দেখুন গ্যালারি: বলিউডে অভিনেত্রী থেকে প্রযোজক হয়েছেন যাঁরা

বলিউডে গার্ল গ্যাং-এর শক্তি বাড়ছে। অভিনেত্রীরা ক্রমেই বসছেন প্রযোজকের আসনে। সম্প্রতি আলিয়া ভাট ও তাপসী পান্নুর প্রযোজক হওয়ার খবর সাড়া ফেলেছে। আরও অনেক অভিনেত্রী আছেন, যাঁরা প্রযোজনাতেও সমানভাবে সফল হয়েছেন।

1/8
অনুষ্কা শর্মা—বলিউডের সফলতম মহিলা পরিচালকদের তালিকায় অনুষ্কার নাম সকলের আগে আসবেই। অভিনয় আসার অল্পদিনের মাথায় সফল হয়েছেন তিনি। তারপরই বসেন প্রযোজকের আসনে। ভাই কর্ণিশের সঙ্গে ২০১৪ সালে তৈরি করেন নিজের প্রযোজনা সংস্থা 'ক্লিন স্লেট ফিল্মস'। পরী, এনএইচ১০-এর মতো ছবি করেছেন। ওটিটি প্ল্যাটফর্মের জন্য তৈরি করেছেন 'পাতাললোক' ও 'বুলবুল'। সবেতেই পেয়েছেন উচ্চ প্রশংসা ও সাফল্য।
অনুষ্কা শর্মা—বলিউডের সফলতম মহিলা পরিচালকদের তালিকায় অনুষ্কার নাম সকলের আগে আসবেই। অভিনয় আসার অল্পদিনের মাথায় সফল হয়েছেন তিনি। তারপরই বসেন প্রযোজকের আসনে। ভাই কর্ণিশের সঙ্গে ২০১৪ সালে তৈরি করেন নিজের প্রযোজনা সংস্থা 'ক্লিন স্লেট ফিল্মস'। পরী, এনএইচ১০-এর মতো ছবি করেছেন। ওটিটি প্ল্যাটফর্মের জন্য তৈরি করেছেন 'পাতাললোক' ও 'বুলবুল'। সবেতেই পেয়েছেন উচ্চ প্রশংসা ও সাফল্য।
2/8
দীপিকা পাড়ুকোন—তাঁর অভিনয়ে মুগ্ধ কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী। এহেন দীপিকার জীবনে এমন একটা সময় আসে, যখন তিনি ডিপ্রেশনের শিকার হন। সেই ডিপ্রেশন কাটিয়ে আজ দীপিকা সফল। অভিনয়ের পাশাপাশি বসেছেন বসেছেন প্রযোজকের আসনেও। তাঁর অভিনীত ছবি 'ছপাক' তাঁরই প্রযোজনায় তৈরি। অ্যাসিড আক্রান্ত এক নারীর চরিত্রে অভিনয় করে তাক লাগিয়েছিলেন দীপিকা। ছবিটি সমালোচিত হয়েছিল বহু জায়গায়।
দীপিকা পাড়ুকোন—তাঁর অভিনয়ে মুগ্ধ কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী। এহেন দীপিকার জীবনে এমন একটা সময় আসে, যখন তিনি ডিপ্রেশনের শিকার হন। সেই ডিপ্রেশন কাটিয়ে আজ দীপিকা সফল। অভিনয়ের পাশাপাশি বসেছেন বসেছেন প্রযোজকের আসনেও। তাঁর অভিনীত ছবি 'ছপাক' তাঁরই প্রযোজনায় তৈরি। অ্যাসিড আক্রান্ত এক নারীর চরিত্রে অভিনয় করে তাক লাগিয়েছিলেন দীপিকা। ছবিটি সমালোচিত হয়েছিল বহু জায়গায়।
3/8
মিস ওয়ার্ল্ড পেজেন্টে অংশগ্রহণ করেন প্রিয়াঙ্কা তখন তাঁর বয়স ১৮। ২০০০ সালে বিজয়ী হয়েছিলেন। পঞ্চম মিস ইন্ডিয়া যাঁর মাথায় উঠেছিল বিশ্বসুন্দরীর মুকুট। একই বছরে মিস ওয়ার্ল্ড কন্টিনেন্টাল কুইন অফ বিউটি অফ এশিয়া অ্যান্ড ওশেনিয়ার মুকুট অর্জন করেছিলেন প্রিয়াঙ্কা।
মিস ওয়ার্ল্ড পেজেন্টে অংশগ্রহণ করেন প্রিয়াঙ্কা তখন তাঁর বয়স ১৮। ২০০০ সালে বিজয়ী হয়েছিলেন। পঞ্চম মিস ইন্ডিয়া যাঁর মাথায় উঠেছিল বিশ্বসুন্দরীর মুকুট। একই বছরে মিস ওয়ার্ল্ড কন্টিনেন্টাল কুইন অফ বিউটি অফ এশিয়া অ্যান্ড ওশেনিয়ার মুকুট অর্জন করেছিলেন প্রিয়াঙ্কা।
4/8
দিয়া মির্জ়া—'রেহে না হ্যায় তেরে দিল মে' ছবির নায়িকা দিয়া মির্জাকে কে ভুলতে পারে। যদিও অভিনয়ে তেমন দাগ কাটতে পারেননি অভিনেত্রী। কিন্তু অনেকেই জানেন না দিয়া একজন প্রযোজক। তাঁর সংস্থার নাম 'বর্ন ফ্রি এন্টারটেইনমেন্ট'। ২০১১ সালে মুক্তি পায় দিয়ার প্রথম প্রযোজিত ছবি 'লাভ ব্রেকআপস জিন্দেগি'। ২০১৪ সালে মুক্তি পায় বিদ্যা বালন অভিনীত 'ববি জাসুস'।
দিয়া মির্জ়া—'রেহে না হ্যায় তেরে দিল মে' ছবির নায়িকা দিয়া মির্জাকে কে ভুলতে পারে। যদিও অভিনয়ে তেমন দাগ কাটতে পারেননি অভিনেত্রী। কিন্তু অনেকেই জানেন না দিয়া একজন প্রযোজক। তাঁর সংস্থার নাম 'বর্ন ফ্রি এন্টারটেইনমেন্ট'। ২০১১ সালে মুক্তি পায় দিয়ার প্রথম প্রযোজিত ছবি 'লাভ ব্রেকআপস জিন্দেগি'। ২০১৪ সালে মুক্তি পায় বিদ্যা বালন অভিনীত 'ববি জাসুস'।
5/8
মাধুরী দীক্ষিত—নব্বইয়ের দশকের অন্যতম অভিনেত্রী মাধুরী দীক্ষিত। দর্শক তাঁকে চিনেছেন অভিনেত্রী ও একজন নৃত্যশিল্পী হিসেবে। কিন্তু অনেকের কাছেই অজানা, যে মাধুরী একজন প্রযোজক। ২০১১ সালে কামব্যাক করার সময় স্বামী ডাঃ নেনের সঙ্গে তৈরি করেন তাঁর প্রযোজনা সংস্থা 'আরএনএম মুভিং পিকচার্স'। সম্প্রতি একটি আন্তর্জাতিক প্রজেক্টের জন্য হাত মিলিয়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার সঙ্গেও। মাধুরীর প্রযোজনা সংস্থা তৈরি করেছে মারাঠি ছবি 'বাকেট লিস্ট'। ২০২০ সালে নেটফ্লিক্সের জন্য '১৫ অগাস্ট' নামের একটি ছবিও বানিয়েছিলেন তিনি।
মাধুরী দীক্ষিত—নব্বইয়ের দশকের অন্যতম অভিনেত্রী মাধুরী দীক্ষিত। দর্শক তাঁকে চিনেছেন অভিনেত্রী ও একজন নৃত্যশিল্পী হিসেবে। কিন্তু অনেকের কাছেই অজানা, যে মাধুরী একজন প্রযোজক। ২০১১ সালে কামব্যাক করার সময় স্বামী ডাঃ নেনের সঙ্গে তৈরি করেন তাঁর প্রযোজনা সংস্থা 'আরএনএম মুভিং পিকচার্স'। সম্প্রতি একটি আন্তর্জাতিক প্রজেক্টের জন্য হাত মিলিয়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার সঙ্গেও। মাধুরীর প্রযোজনা সংস্থা তৈরি করেছে মারাঠি ছবি 'বাকেট লিস্ট'। ২০২০ সালে নেটফ্লিক্সের জন্য '১৫ অগাস্ট' নামের একটি ছবিও বানিয়েছিলেন তিনি।
6/8
টুইঙ্কেল খান্না—টুইঙ্কেল খান্নার 'মিসেস ফ্যানিবোনস' বইটি অনেকেই পড়েছেন হয়তো। একজন অভিনেত্রী ও লেখিকার পাশাপাশি কতজন জানেন টুইঙ্কেলের প্রযোজক পরিচয়? তাঁর সংস্থার নাম 'টুইঙ্কেল খান্না প্রোডাকশনস'। স্বামী ও অভিনেতা অক্ষয় কুমারের ছবির প্রযোজক তিনি। অক্ষয় অভিনীত 'প্যাডম্যান' প্রযোজনা করেছেন।
টুইঙ্কেল খান্না—টুইঙ্কেল খান্নার 'মিসেস ফ্যানিবোনস' বইটি অনেকেই পড়েছেন হয়তো। একজন অভিনেত্রী ও লেখিকার পাশাপাশি কতজন জানেন টুইঙ্কেলের প্রযোজক পরিচয়? তাঁর সংস্থার নাম 'টুইঙ্কেল খান্না প্রোডাকশনস'। স্বামী ও অভিনেতা অক্ষয় কুমারের ছবির প্রযোজক তিনি। অক্ষয় অভিনীত 'প্যাডম্যান' প্রযোজনা করেছেন।
7/8
আলিয়া ভাট—অভিনয় তাঁর প্রথম প্রেম। ছোট থেকেই অভিনেত্রী হতে চেয়েছিলেন আলিয়া। খুবই অল্প সময়ে সফল হন। এবার নিজের প্রযোজনা সংস্থা লঞ্চ করলেন ভাট পরিবারের কন্যা। সেই প্রযোজনা সংস্থার নাম 'ইটার্নাল সানসাইন প্রোডাকশনস'। ঘোষণা করেছেন প্রথম প্রযোজিত প্রজেক্টের নামও। 'ডার্লিংস'। শাহরুখ ও গৌরি খানের প্রযোজনা সংস্থা রেড চিলিজের সঙ্গে মিলে তৈরি হবে ছবি
আলিয়া ভাট—অভিনয় তাঁর প্রথম প্রেম। ছোট থেকেই অভিনেত্রী হতে চেয়েছিলেন আলিয়া। খুবই অল্প সময়ে সফল হন। এবার নিজের প্রযোজনা সংস্থা লঞ্চ করলেন ভাট পরিবারের কন্যা। সেই প্রযোজনা সংস্থার নাম 'ইটার্নাল সানসাইন প্রোডাকশনস'। ঘোষণা করেছেন প্রথম প্রযোজিত প্রজেক্টের নামও। 'ডার্লিংস'। শাহরুখ ও গৌরি খানের প্রযোজনা সংস্থা রেড চিলিজের সঙ্গে মিলে তৈরি হবে ছবি
8/8
‘পিঙ্ক’, ‘মুলক’, ‘থপ্পড়’-এর মতো ছবিতে ব্যতিক্রমী অভিনয়ের মাধ্যমে, তাপসী পান্নু নিজেকে বলিউডে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। তবে অনেকে জানেন না যে এর আগে তিনি নয়াদিল্লির গুরু তেজ বাহাদুর ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি থেকে কম্পিউটার সায়েন্স ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে স্নাতক শেষ করে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসাবে কাজ করেছিলেন। তিনি ‘গেট গর্জিয়াস’ নামে একটি চ্যানেলের শোয়ের জন্য অডিশন দিয়েছিলেন যা তাকে বিনোদনের ইন্ডাস্ট্রিতে নিয়ে এসেছে। তিনি তেলুগু চলচ্চিত্র, ‘ঝুম্মন্ডি নাদম’ (২০১০) ছবির মাধ্যমে আত্মপ্রকাশ করেন।
‘পিঙ্ক’, ‘মুলক’, ‘থপ্পড়’-এর মতো ছবিতে ব্যতিক্রমী অভিনয়ের মাধ্যমে, তাপসী পান্নু নিজেকে বলিউডে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। তবে অনেকে জানেন না যে এর আগে তিনি নয়াদিল্লির গুরু তেজ বাহাদুর ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি থেকে কম্পিউটার সায়েন্স ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে স্নাতক শেষ করে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসাবে কাজ করেছিলেন। তিনি ‘গেট গর্জিয়াস’ নামে একটি চ্যানেলের শোয়ের জন্য অডিশন দিয়েছিলেন যা তাকে বিনোদনের ইন্ডাস্ট্রিতে নিয়ে এসেছে। তিনি তেলুগু চলচ্চিত্র, ‘ঝুম্মন্ডি নাদম’ (২০১০) ছবির মাধ্যমে আত্মপ্রকাশ করেন।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla