তাউটের দাপটে মৃত্যু বাঙালি পরিযায়ী শ্রমিকের, নিখোঁজ আরও ১

ঘূর্ণিঝড় 'তাউটে' (Tauktae)-র দাপটে কর্ণাটক (Karnataka) উপকূলে বোট ডুবে মৃত্যু হল দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসিন্দা এক পরিযায়ী শ্রমিকের। নিখোঁজ আরও এক শ্রমিক।

তাউটের দাপটে মৃত্যু বাঙালি পরিযায়ী শ্রমিকের, নিখোঁজ আরও ১
ম্যাঙ্গালোর উপকূল থেকে ৪০ কিমি দূরে ডুবে যায় বোটটি

দক্ষিণ ২৪ পরগণা: ঘূর্ণিঝড় ‘তাউটে’ (Tauktae)-র দাপটে কর্ণাটক (Karnataka) উপকূলে বোট ডুবে মৃত্যু হল দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসিন্দা এক পরিযায়ী শ্রমিকের। নিখোঁজ আরও এক শ্রমিক। ঘটনাটি ঘটেছে কর্ণাটকের ম্যাঙ্গালোর বন্দর থেকে প্রায় ৪০ কিলোমিটার দূরে। জানা গিয়েছে, মৃত যুবকের নাম জিবানুর হক মণ্ডল (৩৫)। এছাড়া বছর তেইশের নিখোঁজ হওয়া যুবকের নাম মইনুদ্দিন হক সেখ। এঁরা দুজনেই ডায়মন্ড হারবারের (Diamond Harbour) রামনগর থানার নুরপুর এলাকার কোম্পানিপুকুর গ্রামের বাসিন্দা। খবর পৌঁছতেই দুই পরিবারে শোকের ছায়া।

জানা গিয়েছে, ডায়মন্ড হারবারের নুরপুর এলাকার চার যুবক গত ২৭ এপ্রিল তেলের ট্র্যাক বোটে কাজ করার জন্য কর্ণাটকে গিয়েছিলেন। ‘কেবি সিপিং’ নামে একটি কোম্পানির মাধ্যমে কাজ পেয়েছিলেন তাঁরা। ট্র‍্যাক বোট নিয়ে আরব সাগরে পাইপ লাইন চেকিংয়ের পাশাপাশি অন্য জাহাজের লাইন-আপ করার কাজ করতেন। কয়েকদিন আগে ‘অ্যালায়েন্স’ নামে একটি ট্র্যাক বোটে করে ম্যাঙ্গালোর বন্দরের কাছে আরব সাগরে কাজ করছিলেন ৮ শ্রমিক। এঁদের মধ্যে নুরপুর এলাকার চার যুবকও ছিলেন। গত শনিবার ঘূর্ণিঝড় তাউটের দাপটের মুখে পড়ে আচমকা ট্র্যাক বোটটি উল্টে যায়। ঝড়ের তাণ্ডবে জাহাজটি বন্দর থেকে প্রায় ৪০ কিমি দূরে সরে যায়। একসময় একটি পাথরে ধাক্কা লেগে ইঞ্জিন বিকল হয়ে পড়ে। এরপর জাহাজটি ঝড়ের তাণ্ডবে উল্টে যায়। কিন্তু সাইক্লোনের সতর্কতা সত্ত্বেও কীভাবে সংস্থার পক্ষ থেকে সমুদ্রের গভীরে কাজ করানো হচ্ছিল, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন পরিবারের লোকজনেরা।

বৃদ্ধা মা, স্ত্রী ও ছোট ছোট দুই ছেলে মেয়েকে নিয়ে ছিল জিবানুরের অভাবের সংসার। অন্যদিকে নিখোঁজ মইনুদ্দিনের বছর খানেক আগে বিয়ে হয়েছিল। বাড়িতে বৃদ্ধ বাবা-মা। জিবানুর ও মইনুদ্দিন দু’জনেই পরিবারের একমাত্র রোজগেরে।

আরও পড়ুন: ‘তৃণমূল নেতারা এসে টাকা-চাকরি দেবে বলেছিল’, লকডাউনের ভয়ে ঘরে ফিরে বলছেন রোজগারহীন পরিযায়ী শ্রমিকরা 

নুরপুর এলাকার বাসিন্দা আরও দুই শ্রমিক মনিরুল ইসলাম ও কারিবুল শেখকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। অন্যদিকে সেখানকার প্রশাসনের পক্ষ থেকে ম্যাঙ্গালোর থেকে মৃত শ্রমিকের দেহ ডায়মন্ড হারবারের বাড়িতে পাঠানো হচ্ছে। পাশাপাশি নিখোঁজ বাঙালি শ্রমিকের খোঁজে জোর কদমে তল্লাশি অভিযান চালানো হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla