Hair Care Tips: বছরভর চুলের যত্নে যে নিয়মগুলি অতি অবশ্যই মেনে চলবেন…

ভেজা চুলে চিরুনি একেবারেই দেওয়া যাবে না , চুল না শুকানো পর্যন্ত মাথা আঁচড়াবেন না। চুল ভেজা অবস্থায় কখনই বাঁধবেন না। ভেজা চুল চিরুনি দিয়ে আঁচড়ালে গোড়া নরম ও আলগা হয়ে যেতে পারে।

Hair Care Tips: বছরভর চুলের যত্নে যে নিয়মগুলি অতি অবশ্যই মেনে চলবেন...
সারাবছর চুলের যত্ন করার ক্ষেত্রে এই নিয়মগুলো মেনে চলুন অতি অবশ্যই।

চুল পড়া কিংবা চুলের ডগা ফাটা অথবা চুল রুক্ষ-শুষ্ক হয়ে যাওয়া- চুলের হাজার সমস্যায় জর্জরিত প্রায় সকলেই। তার মধ্যে রোজ যাঁদের বাড়ির বাইরে বেরোতে হয়, তাঁদের চুলের অবস্থা একটু বেশিই খারাপ হয়ে যায়। সেক্ষেত্রে সঠিক পদ্ধতিতে চুলের যত্ন নেওয়া প্রয়োজন। আর সেজন্য অতি অবশ্যই কয়েকটা সাধারণ নিয়ম মাথায় রাখতে হবে। বছরভর আপনি যেভাবেই চুলের যত্ন নিন না কেন, এই বেসিক রুল বা নিয়মগুলো মেনে চলতেই হবে। তাই একনজরে দেখে নিন, সারাবছর চুলের যত্ন নেওয়ার জন্য কোন কোন নিয়ম অতি অবশ্যই মেনে চলতে হবে।

১। কখনই খুব বেশি গরম জল দিয়ে চুল ধোবেন না। শীতকালে অনেকেই গরম জলে স্নান করেন। সেই সময় অতিরিক্ত গরম জলে মাথাও ধুয়ে ফেলেন। এটা করলে চুলের মারাত্মক ক্ষতি হয়। তাই শ্যাম্পু করার পর ফাইনাল ওয়াশের সময় ঠাণ্ডা জলেই চুল ধুয়ে নিন। যাঁদের ঠাণ্ডা লাগার ধাত রয়েছে, তাঁরা সামান্য গরম জল মিশিয়ে নিন। অর্থাৎ শুধুমাত্র ঠাণ্ডা কাটানো জল দিয়ে চুল ধুতে হবে। চেষ্টা করবেন হাল্কা শ্যাম্পু ব্যবহার করতে এবং তারপর রুক্ষ-শুষ্ক চুল নরম এবং উজ্জ্বল করতে কন্ডিশনার ব্যবহার করুন। তবে মাথার শ্যাম্পু এবং কন্ডিশনার ভাল করে ধুয়ে তুলে ফেলতে হবে। আর এর জন্য ঠাণ্ডা জলে চুল ধোয়া সবচেয়ে উপকারি।

২। কখনই গামছা বা তোয়ালে দিয়ে ঘষে ঘষে মাথা মুছবেন না। ভেজা অবস্থায় চুলের গোড়া নরম এবং আলগা থাকে। তার মধ্যে ঘষে ঘষে চুল মুছলে চুলের গোড়া আলগা হয়ে অতিরিক্ত চুল পড়ার সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই ভেজা চুল কখনই ঘষে ঘোষে মুছবেন না। এর পাশাপাশি গামছা বা তোয়ালে দিয়ে অনেকক্ষণ চুল পেঁচিয়ে রাখলেও একই সমস্যা দেখা দেয়। তাই নরম সুতির কাপড়ে আলতো হাতে চুলের জল প্রথমে মুছে নিন বা শুকিয়ে নিন। তারপর চুলের লেংথ পোরশনের জল মুছতে হবে। আর তালুর অংশের ক্ষেত্রে নরম সুতির কাপড় দিয়ে আলতো হাতে চেপে চেপে চুলের জল শুকিয়ে নিন। এরপর ফ্যানের তলায় চুল শুকিয়ে নেওয়াই ভাল। শীতকালে অনেকসময় প্রয়োজনে ড্রায়ার ব্যবহার করতে হয়। তবে যত কম ড্রায়ার ব্যবহার করবেন, চুল তত ভাল থাকবে।

৩। ভেজা চুলে চিরুনি একেবারেই দেওয়া যাবে না , চুল না শুকানো পর্যন্ত মাথা আঁচড়াবেন না। চুল ভেজা অবস্থায় কখনই বাঁধবেন না। ভেজা চুল চিরুনি দিয়ে আঁচড়ালে গোড়া নরম ও আলগা হয়ে যেতে পারে। ফাঙ্গাল ইনফেকশনও হতে পারে। তার থেকে চুলের অনেক বড় এবং জটিল সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই ভেজা অবস্থায় চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়ানো একেবারেই চলবে না। সেই সঙ্গে ভেজা চুল বাঁধাও খুবই ক্ষতিকর। আর একটা ব্যাপার মাথায় রাখবেন, কখনই খুব টাইট করে চুল বাঁধবেন না। এতে চুলের ক্ষতি তো হয়ই। সেই সঙ্গে আপনার মাথার যন্ত্রণাও শুরু হয়ে যেতে পারে।

আরও পড়ুন- Skincare Tips: ত্বকের পরিচর্যায় কীভাবে কাজে লাগে তিসির তেল বা flaxseed oil? জেনে নিন

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla