ফের ভূতুড়ে ল্যাবের খোঁজ মিলল শিলিগুড়িতে, সোয়্যাব পরীক্ষাতেও জালিয়াতি

দিন কয়েক আগেই শিলিগুড়িতে (Siliguri) কোভিড টেস্টের নামে বাড়ি বাড়ি সোয়্যাব সংগ্রহ করে রিপোর্ট পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছিল। একজনকে গ্রেফতারও করা হয়।

ফের ভূতুড়ে ল্যাবের খোঁজ মিলল শিলিগুড়িতে, সোয়্যাব পরীক্ষাতেও জালিয়াতি
নিজস্ব চিত্র।

শিলিগুড়ি: ফের ভূতুড়ে ল্যাবের খোঁজ মিলল শিলিগুড়িতে। টেস্ট রিপোর্টে ল্যাবেরটরির যে ঠিকানা লেখা সেখানে কোনও ল্যাবই নেই। অন্যদিকে রিপোর্টে যাঁদের সই রয়েছে, তাঁরা তিনজনই সরকারি প্যাথলজিস্ট ও টেকনিশিয়ান। তাঁদের দাবি, এমন সই তাঁরা করেননি। এই ঘটনায় আপাতত তুলকালাম শিলিগুড়িতে।

দিন কয়েক আগেই শিলিগুড়িতে কোভিড টেস্টের নামে বাড়ি বাড়ি সোয়্যাব সংগ্রহ করে রিপোর্ট পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছিল। বিনা পরীক্ষাতেই নিজের মর্জিমাফিক কম্পিউটারে রিপোর্ট বানিয়ে দেওয়ার ঘটনায় বিশাল দত্ত নামে একজনকে গ্রেফতারও করেছিল পুলিশ। এবার উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজের চিকিৎসকদের কাছে আরেকটি টেস্ট রিপোর্ট এসেছে। যা ভুয়ো রিপোর্ট বলেই মনে করা হচ্ছে।

উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজের প্যাথলজি বিভাগের চিকিৎসক কল্যাণ খাঁ বলেন, “সাধারণ টেস্ট থেকে কোভিড টেস্টের নামে লোক ঠকাচ্ছে বহু ল্যাব। অধিকাংশের তো আবার খোঁজই মিলছে না। বাজারে ছড়িয়ে থাকা এজেন্টের মাধ্যমে নমুনা ও অর্থ সংগ্রহের পর ভুয়ো ল্যাবের নামে রিপোর্ট দিচ্ছে এরা। যা ভয়ঙ্কর ঘটনা। আমরা পুলিশের দ্বারস্থ হচ্ছি। আমরা চাই অবিলম্বে পুলিশ গোটা ঘটনা খতিয়ে দেখুক।”

আরও পড়ুন: চিনারপার্কের হোটেলে দু’দিন, শহরে কি জাল বিছিয়েছিল গ্যাংস্টার ভুল্লাররা? চাঞ্চল্যকর তথ্য তদন্তে

কল্যাণবাবু বলেন, এখন মানুষ চাইছেন বাড়িতে কেউ এসে নমুনা নিয়ে গিয়ে পরীক্ষা করে রিপোর্ট দিক। আর সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়েই ভুতুড়ে ল্যাব গজিয়ে উঠছে চারপাশে। শিলিগুড়িতে পরপর এই দু’টি ঘটনাই শুধু নয়, এই চক্র বহু দূর ছড়িয়েছে বলেই মনে করছেন মেডিকেল কলেজের কর্তারা। এখানকার ডিন সন্দীপ সেনগুপ্ত বলেন, “আমরা পরিস্থিতি সম্পর্কে জেলা স্বাস্থ্য দফতরকে জানাচ্ছি।”

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla