জামাইবাবুর সঙ্গে ঝগড়া, ফোন করে জানিয়েছিল দিদি! রাগে প্রকাশ্যে শ্যালক যা করল চোখ কপালে স্থানীয়দের

Maldah Crime: স্থানীয়দের অভিযোগ, জামাইবাবুকে দেখে একেবারে রক্ত চেপে গিয়েছিল উকিলের মাথায়।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 23:24 PM, 8 Apr 2021
জামাইবাবুর সঙ্গে ঝগড়া, ফোন করে জানিয়েছিল দিদি! রাগে প্রকাশ্যে শ্যালক যা করল চোখ কপালে স্থানীয়দের
নিজস্ব চিত্র।

মালদহ: পারিবারিক বিবাদের জেরে জামাইবাবুকে কুপিয়ে খুনের অভিযোগ শ্যালকের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত শ্যালককে গ্রেফতার করেছে হবিবপুর থানার পুলিশ। মালদহের হবিবপুরের বাসিন্দা বিফল মণ্ডল। বৃহস্পতিবার জাজৈল বাসস্ট্যান্ডে সিমেন্ট কিনতে গিয়েছিলেন তিনি। অভিযোগ, তখনই ক্ষুর নিয়ে তাঁর উপর ঝাঁপিয়ে পড়েন শ্যালক উকিল মণ্ডল। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে বিফলের মৃত্যু হয়।

অভিযোগ, বুধবার স্ত্রীর সঙ্গে ঝামেলা হয় বিফলের। এরপরই নাকি বাপের বাড়িতে ফোন করে অভিযোগ করেন তাঁর স্ত্রী। পরদিন অর্থাৎ বৃহস্পতিবার বিফল সিমেন্ট কিনতে গেলে শ্যালকের ডাকে পাশেই তাঁর সেলুনে যান বলে অভিযোগ। সেখানে দু’জনের তুমুল ঝগড়া হয়। অভিযোগ, ঝগড়ার মাঝেই বিফলকে রাস্তায় ফেলে এলোপাথাড়ি কোপান উকিল।

আরও পড়ুন: কাশী বিশ্বনাথের মন্দির, জ্ঞানবাপি মসজিদ দেখতে যাবেন প্রত্নতত্ত্ববিদরা

স্থানীয়দের অভিযোগ, জামাইবাবুকে দেখে একেবারে রক্ত চেপে গিয়েছিল উকিলের মাথায়। ভয়ঙ্কর চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করে দেন। সেলুনে হাতের কাছেই সে সময় ক্ষুর দেখতে পান। সঙ্গে সঙ্গে তা হাতে তুলে নিয়ে কোপাতে শুরু করেন।

মুহূর্তে লুটিয়ে পড়েন রক্তাক্ত বিফল। লোকজন ছুটে এসে তাঁকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলেও শেষ রক্ষা হয়নি। চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। এরপরই স্থানীয়রা উকিলকে আটকে রেখে থানায় খবর দেন। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ।