বিরাটদের ম্যাচ প্র্যাকটিসের অভাব ভাবাচ্ছে দিলীপ বেঙ্গসকারকে

বিরাটরা সেভাবে ম্যাচ প্র্যাকটিসের সুযোগই পাচ্ছেন না WTC ফাইনালের আগে। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পথে এটাই না কাঁটা হয়ে দাঁড়ায় রোহিতদের কাছে, এমন আশঙ্কার কথাই বলছেন বেঙ্গসরকার।

বিরাটদের ম্যাচ প্র্যাকটিসের অভাব ভাবাচ্ছে দিলীপ বেঙ্গসকারকে
বিরাটদের ম্যাচ প্র্যাকটিসের অভাব ভাবাচ্ছে দিলীপ বেঙ্গসকারকে
Sanghamitra Chakraborty

|

Jun 06, 2021 | 5:51 PM

নয়াদিল্লি: সাউদাম্পটনে হতে চলা বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের (WTC Final) দিকে তাকিয়ে গোটা বিশ্ব। প্রাক্তন ক্রিকেটাররা নিজেদের মতামত দিয়ে, কেউ কেউ কোনও সময় এগিয়ে রাখছেন বিরাট কোহলির ভারতকে, কেউবা এগিয়ে রাখছেন কেন উইলিয়ামসনের নিউজিল্যান্ডকে। প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক দিলীপ বেঙ্গসকার (Dilip Vengsarkar) এ বার বললেন বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের আগে, ম্যাচ প্র্যাকটিসের অভাব টিম ইন্ডিয়ার কাছে খুব উদ্বেগের না হলেও বিরাট-রোহিতের পারফরম্যান্সে ছাপ ফেলতে পারে।

ভারতীয় ক্রিকেটের কর্নেল বলেছেন, “বিরাট কোহলি দীর্ঘদিন ধরে ক্রিকেট খেলে আসছে। এই মুহূর্তে ও বিশ্বের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান। বিরাট, রোহিতরা বিশ্বমানের ক্রিকেটার। ওরা সেরা পারফরম্যান্স দিয়ে ভারতকে অনেক ম্যাচ জিতিয়েছে ও সকলকে গর্ব করার সুযোগ করে দিয়েছে। দু’জনেই দারুণ ফর্মেও আছে। কিন্তু তবু আমার মনে হচ্ছে, বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালে ম্যাচ প্র্যাকটিসের অভাবের বিষয়টি ওদের ব্যাটিংকে প্রভাবিত করতে পারে।”

ভারতের থেকে নিউজিল্যান্ড খানিকটা এগিয়ে WTC ফাইনালে শুরু করবে। এমনটাই মনে করছেন জাতীয় নির্বাচন কমিটির প্রাক্তন প্রধান দিলীপ বেঙ্গসরকার। তিনি বলেছেন, “ভারত অত্যন্ত ভালো দল এবং এই মুহূর্তে ভালো ফর্মেও রয়েছে। নিউজিল্যান্ডের অ্যাডভান্টেজ হল তারা লো প্রোফাইল দল। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালের আগে ইংল্যান্ডে তারা যে দুটো টেস্ট ম্যাচ খেলছে সেটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে। এই কারণেই আমার মনে হয়, নিউজিল্যান্ড একটু হলেও এগিয়ে থাকবে। দুটো টেস্ট ম্যাচ খেলে পরিবেশের সঙ্গে তারা অনেকটাই মানিয়ে নেওয়ার সুযোগ পাচ্ছে।”

বিরাটরা সেভাবে ম্যাচ প্র্যাকটিসের সুযোগই পাচ্ছেন না WTC ফাইনালের আগে। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পথে এটাই না কাঁটা হয়ে দাঁড়ায় রোহিতদের কাছে, এমন আশঙ্কার কথাই বলছেন বেঙ্গসরকার। তিনি বলেছেন, “নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে নামার আগে ভারতীয় দলের পর্যাপ্ত পরিমাণে ম্যাচ খেলা উচিত ছিল। অন্তত দুই থেকে তিনটি প্র্যাকটিস ম্যাচ। এতে ভারতীয় ক্রিকেটারার ইংল্যান্ডের পরিবেশ, আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার সুযোগও পেত।”

লর্ডসের মাঠে তিনটি সেঞ্চুরি করা বেঙ্গসরকার বলছেন, “সব সময় ম্যাচ খেলে পিচে বেশি সময় কাটানো খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তবে তা শুধু ব্যাটসম্যান নয়, বোলারদের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য। নেট প্র্যাকটিস করা বা ম্যাচ পরিস্থিতি ধরে অনুশীলন করা আর ম্যাচ খেলার মধ্যে বিস্তর ফারাক রয়েছে। বিশেষ করে বড় ম্যাচ খেলার আগে প্রস্তুতি ভালো করে সারা প্রয়োজন।”

ভারতীয় ক্রিকেটের কর্নেলের কাছে ম্যাচ প্র্যাকটিসের গুরুত্ব আলাদা থাকলেও, ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি ইংল্যান্ডে রওনা দেওয়ার আগে প্রেস কনফারেন্সে জানিয়েছিলেন, ম্যাচ প্র্যাকটিসের অভাব ভারতীয় দলের পারফরম্যান্সে প্রভাব ফেলবে না। কোহলি বলেন, “অতীতে আমরা অন্য বিদেশ সফরে ম্যাচ শুরুর তিন দিন আগেও পৌঁছেছিলাম। তারপরও আমরা সেরা পারফরম্যান্স দিয়েই খেলেছিলাম। তাই এ বারও তার ব্যাতিক্রম হবে না। সব দিক মাথায় রয়েছে।”

আরও পড়ুন: সাউদাম্পটনে অনুশীলনে শুরু জাদেজার

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla