সেলুনে তখন ভর্তি ভিড়, চুল কাটার ফাঁকে আচমকাই নাপিত ক্ষুর চালিয়ে দিলেন গলায়, বুকে-পিঠে! কারণ আরও বেশি ভয়ানক

ভয়ঙ্কর ঘটনা মালদার  (Maldah) হবিবপুরে। দৃশ্য দেখে স্তম্ভিত গ্রামবাসীরা।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 14:33 PM, 8 Apr 2021
সেলুনে তখন ভর্তি ভিড়, চুল কাটার ফাঁকে আচমকাই নাপিত ক্ষুর চালিয়ে দিলেন গলায়, বুকে-পিঠে! কারণ আরও বেশি ভয়ানক
নিজস্ব ছবি

মালদা: স্ত্রীয়ের সঙ্গে ঝামেলা হয়েছিল দিন দুয়েক আগে। সে খবর পৌঁছেছিল শ্বশুরবাড়িতে। জামাইবাবুকে বাগে পেয়েই ক্ষোভ সুদেআসলে মিটিয়ে নিলেন শ্যালক। প্রকাশ্যে ভরা বাসস্ট্যান্ডে ক্ষুর দিয়ে জামাইবাবুর গলায় কোপালেন শ্যালক। তারপর কয়েক মিনিটের ব্যবধানের একের পর এক আঘাত। বুক, হাত, পেটে চিরে দিলেন শ্যালক। ঘটনাস্থলেই কাতরাতে কাতরাতে মৃত্যু জামাইবাবুর। ভয়ঙ্কর ঘটনা মালদার  (Maldah) হবিবপুরে।

বিফল মন্ডল হবিবপুরের বাসিন্দা। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, গত মঙ্গলবার বাড়িতেই স্ত্রীয়ের সঙ্গে ঝামেলা হয় তাঁর। সে ঝামেলা মিটেও যায়। এরপর বৃহস্পতিবার সকালে জাজৈল বাসস্ট্যান্ডে বাড়ির নির্মাণ কাজের জন্য সিমেন্ট কিনতে এসেছিলেন তিনি। বাসস্ট্যান্ড চত্বরে তাঁর শ্যালক উকিল মন্ডলের সেলুন রয়েছে।

বিফল সেখানে গেলে দু’জনের মধ্যে পুরনো বিষয় নিয়েই বচসা শুরু হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানাচ্ছেন, কথা কাটাকাটির সময়েই উন্মত্ত হয়ে উকিল সেলুনের ক্ষুর নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়েন বিফলের ওপরে। ক্রেতাদের সামনেই কোপাতে শুরু করেন।

Maldah Crime News Murder

মৃত ব্যক্তি

আরও পড়ুন: বিজেপির ভাইরাল গানে ‘কালিয়াচক-ধূলাগড়’! উত্তেজনা তৈরির চেষ্টার অভিযোগ তুলে কমিশনে তৃণমূল

রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়েন বিফল। স্থানীয়রাই কোনওভাবে উকিলকে সামলান। বিফলকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যান। চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ। স্থানীয়রাই উকিলকে আটক করে রাখেন। পরে পুলিশের হাতে তুলে দেন।