২১ মে ভারতে আসছে ক্লাবহাউসের অ্যানড্রয়েড বিটা ভার্সান, পরিষেবা চালু হবে বিশ্বজুড়ে

পল ডেভিসন এবং রোহন শেঠ নামের প্রযুক্তি জগতের দুই বিশারদ গত বছর অর্থাৎ ২০২০ সালে এই অ্যাপ তৈরি করেছিলেন। ২০২০ সালের এপ্রিল মাসে লঞ্চ হয়েছিল ক্লাবহাউস অ্যাপ।

২১ মে ভারতে আসছে ক্লাবহাউসের অ্যানড্রয়েড বিটা ভার্সান, পরিষেবা চালু হবে বিশ্বজুড়ে
প্রাথমিক ভাবে আইওএস এক্সক্লুসিভ 'ইনভাইট' ভিত্তিক এই অ্যাপ ছিল ক্লাবহাউস।

অবশেষে ভারতে আসছে ক্লাবহাউস অ্যাপের বিটা ভার্সান। সদ্যই টুইট করে ক্লাবহাউস কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, ভারত সহ একাধিক দেশে এই অ্যানড্রয়েড অ্যাপের বিটা ভার্সান রোলআউট করা হবে। আগামী ২১ মে শুক্রবার সকালে ভারতে এই পরিষেবা চালু হবে। ভারতের পাশাপাশি এই তালিকায় রয়েছ নাইজিরিয়া। অন্যদিকে ১৮ মে ব্রাজিল, জাপান এবং রাশিয়ায় ক্লাবহাউস অ্যাপের অ্যানড্রয়েড বিটা ভার্সানের রোলআউট শুরু হয়েছে। প্রসঙ্গত, চলতি বছর মে মাস থেকে ক্লাবহাউস অ্যাপের অ্যানড্রয়েড বিটা টেস্টিং চালু হয়েছিল আমেরিকায়। এবার ভারতেও চালু হচ্ছে এই পরিষেবা।

আমেরিকায় অবশ্য বিটা টেস্টিংয়ের পর অ্যানড্রয়েড ভার্সানে ক্লাবহাউস অ্যাপ চালুও হয়ে গিয়েছে। এবার ভারত সহ অন্যান্য যেসব দেশে ইংরেজি ভাষার চল রয়েছে সেখানেও অ্যানড্রয়েড ভার্সানে এই অ্যাপ যুক্ত হবে। গ্যাজেট এবং অ্যাপ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম অ্যানড্রয়েডে ক্লাবহাউস অ্যাপ চালু হওয়ার ফলে এই অ্যাপের জনপ্রিয়তা আরও বাড়বে। এমনিতেও লঞ্চ হওয়ার পর থেকেই অডিয়ো ভিত্তিক এই অ্যাপের জনপ্রিয়তা ক্রমাগত বাড়ছিল।

প্রাথমিক ভাবে আইওএস এক্সক্লুসিভ ‘ইনভাইট’ ভিত্তিক এই অ্যাপ ছিল ক্লাবহাউস। তবে এবার অ্যানড্রয়েড ইউজাররাও এই অ্যাপের শরিক হতে পারবেন। আসলে ক্লাবহাউস একটি অডিয়ো চ্যাটিং সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং অ্যাপ। অনেকটা কনফারেন্স কলের মতো। যেখানে একসঙ্গে অনেকে একটি নির্দিষ্ট বিষয়ে আলোচনা করার জন্য যুক্ত হন। সেখানে কিছু মানুষ কথা বলেন এবং বাকিরা শোনেন। যে যে বিষয়ে ইউজাররা কথা বলতে পারবেন তা নির্দিষ্ট ভাবে ক্লাবহাউস অ্যাপেই চিহ্নিত করা রয়েছে। অর্থাৎ ইউজাররা কোন বিষয়ে কথা বলতে চান, তা বেছে নেওয়ার অপশন থাকছে অ্যাপের মধ্যেই।

আরও পড়ুন- এয়ারটেলের নয়া চমক, বিনামূল্যে ৪৯ টাকার রিচার্জ, দ্বিগুণ সুবিধা ৭৯ টাকার প্ল্যানে

এই অ্যাপে রয়েছেন এমন কারও থেকে ‘ইনভাইট’ পাওয়ার পর একজন ইউজার ক্লাবহাউস অ্যাপে সাইন-ইন করতে পারবেন এবং পছন্দের আলোচনার বিষয় বেছে নিতে পারবেন। আঞ্চলিক, জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক, যেকোনও স্তরের আলোচনাতেই অংশগ্রহণ করতে পারবেন একজন ইউজার। ইলন মাস্কের মতো ধনকুবেরও এই অ্যাপে বহুদিন আগেই যুক্ত হয়েছেন। পল ডেভিসন এবং রোহন শেঠ নামের প্রযুক্তি জগতের দুই বিশারদ গত বছর অর্থাৎ ২০২০ সালে এই অ্যাপ তৈরি করেছিলেন। ২০২০ সালের এপ্রিল মাসে লঞ্চ হয়েছিল ক্লাবহাউস অ্যাপ।