্যপাল নিজে বিধানসভায় এসে মমতাকে শপথবাক্য পাঠ করিয়েছিলেন। এবারও প্রশাসনের সর্বোচ্চ স্তরের থেকে রাজ্যপালের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছিল বিষয়টি নিয়ে।

এই নিয়ে বাবুল সুপ্রিয় নিজেও রাজ্যপালের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন। অনুরোধ করেছিলেন বিষয়টি বিবেচনা করে দেখার জন্য। তবে তাতেও বিশেষ কাজ হয়নি সেই সময়। বাবুলকে কিছুটা ধমকই দিয়েছিলেন রাজ্যপাল। টুইটারে কড়া ভাষায় বলেছিলেন, বাবুলের এই ধরনের অনুরোধ সংবিধানের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। এই নিয়ে বিধানসভার তরফেও দফায় দফায় বৈঠক হয়। কয়েকদিন আগেই সরকার পক্ষের মুখ্য সচেতক নির্মল ঘোষ, তাপস রায়, পরিষদীয় মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় বৈঠকে বসেছিলেন এই জট কাটাতে। এমনও শোনা যাচ্ছিল যে সরকার পক্ষের একাংশ চাইছে, জটিলতা কাটাতে রাজ্যপাল এসেই শপথ বাক্য পাঠ করান। এবার সেই সব জট কাটতে চলেছে। আগামিকাল দুপুরে ডেপুটি স্পিকারের হাত ধরেই শপথ বাক্য পাঠ করাবেন ডেপুটি স্পিকার আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA