ধোনিকে দলে নেওয়ার জন্য সৌরভকে ১০ দিন কারণ বুঝিয়েছিলেন কিরণ মোরে

মোরের (Kiran More) এত সাধ্য সাধনার মান রেখেছিলেন এমএস (MS Dhoni)। সেই ম্যাচে সুযোগ পাওয়ার পর তিনি দেখিয়ে দিয়েছিলেন তিনি ওই সময় আসল দাবিদারই ছিলেন।

ধোনিকে দলে নেওয়ার জন্য সৌরভকে ১০ দিন কারণ বুঝিয়েছিলেন কিরণ মোরে
ধোনিকে দলে নেওয়ার জন্য সৌরভকে ১০ দিন কারণ বুঝিয়েছিলেন কিরণ মোরে
Sanghamitra Chakraborty

|

Jun 02, 2021 | 3:52 PM

নয়াদিল্লি: ভারতীয় ক্রিকেটর ইতিহাসে মহেন্দ্র সিং ধোনির (MS Dhoni) নাম স্বর্ণাক্ষরে লেখা রয়েছে। ভারতীয় ক্রিকেটের সর্বকালের সেরা উইকেটকিপার ব্যাটসম্যানের কথা উঠলেই, সবার আগে আসে মাহির নাম। কিন্তু সেই ধোনিকেই এক সময় সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় (Sourav Ganguly) নিজের দলে খেলাতে চাননি। এমন কথাই ফাঁস করেছেন, ভারতের প্রাক্তন ক্রিকেটার ও এক সময়ের প্রধান নির্বাচক কিরণ মোরে (Kiran More)।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রাক্তন পেসার কার্টলে অ্যামব্রোস ও ক্রীড়া সঞ্চালক কারিশ্মা কোটাকের, কার্টলে ও কারিশ্মা শো-তে মোরে বলেছেন, “আমরা একজন উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যানের খোঁজে ছিলাম। ক্রিকেটের ফর্ম্যাট তখন বদলে যাচ্ছিল, তাই আমরা এমন একজনকে চাইছিলাম যে কিনা প্রয়োজনে বড় রানও করতে পারবে। সে ছয়ে বা সাতে নেমে দ্রুত ৪০-৫০ রান তুলে দেবে। এই রকম ক্রিকেটারের খোঁজ করা হচ্ছিল তখন। উইকেটকিপার হিসেবে ৭৫টি ওয়ান ডে ম্যাচ খেলে নিয়েছিল দ্রাবিড়। ২০০৩ বিশ্বকাপেও খেলেছিল। তাই আমরা একজন ভাল উইকেটকিপারের খোঁজে ছিলাম।”

সেইসময় মোরের নজর কাড়েন ধোনি। তাঁর মধ্যে সেই জায়গায় ফিট হওয়ার মতো সব মশলা ছিল। কিন্তু ইস্ট জোনের দলে মাহিকে উইকেটকিপার হিসেবে জায়গা পাইয়ে দিতে, একেবারে কালঘাম ছুটে যায় মোরের। তখন ভারত তথা ইস্ট জোনের অধিনায়ক ছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। দীপ দাশগুপ্ত (Deep Dasgupta) তখন সামলাতেন ইস্ট জোনের দস্তানার কাজ। প্রায় ১০ দিন ধরে সৌরভকে ক্রমাগত বোঝানোর পর দীপের বদলে ধোনিকে কিপিংয়ের সুযোগ দেওয়া হয়।

মোরে এ ব্যাপারে বলেছেন, “ধোনির প্রতি সব থেকে আগে আমার এক সহকর্মীর নজর পড়ে। আমি তারপর এক ম্যাচে ওর খেলা দেখতে যাই। সেই ম্যাচে দলের ১৭০ রানের মধ্যে ও একাই ১৩০ করেছিল। তাই তখনই ওকে আমরা ফাইনালে উইকেটকিপার হিসেবে খেলাতে চাই। এই সময় সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও দীপ দাশগুপ্তর সঙ্গে আমাদের অনেক আলোচনা করতে হয়। দীপের বদলে ধোনিকে উইকেটকিপার হিসাবে খেলাতে সৌরভ এবং নির্বাচকদের বাকিদের প্রায় ১০ দিন ধরে বোঝাতে হয়।”

মোরের এত সাধ্য সাধনার মান রেখেছিলেন এমএস। সেই ম্যাচে সুযোগ পাওয়ার পর তিনি দেখিয়ে দিয়েছিলেন তিনি ওই সময় আসল দাবিদারই ছিলেন। মোরে বলেছেন, “সেই ম্যাচে ধোনি সকলকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন। আশিস নেহরা থেকে শুরু করে নর্থ জোনের সকল বোলারদের বিরুদ্ধে দুরন্ত ফর্মে ব্যাটিং করেছিলেন। ফলস্বরূপ ওকে কেনিয়াতে পাকিস্তান ও কেনিয়ার বিরুদ্ধে ত্রিদেশীয় সিরিজে ভারতীয় এ দলের হয়ে খেলতে পাঠানো হয়। ওই সিরিজে ও ৬০০-র মতো রান করে এবং তার পরের ইতিহাস সকলেরই জানা।”

আরও পড়ুন: ওয়া ব্রাদার্সের ৫৬তম জন্মদিন

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla