‘হেরে গিয়ে বুঝতে পারলাম…’, মুকুলকে ‘স্বাধীনতা পরবর্তী মীরজাফর’ বললেন সৌমিত্র

একসময় মুকুলের ঘনিষ্ঠই ছিলেন এই সৌমিত্র খাঁ। মুকুলের পথ অনুসরণ করে তিনিও যোগ দিয়েছিলেন বিজেপিতে।

'হেরে গিয়ে বুঝতে পারলাম...', মুকুলকে 'স্বাধীনতা পরবর্তী মীরজাফর' বললেন সৌমিত্র
মুকুলকে 'মীরজাফর' বললেন সৌমিত্র

কলকাতা: শুক্রবারের সকালেই রাজ্য রাজনীতিতে চমক দিয়ে খবর আসে তৃণমূল ভবনে যাচ্ছেন মুকুল রায় (Mukul Roy)। আর কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই বাড়ি থেকে বেরিয়ে নিজেই সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে মুকুল রায় জানালেন তৃণমূল ভবনে যাচ্ছেন তিনি। কিছুক্ষণের মধ্যেই তিনি পৌঁছে গেলেন তৃণমূল ভবনে। ভিতরে যখন মমতা ও অভিষেকের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠক চলছে মুকুলের বাইরে তখন উৎসাহী কর্মীদের ভিড়। এরই মধ্যে গেরুয়া শিবিরে দেখা গেল বিশেষ তৎপরতা। দিল্লিতে অর্জুনের বাড়িতে ছুটে এলেন সৌমিত্র খাঁ (Soumitra Khan)। আর সেখান থেকেই মুকুলকে ‘মীরজাফর’ তকমা দিলেন তিনি।

বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ’র দাবি, মুকুল চলে যাওয়ায় বিজেপি সমৃদ্ধ হল। ‘এরকম মীরজাফরদের চিহ্নিত করতে সুবিধা হল’ বলে মন্তব্য করেছেন সৌমিত্র। তিনি বলেন, ‘হেরে গিয়ে বুঝতে পারলাম, এই মীরজাফররা আমাদের রাজনৈতিক জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলে।’ তাই দল শুদ্ধ হল বলেই মত সৌমিত্রের। তিনি মনে করেন, বিজেপি সনাতন ধর্মের জন্য লড়াই করে, তাই তাতে মীরজাফরদের জায়গা নেই। স্বাধীনতার পরে ফের বাংলা এক মীরজাফরকে দেখল বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

আরও পড়ুন: ‘আমি জানতাম এর থেকে বড় গদ্দার আর কেউ নেই’

বিষ্ণপুরের সাংসদ সৌমিত্র বলেন, ‘আমরা দলের জন্য লড়াই করেছিলাম। দলের জন্য আমরা জীবন দিতেও রাজি আছি। অন্য দিকে, দলে মুকুলের ভূমিক সম্পর্কে সৌমিত্রের মত, ‘উনি তো নিজের ছেলেকেই জেতাতে পারেনি।’ সারদা-নারদার অভিযোগ এড়াতেই মুকুল দল বদল করেছিলেন বলেও কটাক্ষ সৌমিত্রের। শুধু সৌমিত্র নন, আর এক সাংসদ অর্জুন সিং-ও মুকুল রায়কে বেইমান বলে উল্লেখ করেছেন।