নেটফ্লিক্সের ফ্রি-সাবস্ক্রিপশন! হোয়াটসঅ্যাপে বার্তা পাঠিয়ে ইউজারদের ক্ষতি করছে ‘ফ্লিক্সঅনলাইন’

করোনা, লকডাউন এবং কোয়ারেন্টাইনকে হাতিয়ার বানিয়ে দু'মাসের ফ্রি নেটফ্লিক্স সাবস্ক্রিপশন দেওয়ার মেসেজ পাঠাত এই ফ্লিক্সঅনলাইন অ্যাপ।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 19:33 PM, 8 Apr 2021
নেটফ্লিক্সের ফ্রি-সাবস্ক্রিপশন! হোয়াটসঅ্যাপে বার্তা পাঠিয়ে ইউজারদের ক্ষতি করছে 'ফ্লিক্সঅনলাইন'
গুগল প্লে স্টোরে ফ্লিক্সঅনলাইন অ্যাপ এই হিসেবেই ছিল যে এটি এমন একটা অ্যাপ যেখানে নেটফ্লিক্সের গ্লোবাল কনটেন্ট ফ্রি-তে দেখা যায়।

‘ম্যালওয়্যার’- এই শব্দের সঙ্গে এখন অনেকেই পরিচিত। সোশ্যাল ম্যালওয়্যারের হাত থেকে বাঁচার জন্য আজকাল গ্যাজেট ব্যবহারকারীদের সবসময়ই পরামর্শ দেওয়া হয় যেন তাঁরা অথেনটিক অ্যাপ স্টোর থেকে অ্যাপ ডাউনলোড করেন। নাহলে সোশ্যাল ম্যালওয়্যার অর্থা হ্যাকিং বা ভাইরাসের শিকার হতে পারেন আপনি। ইউজার বুঝতেই পারবেন না। অথচ তাঁর সঙ্গে প্রতারণা হয়ে যেতে পারে। তাই বলা হয়, গুগল প্লে স্টোর কিংবা অ্যাপেল অ্যাপ স্টোর এইসব জায়গা থেকে অ্যাপ ডাউনলোড করুন।

কিন্তু আজকাল এইসব অথেনটিক অ্যাপ স্টোর থেকে অ্যাপ ডাউনলোড করলেও ম্যালওয়্যারের শিকার হওয়ার সম্ভাবনা থেকেই যায়। সম্প্রতি একটি রিপোর্টে এমনটাই জানা গিয়েছে। গুগল প্লে স্টোরে রয়েছে একটি অ্যাপ যার নাম ‘ফ্লিক্সঅনলাইন’। অভিযোগ, এই অ্যাপেই লুকিয়ে রয়েছে অ্যানড্রয়েড ম্যালওয়্যার। জানা গিয়েছে, এই অ্যাপ ডাউনলোড করলে ইউজারের কাছে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে একটি মেসেজ আসে। সেখানে বলা হয়, ইউজারকে ফ্রি-তে নেটফ্লিক্সের বিভিন্ন কনটেন্ট দেখতে দেওয়া হবে। ওই লিঙ্কে ক্লিক করলেই সর্বনাশ ঘটতে বেশিক্ষণ লাগবে না। ‘ফ্লিক্সঅনলাইন’ নামের এই ‘ফেক অ্যাপ’ এখন অবশ্য গুগল প্লে স্টোর থেকে মুছে ফেলা হয়েছে। তবে ইতিমধ্যেই হয়তো অনেকে এই অ্যাপ ডাউনলোড করে ফেলেছিলেন। প্রতারণার ফাঁদেও হয়তো পা দিয়েছেন কেউ।

চেক পয়েন্টের সমীক্ষা অনুযায়ী, গুগল প্লে স্টোরে ফ্লিক্সঅনলাইন অ্যাপ এই হিসেবেই ছিল যে এটি এমন একটা অ্যাপ যেখানে নেটফ্লিক্সের গ্লোবাল কনটেন্ট ফ্রি-তে দেখা যায়। এমনিতেই অন্যান্য ওয়েব স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মের তুলনায় নেটফ্লিক্সের সাবস্ক্রিপশনের চার্জ অনেকটাই বেশি। তাই বিনামূল্যে নেটফ্লিক্সের কনটেন্ট দেখতে পাওয়ার লোভে অনেকেই ফ্লিক্সঅনলাইন অ্যাপ ডাউনলোড করেছেন।

আরও পড়ুন- করোনার টিকাকরণে ইউজারদের উৎসাহ দিতে ‘ভ্যাকসিন স্টিকার প্যাক’ চালু করেছে হোয়াটসঅ্যাপ

একবার ডাউনলোড করার পরই ইউজারের হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে ম্যালওয়্যার ছড়িয়ে পড়ে। শুধু তা নয়, ইনকামিং মেসেজের মাধ্যমে হোয়াটসঅ্যাপে বিভিন্ন আপত্তিকর কনটেন্টও পাঠাতে পারে এই ‘ফেক অ্যাপ’। এক্ষেত্রে আবার থাকে ‘অটম্যাটেড রিপ্লাই’- এর অপশন। শোনা গিয়েছে, সাইবারক্রিমিনালরা এই অ্যাপের সাহায্যে হোয়াটসঅ্যাপ ইউজারদের গতিবিধি নজরে রাখে। ইনকামিং মেসেজে আপনাআপনি রিপ্লাইও চলে যেতে পারে। একটি রিমোট কম্যান্ড অ্যান্ড কন্ট্রোল সার্ভার থেকে ইউজারদের হোয়াটসঅ্যাপ নোটিফিকেশনের দিকে নজর রাখা হয় এই ফেক অ্যাপের সাহায্যে।

করোনা, লকডাউন এবং কোয়ারেন্টাইনকে হাতিয়ার বানিয়ে দু’মাসের ফ্রি নেটফ্লিক্স সাবস্ক্রিপশন দেওয়ার মেসেজ পাঠাত এই ফ্লিক্সঅনলাইন অ্যাপ। তবে সন্দেহ দেখা দেওয়ায় এবং এই অ্যাপ ডাউনলোডে সমস্যা হওয়ার পরই গুগল কর্তৃপক্ষ প্লে স্টোর থেকে অ্যাপ সরিয়ে দিয়েছেন। কিন্তু দু’মাসে অন্তত ৫০০বার এই অ্যাপ ডাউনলোড করা হয়েছে বলে শোনা গিয়েছে।