Bangladesh exporting Hilsa: মঙ্গলবারই আসছে পদ্মার ইলিশ, রসনাতৃপ্তির কোনও অভাব থাকবে না পুজোয়

Bangladeshi Hilsa in Kolkata Market: শুক্রবার থেকেই বাঙালির দুপুরের পাতে পড়তে পারে পদ্মার ইলিশ। এখনও পর্যন্ত যা জানা যাচ্ছে, এক একটি ইলিশের ওজন হবে ৮০০ থেকে ১২০০ গ্রাম।

Bangladesh exporting Hilsa:  মঙ্গলবারই আসছে পদ্মার ইলিশ, রসনাতৃপ্তির কোনও অভাব থাকবে না পুজোয়
বাংলাদেশ থেকে আরও ইলিশ আসছে রাজ্যে (ফাইল ছবি)

কলকাতা : পুজোয় এবার রসনাতৃপ্তির কোনও অভাব থাকবে না। মহালয়ার আগেই কলকাতার বাজারে আসছে পদ্মার ইলিশ। আগামী বুধবার থেকেই শহরে মিলবে পদ্মার ইলিশ। দুর্গাপুজো উপলক্ষ্যে ওপার বাংলা থেকে ‘উপহার’ পাঠাচ্ছেন শেখ হাসিনা। আসছে ২ হাজার ৮০ মেট্রিক টন ইলিশ।

আজ ঢাকা সচিবালয় থেকে এক বিজ্ঞপ্তি জারি করে এ কথা জানানো হয়েছে। ১১ অক্টোবর ষষ্ঠী। আর তার আগেই পুটো ২ হাজার ৮০ মেট্রিক টন ইলিশ পৌঁছে যাবে রাজ্যে। বাংলাদেশ বাণিজ্য মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, আসন্ন দুর্গাপুজো উপলক্ষ্যে ভারতে ইলিশ রফতানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। আগামী ১০ অক্টোবরের মধ্যে ধাপে ধাপে ইলিশ আসবে ওপার বাংলা থেকে।

প্রতিদিন ১০০ – ২০০ মেট্রিক টন ইলিশ আমদানি করা হবে এ দেশে। মঙ্গল- বুধবার থেকে শুরু হচ্ছে আমদানি প্রক্রিয়া। সবকিছু ঠিক থাকলে, শুক্রবার থেকেই বাঙালির দুপুরের পাতে পড়তে পারে পদ্মার ইলিশ। এখনও পর্যন্ত যা জানা যাচ্ছে, এক একটি ইলিশের ওজন হবে ৮০০ থেকে ১২০০ গ্রাম।

বাংলাদেশ বাণিজ্য মন্ত্রকের থেকে জানানো হয়েছে, মোট ৫২ টি বাণিজ্যিক সংস্থা প্রতিটি ৪০ মেট্রিক টন করে ইলিশ ভারতে রফতানি করার অনুমতি পেয়েছে। ২০১২ সাল থেকে ভারতে ইলিশ রফতানির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে বাংলাদেশ সরকার। তবে উৎসবের মরশুমে, বিশেষ করে দুর্গাপুজোর সময় মাঝে মধ্যেই পদ্মার ইলিশের উপর রফতানিতে ছাড় দিয়েছেন শেখ হাসিনা। গতবছরও প্রায় ৫০০ টন ইলিশ এসেছিল পুজোর সময়।

তবে এবার প্রায় চার গুণ। দু’হাজার টনেরও বেশি পরিমাণে ইলিশ আসছে এই বছর। স্বাভাবিকভাবেই এই খবরে খুশি ইলিশ-বিলাসী বাঙালিরা। তবে একইসঙ্গে চিন্তা থাকছে, বাজারে এলেও নাগালে আসলে তো? নাকি শুধু মাছের দাম দেখেই ফিরে আসতে হবে? কলকাতার বাজারগুলিতে এই ইলিশের কী দাম উঠতে পারে, তা নিয়ে এখনও স্পষ্টভাবে কিছু অনুমান করা যাচ্ছে না। তবে এত বিশাল পরিমাণে পদ্মার ইলিশ অতীতে কবে এসেছিল, তা মনে করা কঠিন। সেদিক থেকে দেখলে, বাজারে দাম কিছুটা বেশি হলেও মধ্যবিত্তের নাগালের থেকে একেবারে বেরিয়ে যাবে না বলেই আশা করছেন অনেকে।

এদিকে কলকাতার বাজারে এখনও পর্যন্ত তেমনভাবে ইলিশের দেখা নেই। যেগুলি পাওয়া যাচ্ছে, সেগুলিও অনেক ছোট। বড় ইলিশের দেখা একেবারে নেই বললেই চলে। আর এই পরিস্থিতিতে বাজারে ক্রেতাদেরও একটি বড় অংশ ইলিশ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন। যাঁরা কিনছেন, তাঁরা কিছুটা উপায় না পেয়েই কিনছেন। তবে পদ্মার ইলিশ বাজারে এলে, পুজোর মরশুমে ইলিশ বিক্রিও বাড়বে বলে আশা করছেন বিক্রেতারা।

আরও পড়ুন: বিশ্বকর্মা পুজোর আগের দিন ‘রান্না পুজো’, কত রকম পদ রান্না করার নিয়ম জানেন?

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla