Sougata Roy: ‘সভা ডাকার প্রয়োজন ছিল না’, অর্জুন-গড়ে অভিষেকের মেগা সভাতেই বিতর্ক উস্কে দিলেন সৌগত

Arjun Singh : অর্জুন সিংয়ের ঘর ওয়াপসিকে স্বাগত জানিয়ে এবং পাট শিল্পের জন্য তিনি যা করেছেন, তার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েও 'সভা ডাকার প্রয়োজন ছিল না' বলে সৌগত রায় নতুন করে বিতর্ক উস্কে দিলেন বলেই মত রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের।

Sougata Roy: 'সভা ডাকার প্রয়োজন ছিল না', অর্জুন-গড়ে অভিষেকের মেগা সভাতেই বিতর্ক উস্কে দিলেন সৌগত
সৌগত রায়
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Soumya Saha

May 30, 2022 | 6:18 PM

কলকাতা ও শ্যামনগর : কিছুদিন আগেই নিজের পুরনো দল তৃণমূলে ফিরেছেন সাংসদ অর্জুন সিং। ‘ঘরের ছেলে’ ঘরে ফিরে এসেছেন। আর তারপরই অর্জুন সিংয়ের খাসতালুকে সভা করছেন তৃণমূলের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। শ্যামনগরে সভা রয়েছে দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদকের। অভিষেকের এই সভা থেকে বিজেপিতে অর্জুন অনুগামী বলে পরিচিত নেতা কর্মীদের একটি বড় অংশও তৃণমূলে যোগ দিতে পারে বলে জোর জল্পনা ছড়িয়েছে রাজনৈতিক মহলে। আর এরই মধ্যে কিছুটা ‘বাঁকা’ সুরেই শোনা গেল তৃণমূলের বর্ষীয়ান সাংসদ সৌগত রায়ের মুখে। বললেন, “অর্জুন সিংয়ের দলে যোগদান আনন্দের বিষয়। তার জন্য সভা ডাকার প্রয়োজন ছিল না।”

যদিও পাট শিল্পের বেহাল দশা নিয়ে সরব হওয়ার জন্য ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিংকে ধন্যবাদও জানিয়েছেন সৌগত রায়। বলেছেন, “অর্জুনকে ধন্যবাদ জানাই। উনি পাট নিয়ে আওয়াজ তোলার পর কেন্দ্র নমনীয় হয়েছে।” তবে দলের বর্ষীয়ান রাজনীতিকের এ হেন মন্তব্যের জেরে ঘাসফুলের অন্দরে কিছুটা হলেও অস্বস্তি বাড়ছে বলেই মনে করছেন রাজ্য রাজনীতির পর্যবেক্ষকরা। সৌগত রায়ের মন্তব্যে দলের অস্বস্তি এই প্রথম নয়, এর আগেও সাম্প্রতিক অতীতে একাধিকবার সৌগত রায়ের মন্তব্য ঘিরে জোর চর্চা হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই সাংসদ সৌগত রায়ের পাড়াতেই একটি বাড়ি ভাঙাকে কেন্দ্র করে সিন্ডিকেটের বচসা প্রকাশ্যে এসেছিল। সেই প্রসঙ্গে সাংসদ বলেছিলেন, “বখরা নিয়ে সংঘর্ষ। নকশাল আমলেও এমন ঘটনা হয়নি।”

রাজ্যে একের পর এক ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের যে অভিযোগগুলি সাম্প্রতিককালে উঠেছে, সেই প্রসঙ্গেও সৌগত রায়ের মন্তব্য দলের নেতৃত্বের একাংশকে বেশ অস্বস্তিতে ফেলেছিল। তৃণমূল সাংসদ বলেছিলেন, “যে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মহিলা, সেখানে একটি নারী নির্যাতনের ঘটনাও লজ্জার।” এরপর অর্জুন সিংয়ের ঘর ওয়াপসিকে স্বাগত জানিয়ে এবং পাট শিল্পের জন্য তিনি যা করেছেন, তার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েও ‘সভা ডাকার প্রয়োজন ছিল না’ বলে নতুন করে বিতর্ক উস্কে দিলেন বলেই মত রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের।

এই খবরটিও পড়ুন

উল্লেখ্য, বঙ্গ রাজনীতিতে অভিষেকের হয়ে বার বার ব্যাট ধরতে দেখা গিয়েছে বর্ষীয়ান সাংসদ সৌগত রায়কে। রাজনীতিকদের অবসর নেওয়ার সময়সীমা যখন বেঁধে দেওয়ার কথা বলেছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, তখন তাঁকে সমর্থন করেছিলেন সৌগত রায়। এরপর যখন করোনা পরিস্থিতির মধ্যে দুই মাস সব রাজনৈতিক কর্মসূচি বন্ধ রাখার কথা বলেছিলেন, তখনও অভিষেকের পাশে ছিলেন সৌগত বাবু। সেই সময় অভিষেক সেটিকে নিজের ব্যক্তিগত মত বলে ব্যাখ্যা করলেও, সৌগত বাবু বলেছিলেন, “অভিষেকের বক্তব্যই দলের বক্তব্য।” এ হেন সৌগত রায়ই এবার শ্যামনগরের সভা নিয়ে ‘বাঁকা’ মন্তব্য করে বসলেন, যেখানে প্রধান বক্তা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla