Asansol: ‘বাড়ির মেয়ে বউ বটি নিয়ে তেড়ে এসেছিল, আরেকটু হলে কেটেই ফেলত’! ছুরির আঘাতে রক্তাক্ত প্রৌঢ় হাসপাতালে

Jamuria: যদিও গফুরের বাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধেও পাল্টা হামলার অভিযোগ উঠেছে। আজিজুল, শওকতদের বাড়িতে ভাঙচুর করা হয় বলেও অভিযোগ।

Asansol: 'বাড়ির মেয়ে বউ বটি নিয়ে তেড়ে এসেছিল, আরেকটু হলে কেটেই ফেলত'! ছুরির আঘাতে রক্তাক্ত প্রৌঢ় হাসপাতালে
জমিজমা নিয়ে পারিবারিক বিবাদ। ছুরির আঘাতে জখম প্রৌঢ়। নিজস্ব চিত্র।

পশ্চিম বর্ধমান: জমিজমা নিয়ে পারিবারিক বিবাদ। অভিযোগ, সেই রাগে এক ব্যক্তির তলপেটে ছুরি চালালো বাবা ও ছেলে। শুক্রবার রাতে আসানসোলের (Asansol) জামুড়িয়ায় এই ঘটনা ঘটে। উখরার শঙ্করপুরের বাসিন্দা শেখ গফুর নিমন্ত্রণ বাড়িতে গিয়েছিলেন জামুড়িয়ায়। সেখানেই তাঁর পেটে ছুরি চালিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। মারাত্মক জখম অবস্থায় গফুরকে প্রথমে জামুড়িয়ার আখলপুর স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে স্থানান্তর করা হয় আসানসোল জেলা হাসপাতালে। আপাতত সেখানেই তিনি চিকিৎসাধীন। একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

অভিযোগ, জামুরিয়া গ্রামের বাসিন্দা আজিজুল হক ও তাঁর ছেলে শওকত আলি খান গফুরের উপর এই হামলা চালায়। একই সঙ্গে গফুরের পরিবারের অভিযোগ, শওকতদের বাড়ির মেয়ে-বউরা গফুরের দিকে লাঠি, বটি নিয়েও তেড়ে যায়। গফুরকে টেনে না ধরলে আরও বড় বিপদ হতে পারত বলে দাবি পরিবারের।

যদিও গফুরের বাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধেও পাল্টা হামলার অভিযোগ উঠেছে। আজিজুল, শওকতদের বাড়িতে ভাঙচুর করা হয় বলেও অভিযোগ। ছুরি চালানোর অভিযোগে শওকত আলি খানকে পুলিশ আটক করে থানায় নিয়ে যায়। স্থানীয় সূত্রে খবর, জমি সংক্রান্ত ঝামেলা নিয়ে গফুর ও আজিজুলের পরিবারের বহুদিনের বিবাদ। সম্পর্কে আজিজুল ও গফুর আবার আত্মীয়ও হন। এদিন জামুড়িয়ায় গফুর আসতেই পুরনো রাগ মাথা চাড়া দেয়। তা থেকেই এই ঘটনা বলে প্রাথমিক ভাবে জানতে পেরেছে পুলিশ। জামুড়িয়া থানার পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।

গফুরের এক আত্মীয়ের কথায়, “গফুর আমার জামাইবাবু। শঙ্করপুর থেকে এখানে নিমন্ত্রণ খেতে এসেছিল। ও আসার খবর পেয়েই আজিজুলরা একেবারে আমাদের বাড়িতে চলে আসে। আমি কাজে গিয়েছিলাম। এসে দেখি তুমুল গোলমাল। আমরা বোঝালেও কথা শোনেনি। বাপ ছেলে মিলে আমার ভায়রাভাইকে চাকু মেরে দিল। ওদের মধ্য়ে ঝামেলা ছিল। ওরা একে অপরের আত্মীয়। ওদের বাড়ির মেয়েগুলো বটি নিয়ে চলে এসেছে। আমরা না থাকলে কেটেই দিত। আমাদের পাশের বাড়িতে বিয়ে। তারই নিমন্ত্রণ খেতে এসেছিল।”

পাল্টা শওকতের দিদি জারিনা খাতুনের কথায়, “পুলিশ এসে হঠাৎ ভাইকে নিয়ে গেল। এরপরই গফুরদের বাড়ির লোকজন এসে ইট ছোড়াছুড়ি করল। দেওয়াল ভাঙল। জায়গা জমি নিয়ে ঝামেলা। এ নিয়ে ওদের সঙ্গে ঝামেলা। পাড়ার লোকজনকে সঙ্গে নিয়ে এসে ঝামেলা করে গেল।”

অভিযোগ, আজিজুলের স্ত্রীর অস্বাভাবিক মৃত্যুর পর সেই ঘটনায় নাম জড়ায় গফুরের। আজিজুলের আরেক মেয়ের কথায়, “আমার দুই ভাই বিয়ে বাড়ি গিয়েছিল। শঙ্করপুরের গফুর ওদের পিছনে লাগে। আমার ভাই শুধু বলেছিল, এ আমার মায়ের খুনি। তখন গফুর পাল্টা বলে, আমাদের বাড়ির সবাইকে ও খুন করে ফেলবে।” এরপরই দু’পক্ষের মধ্যে গোলমাল শুরু হয় বলে অভিযোগ।

আরও পড়ুন: Maharashtra: কোভিড কেড়েছে প্রাণ! মৃত বাবাকে চোখের আড়াল করতে নারাজ ছেলে যা করলেন, নজির…

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla