সুন্দরবনে ধীবরের নৌকায় ঝাঁপিয়ে পড়ল বাঘ!

 বনদফতর সূত্রে খবর, চিলামারি জঙ্গলে কী করে বাঘের হানা বাড়ল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যে বাঘটি আক্রমণ করেছে সেটিরও খোঁজ করা হচ্ছে। কোনওভাবে বাঘটি আহত কি না তাও খতিয়ে দেখা হবে। পাশাপাশি ওই ধীবররা অনুমতি নিয়ে জঙ্গলে গিয়েছিল কি না তাও খতিয়ে দেখছে বনদফতর।

সুন্দরবনে ধীবরের নৌকায় ঝাঁপিয়ে পড়ল বাঘ!
প্রতীকী ছবি

দক্ষিণ ২৪ পরগনা: সুন্দরবনের খালে কাঁকড়া ধরতে গিয়ে বাঘের (Tiger) কবলে পড়ে মৃত্যু হল এক ধীবরের (Fisherman)। রবিবার ভোরে সুন্দরবনের বসিরহাট রেঞ্জের অন্তর্গত ঘোলের খালে ঘটনাটি ঘটে। জানা গিয়েছে বছর ৪৭-এর ওই ধীবরের নাম অমল বৈষ্ণব। তিনি গোসাবা ব্লকের কুমিরমারি গ্রামের বাসিন্দা।

মৃত অমলের পরিবারের তরফে জানা গিয়েছে, রবিবার ভোরবেলা রোজকার মতই নিজের দুই সঙ্গী নিরাপদ বৈদ্য ও প্রদীপ মণ্ডলের সঙ্গে খালে কাঁকড়া ধরতে যান তিনি। কাঁকড়া ধরার পরে জঙ্গল থেকে মধু সংগ্রহ করার কথাও ছিল অমলের। সেইমতোই নৌকা নিয়ে বেরিয়ে গিয়েছিলেন তিনি। তারপর আর বাড়ি ফিরে আসেননি। গ্রামবাসীরা পরে বাড়িতে তাঁর মৃতদেহ নিয়ে আসেন। বাড়ির একমাত্র উপার্জনশীল ব্যক্তি ছিলেন অমল।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, রবিবার ভোরে কাঁকড়া (Crab) ধরতে খালে গিয়েছিলেন নিরাপদ, প্রদীপ ও অমল। সেইসময় আচমকাই খালের ধারের ম্যানগ্রোভের ঝোপ থেকে একটি বাঘ লাফিয়ে পড়ে নৌকায়। মুহূর্তেই অমলকে তুলে নিয়ে পালিয়ে যায় জঙ্গলে। আচমকা এই ঘটনায় রীতিমতো ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েন অমলের বাকি দুই সঙ্গী। তাঁরা কোনওরকমে নৌকা চালিয়ে গ্রামে ফিরে এসে খবর দেন অমলকে বাঘে ধরে নিয়ে গিয়েছে। এরপর গ্রামবাসীরা সমবেত হয়ে জঙ্গলে গিয়ে বাঘটিকে ধাওয়া করেন। সেখানে গিয়ে মৃত অমলের ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধার হয়। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, চিলমারি এলাকায় যে বাঘের উপদ্রব এত বেড়েছে তা জানতেন না কেউ।

বনদফতর সূত্রে খবর, চিলামারি জঙ্গলে কী করে বাঘের হানা বাড়ল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যে বাঘটি আক্রমণ করেছে সেটিরও খোঁজ করা হচ্ছে। কোনওভাবে বাঘটি আহত কি না তাও খতিয়ে দেখা হবে। পাশাপাশি ওই ধীবররা অনুমতি নিয়ে জঙ্গলে গিয়েছিল কি না তাও খতিয়ে দেখছে বনদফতর।

 আরও পড়ুন: পুকুরে নেমেছিল নাবালক, হঠাৎই পৌঁছয় কেন্দ্রীয় বাহিনী, তারপর… কেঁদে ভাসাল দশ বছরের নাবালক

 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla