Beaten: মন্দিরের সামনে মদ খেয়ে লুটোপুটি, প্রতিবাদ করায় যা কাণ্ড হল যুবকের সঙ্গে…

Hoogly News: বুদ্ধদেব রায়চৌধুরীর মায়ের কথায়, আট-দশজন এসে বাড়িতে চড়াও হয়। তাঁর ছোট ছেলে দরজা আগলে দাঁড়িয়েছিলেন। ছেলেকে ধাক্কাধাক্কি করেন বেশ কয়েকজন।

Beaten: মন্দিরের সামনে মদ খেয়ে লুটোপুটি, প্রতিবাদ করায় যা কাণ্ড হল যুবকের সঙ্গে...
মদের ঠেকের প্রতিবাদ করায় প্রহৃত।
TV9 Bangla Digital

| Edited By: সায়নী জোয়ারদার

Sep 23, 2022 | 11:13 AM

হুগলি: মদের ঠেক। পাড়ায় লোকজন চলাচল করতে পারে না। সেই ঠেক তোলার আর্জি জানাতেই মারধর করা হল এক এলাকাবাসীকে। অভিযোগ, বাড়িতে চড়াও হয়ে এক যুবককে মারধর করা হয়। দু’জনকে আহত অবস্থায় উত্তরপাড়া হাসপাতলে নিয়ে যাওয়া হয়। বৃহস্পতিবার ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপাড়া পুরসভার ২২ নম্বর ওয়ার্ডে।

স্থানীয় টিএন মুখার্জি রোড লোহার পোল এলাকায় দীর্ঘদিন ধরেই বেআইনি মদের ঠেক চলে বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর। সেই ঠেক থেকে পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে বলেই মাঝেমধ্যে প্রতিবাদ করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। অভিযোগ, সে সব কেউ কানে তোলে না। এমনকী জনপ্রতিনিধি থেকে পুলিশের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন এলাকার লোকজনের একাংশ। আগেও প্রতিবাদ করার মারধরের হুমকি আসে।

বিশ্বকর্মা পুজোর দিনও একপ্রস্থ ঝামেলা হয়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আবারও একই ঘটনা ঘটে। এক যুবক মদ খেয়ে এলাকায় গোলমাল করছিলেন। প্রতিবাদ করায় বুদ্ধদেব রায়চৌধুরী নামে একজনকে মারধর করা হয়। তাঁর বুকে চোট লাগে। অভিযোগ ১০-১২ জন তাঁদের আবাসনে ঢুকে তাণ্ডব চালান। এই ঘটনায় উত্তরপাড়া থানায় অভিযোগ দায়ের হয়। দু’জনকে আটকও করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে বুদ্ধদেব রায়চৌধুরী বলেন, “মন্দিরের সামনে একজন মদ খেয়ে বিশ্বকর্মা পুজোর দিন গড়াগড়ি খাচ্ছিল। আমি বলতে যাওয়ায় আমাকে বাড়িতে এসে মারধর করে গেছে। হুমকি দেওয়া হয়। ওখানে বেআইনি মদের ব্যবসা চলে। পাশেই মন্দির। হাজার বলার পরও শোনে না। মন্দিরে মানুষ ঢুকতে পারে না। এর আগেও পুরসভার চেয়ারম্যানকে জানাই, উত্তরপাড়া থানায় জানাই। কোনও পদক্ষেপ করেনি কেউ। এবার রীতিমতো আমার বাড়িতে চড়াও হয়ে মারধর করল।”

এই খবরটিও পড়ুন

বুদ্ধদেব রায়চৌধুরীর মায়ের কথায়, আট-দশজন এসে বাড়িতে চড়াও হয়। তাঁর ছোট ছেলে দরজা আগলে দাঁড়িয়েছিলেন। ছেলেকে ধাক্কাধাক্কি করেন বেশ কয়েকজন। পুরুষ, মহিলা উভয়ই ছিলেন। এই ওয়ার্ডেরই বাসিন্দা অমিতাভ রায় বলেন, “মন্দিরের পাশে মদ বিক্রি করে। ৩১ নম্বর ওয়ার্ডের মহিলারা একজোট হয়ে মদ বিক্রি বন্ধ করেছিল। এই ওয়ার্ডেও হওয়া দরকার। জনপ্রতিনিধিদের জানিয়েও কাজ হয় না। পুলিশকেও জানিয়ে কোনও সুরাহা মেলে না।”

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla