Justice Abhijit Gangopadhyay: বিচার ক্ষমতার সর্বোচ্চ প্রয়োগ করেছি, সমালোচিত হয়েছি, আরও হতে রাজি : বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়

Job Seekers Protest: বিচারপতির বক্তব্য, "বাড়ি বসে আন্দোলন হয় না। আমি বঞ্চিত, অথচ আমি আন্দোলনে নেই। সে ক্ষেত্রে তাঁদের আবেদনে কেন সাড়া দেবে আদালত?"

Justice Abhijit Gangopadhyay: বিচার ক্ষমতার সর্বোচ্চ প্রয়োগ করেছি, সমালোচিত হয়েছি, আরও হতে রাজি : বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়
বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Soumya Saha

Jul 29, 2022 | 8:50 PM

কলকাতা : নিয়োগ দুর্নীতি সংক্রান্ত বিষয়ে একগুচ্ছ মামলার শুনানি চলছে কলকাতা হাইকোর্টের (Calcutta High Court) বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে। বিভিন্ন সময়ে তাঁর বিভিন্ন নির্দেশ এবং পর্যবেক্ষণ, রাজ্যের শাসক শিবিরকে অস্বস্তিতে ফেলেছে। সাম্প্রতিককালে এই সব মামলাগুলি নিয়ে যথেষ্ট চর্চাতেও রয়েছেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। শুক্রবার আদালতে নবম-দশম মামলার শুনানি চলাকালীন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, “আমি বিচার ক্ষমতার সর্বোচ্চ প্রয়োগ করেছি। তাতে আমি সমালোচিত হয়েছি। আমি আরও সমালোচিত হতে রাজি আছি।” বিচারপতির বক্তব্য, “বাড়ি বসে আন্দোলন হয় না। আমি বঞ্চিত, অথচ আমি আন্দোলনে নেই। সে ক্ষেত্রে তাঁদের আবেদনে কেন সাড়া দেবে আদালত?”

প্রসঙ্গত, এদিন মামলার শুনানি চলাকালীন এক আন্দোলনকারীর উদ্দেশে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় প্রশ্ন করেন, গান্ধী মূর্তির নীচে কতজন আন্দোলনে বসে আছেন? জবাবে আন্দোলনকারী বিচারপতিকে জানান, ১৩০ জন। তবে আরও ৫৩০ জন রয়েছেন। এরপরই বিচারপতির পাল্টা প্রশ্ন, বাকিরা তাহলে কোথায়? তাঁরা কি বাড়ি থেকে আন্দোলন করছেন? বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের মন্তব্য, “একজন বাড়ি থেকে আন্দোলন করবেন। পরে আবার এসে পেনশনের দাবি জানাবেন, এটা হয় না।” সেই সঙ্গে তিনি আরও বলেন, “মোমবাতি নিয়ে মিছিল করলাম আর সামাজিক মাধ্যমে একটা করে বার্তা দিলাম। এভাবে আন্দোলন হয় না। আমার বিচার ক্ষমতার সর্বোচ্চ প্রয়োগ করেছি। তাতে আমি সমালোচিত হয়েছি। আমি আরও সমালোচিত রাজি আছি। কিন্তু প্রকৃত ভুক্তভোগীদের আদালতে আসতে হবে।”

এই খবরটিও পড়ুন

উল্লেখ্য, সাম্প্রতিককালে রাজ্যের নিয়োগ দুর্নীতি সংক্রান্ত বিভিন্ন মামলা উঠেছে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে। বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ পর্যবেক্ষণ এবং নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। ক্যান্সার আক্রান্ত চাকরিপ্রার্থী সোমা দাসের নিয়োগের নির্দেশ, পরেশ অধিকারীর মেয়ে অঙ্কিতা অধিকারীর চাকরি বাতিল, ববিতা সরকারকে চাকরিতে নিয়োগের নির্দেশ… এমন বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশ উঠে এসেছিল বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে। ববিতা সরকার নিজেও বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে ‘ভগবানতুল্য’ হিসেবে ব্যাখ্যা করেছেন।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla