Cyclone Sitrang: বৃষ্টি থামতেই ছাদে জ্বলল চুলো, ঘরছাড়া হাজার দশেক, সিত্রাংয়ের দাপটে ওপার বাংলায় মৃত ৩৫

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: ঈপ্সা চ্যাটার্জী

Updated on: Oct 26, 2022 | 8:35 AM

Cyclone Sitrang Effect in Bangladesh:সংবাদসংস্থা এপি সূত্রে জানা গিয়েছে, ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে কমপক্ষে ১০ হাজার বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ৬ হাজার হেক্টরেরও বেশি চাষের জমি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

Cyclone Sitrang: বৃষ্টি থামতেই ছাদে জ্বলল চুলো, ঘরছাড়া হাজার দশেক, সিত্রাংয়ের দাপটে ওপার বাংলায় মৃত ৩৫
ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের প্রভাব বাংলাদেশে। ছবি টুইটার

ঢাকা: রাজ্যে খুব বেশি প্রভাব না পড়লেও, ঘূর্ণিঝড়ের সিত্রাংয়ের দাপটে লন্ডভন্ড বাংলাদেশ। ঘূর্ণিঝড়ের দাপটে কমপক্ষে ৩৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। একটানা বৃষ্টি, ঝোড়ো হাওয়ায় উপড়ে গিয়েছে বাড়িঘর। একাধিক জায়গায় গাছ উপড়ে পড়েও বেশ কয়েকজনের মৃত্যু হয়েছে। সবথেকে বেশি ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বাংলাদেশের উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে। বাংলাদেশের মধ্য ভাগেও ভালভাবেই টের পাওয়া গিয়েছে সিত্রাংয়ের দাপট। তবে বর্তমানে ঘূর্ণিঝড়টি শক্তি হারিয়ে নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে।

আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার ভোরে ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের ল্যান্ডফলের সময় হাওয়ার গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৯০ থেকে ১০০ কিলোমিটার। স্থলভাগে আছড়ে পড়ার পর, উত্তর ও উত্তর-পূর্ব অভিমুখে বরাবর এগিয়ে যায় ঘূর্ণিঝড়। ক্রমে শক্তিক্ষয় হয়ে বর্তমানে ঘূর্ণিঝড়টি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে।  নিম্নচাপের বর্তমান অবস্থান বাংলাদেশের উত্তর-পূর্বে, শিলংয়ের কাছে। পশ্চিমবঙ্গে সিত্রাংয়ের বিশেষ প্রভাব না পড়লেও, বাংলাদেশের উপরে থাকা নিম্নচাপের প্রভাবে উত্তর-পূর্ব ভারতের একাধিক রাজ্য- অসম, মেঘালয়, মিজোরাম, অরুণাচল, ত্রিপুরায় আজও ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি চলবে বলে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

সংবাদসংস্থা এপি সূত্রে জানা গিয়েছে, ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে কমপক্ষে ১০ হাজার বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ৬ হাজার হেক্টরেরও বেশি চাষের জমি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। মাছের চাষ হয়, এমন বহু জলাজমিও ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ভারী বৃষ্টি ও ঝড়ের দাপটে হাজার হাজার মানুষ ঘরছাড়া হয়েছেন। ঘূর্ণিঝড়ে কমপক্ষে ৩৫ জনের মৃত্যু হয়েছে বলেই জানা গিয়েছে। ভাসান চরে ৩০ হাজারেরও বেশি রোহিঙ্গাদের রিফিউজি ক্যাম্প ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কক্স বাজারেও একটি রিফিউজি ক্যাম্প ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় আছড়ে পড়ার আগেই বাংলাদেশ প্রশাসনের তরফে উদ্ধারকাজ শুরু করা হয়েছিল। সোমবারই ২ লক্ষ ১৯ হাজারেরও বেশি মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল বলে জানা বিপর্যয় মোকাবিলা মন্ত্রকের মুখপাত্র মহম্মদ মনিরুজ়ামান। তিনি জানান, ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য ৬৯২৫টি ত্রাণ শিবির খোলা হয়েছে।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla