হরিনাম সংকীর্তনের আসরে জয় শ্রীরাম ধ্বনি, ভাঙচুর-সংঘর্ষে উত্তপ্ত ডায়মন্ড হারবার

হরিনাম সংকীর্তনের আসরে 'জয় শ্রীরাম ধ্বনি' দেওয়াকে কেন্দ্র করে তীব্র উত্তেজনা। রীতিমতো ভাঙচুর করে নামগানের আসর বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্য ও তাঁর দলবলের বিরুদ্ধে।

হরিনাম সংকীর্তনের আসরে জয় শ্রীরাম ধ্বনি, ভাঙচুর-সংঘর্ষে উত্তপ্ত ডায়মন্ড হারবার
নিজস্ব চিত্র

ডায়মন্ড হারবার: হরিনাম সংকীর্তনের আসরে ‘জয় শ্রীরাম ধ্বনি’ দেওয়াকে কেন্দ্র করে তীব্র উত্তেজনা। রীতিমতো ভাঙচুর করে নামগানের আসর বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্য ও তাঁর দলবলের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে ডায়মন্ড হারবার থানার অন্তর্গত উত্তর পঞ্চগ্রাম এলাকার।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিবার বাসুলডাঙা গ্রাম পঞ্চায়েতের উত্তর পঞ্চগ্রামে হরিনাম সংকীর্তন চলছিল। সেই সংকীর্তন মহোৎসবে ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান দেওয়ায় স্থানীয় তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্য সত্যজিৎ দাস দলবল নিয়ে আসরে ভাঙচুর চালায় বলে অভিযোগ। যার জেরে গুটিয়ে নিতে হয় হরিনাম সংকীর্তনের আসর।

এদিকে এই ঘটনায় তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফুঁসছিলেন গ্রামবাসীরা। সোমবার সকাল হতেই অভিযুক্ত তৃণমূল কর্মীদের বেধড়ক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। দু’পক্ষই ডায়মন্ড হারবার থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে।  এদিকে উত্তেজনা প্রশমনে ওই এলাকায় এখন মোতায়েন রয়েছে বিশাল পুলিশ বাহিনী।

ভোট আবহে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক রং লাগতে সময় লাগেনি। বিজেপি (BJP) -র ডায়মন্ড হারবার সাংগঠনিক জেলার কনভেনার দেবাংশু পাণ্ডার দাবি, ‘এলাকায় কোনও গণতন্ত্র নেই। সাধারণ মানুষকে তাঁদের ধর্মাচারণেও বাধা দিচ্ছে তৃণমূলের দুষ্কৃতী বাহিনী।’ এঘ ঘটনায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান তিনি।

আরও পড়ুন: তৃণমূলের ঝাঁটা, বিজেপির ইট-পাটকেল, ধুন্ধুমার লেবুতলায়

এদিকে এই অভিযোগ মানতে নারাজ তৃণমূল (TMC)। পাল্টা বিজেপির বিরুদ্ধে সুর চড়িয়ে ডায়মন্ড হারবার-১ ব্লকের যুব তৃণমূল সভাপতি গৌতম অধিকারীর দাবি, ‘পারিবারিক বিবাদে রাজনৈতিক রং লাগিয়ে তৃণমূলের নামে অপপ্রচার করতে চাইছে বিজেপি।’ তাঁর অভিযোগ, বিজেপি কর্মীরাই এলাকায় সন্ত্রাস ছড়াচ্ছে। ধর্মের নামে বিভাজনের রাজনীতি করছে। এদিকে গোটা ঘটনায় এখন চোরা উত্তেজনা ওই এলাকায়।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla